গ্রামীণফোনের কার্যালয়। ছবি: সংগৃহীত

গ্রাহকদের কাছে দুঃখ প্রকাশ গ্রামীণফোনের

মেসেজে বলা হয়, ‘গ্রামীণফোনের ব্যান্ডউইথ কমাতে সরবরাহকারীদের নির্দেশ দিয়েছে বিটিআরসি। এতে ইন্টারনেট সেবা কিছুটা বিঘ্নিত হতে পারে। এ সমস্যার জন্য আমরা দুঃখিত।’

রাকিবুল হাসান
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮ জুলাই ২০১৯, ১৭:০৫ আপডেট: ০৮ জুলাই ২০১৯, ১৭:০৫
প্রকাশিত: ০৮ জুলাই ২০১৯, ১৭:০৫ আপডেট: ০৮ জুলাই ২০১৯, ১৭:০৫


গ্রামীণফোনের কার্যালয়। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ সীমিত করায় গ্রাহকদের ইন্টারনেট সেবা কিছুটা বিঘ্নিত হতে পারে বলে জানিয়েছে মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোন। একই সঙ্গে গ্রাহকদের মোবাইলে মেসেজ পাঠিয়ে এ সমস্যার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছে অপারেটরটি। 

৮ জুলাই, সোমবার দুপুরে গ্রাহকদের মোবাইলে এই মেসেজ পাঠানো হয়।

বকেয়া অর্থ না দেওয়ায় গ্রামীণফোনের ৩০ শতাংশ ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ সীমিত রাখার নির্দেশ দেয় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। ৭ জুলাই, রবিবার ব্যান্ডউইথ সীমিত করার বিপরীতে প্রতিবাদ জানায় অপারেটরটি।

এই ঘটনার একদিন পর গ্রাহকদের কাছে মেসেজ দিয়ে দুঃখ প্রকাশ করল গ্রামীণফোন।

মেসেজে বলা হয়, ‘গ্রামীণফোনের ব্যান্ডউইথ কমাতে সরবরাহকারীদের নির্দেশ দিয়েছে বিটিআরসি। এতে ইন্টারনেট সেবা কিছুটা বিঘ্নিত হতে পারে। এ সমস্যার জন্য আমরা দুঃখিত। সিদ্ধান্তটি পুনর্বিবেচনা করতে বিটিআরসি-কে অনুরোধ করেছি।’

এদিকে ৭ জুলাই গ্রামীণফোনের প্রতিবাদের পর বিটিআরসি কার্যালয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটির চেয়ারম্যান জহুরুল হক জানিয়েছেন, গ্রামীণফোন টাকা না দিলে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তিনি জানিয়েছেন, বকেয়া অর্থ পরিশোধ না করায় গ্রামীণফোনের লাইসেন্স বন্ধসহ যেসব সিদ্ধান্ত আগে নেওয়া হয়েছে এর মধ্যে একটি ব্যান্ডইউথ কমানো।

তিনি বলেন, ‘ব্যান্ডইউথ কমানোর মধ্য দিয়ে গ্রামীণফোনকে এই বার্তা দেওয়া যে, বিটিআরসি বসে নেই, বিটিআরসি ব্যবস্থা গ্রহণ করছে। আমরা আশা করি, গ্রামীণফোন পাওনা টাকা দিয়ে দিবে।’

জহুরুল হক সংবাদমাধ্যমকে আরও বলেন, ‘আমরা ব্যান্ডইউথ কমানোর মধ্য দিয়ে পরিস্থিতি বোঝার চেষ্টা করছি। এর মধ্য দিয়ে সাধারণ মানুষেরও কিছুটা ভোগান্তি হচ্ছে। পরিস্থিতি বিবেচনা করে সাধারণ মানুষের যেন কোনো ভোগান্তি না হয়, সে অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

এদিকে শুধু গ্রামীণফোনকেই নয়, বকেয়া না পরিশোধ করায় অপর মোবাইল অপারেটর রবির ১৫ শতাংশ ব্যান্ডউইথ সক্ষমতা বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

প্রিয় প্রযুক্তি/রিমন