অদূর ভবিষ্যতে মানুষ দেখতে এমন হতে পারে। ছবি: সংগৃহীত

২১০০ সালে মানুষ দেখতে কেমন হতে পারে!

গবেষকরা বলছেন, এভাবে চলতে থাকলে ২১০০ সাল নাগাদ মানুষের শরীরের যে পরিবর্তন আসবে তা আসলেই ভয়াবহ। আর এসবের মূলে থাকবে এই প্রযুক্তি।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ০৯ জুলাই ২০১৯, ১১:২১ আপডেট: ০৯ জুলাই ২০১৯, ১১:২২
প্রকাশিত: ০৯ জুলাই ২০১৯, ১১:২১ আপডেট: ০৯ জুলাই ২০১৯, ১১:২২


অদূর ভবিষ্যতে মানুষ দেখতে এমন হতে পারে। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ঘুম থেকে শুরু করে ফের ঘুমোতে যাওয়ার আগ পর্যন্ত প্রযুক্তি পণ্যের মধ্যে ডুবে থাকি আমরা। দীর্ঘ সময় প্রযুক্তি পণ্য ব্যবহারে প্রতিনিয়ত আমাদের শরীরে বিভিন্ন পরিবর্তন হচ্ছে।

গবেষকরা বলছেন, এভাবে চলতে থাকলে ২১০০ সাল নাগাদ মানুষের শরীরের যে পরিবর্তন আসবে তা আসলেই ভয়াবহ। আর এসবের মূলে থাকবে এই প্রযুক্তি।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য মিরর জানিয়েছে, ভবিষ্যতে মানুষ দেখতে কেমন হবে এমন একটি কাল্পনিক চিত্র তৈরি করেছে একটি প্রতিষ্ঠান। এতে যে চিত্র ফুটে উঠেছে তাতে চক্ষু চড়কগাছ হওয়াটা অস্বাভাবিক কিছু না।

দেখা গেছে, ২১০০ সালে মানুষের মেরুদণ্ড থাকবে বাকানো। এর মূল কারণ ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় ধরে কম্পিউটারের মনিটরের সামনে বসে থাকা বা মাথা বাঁকিয়ে স্মার্টফোনের দিকে তাকিয়ে থাকা।

অদূর ভবিষ্যতে মানুষের হাত থাকতে পারে এমন বাঁকানো। ছবি: সংগৃহীত

সম্প্রতি একদল বিজ্ঞানী জানিয়েছিলেন, হাতে থাকা ফোনটির অতিরিক্ত ব্যবহারে ঘাড় ও মাথা সংলগ্ন অঞ্চলের হাড় উঁচু হয়ে পাখির বাঁকানো ঠোট কিংবা হুক অথবা শিংয়ের মতো উঁচু হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। দ্য মিররের ওই প্রতিবেদনেও এ তথ্যটি জানানো হয়।

হলিস্টিক্স নামের এক বিশেষজ্ঞের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, ঘণ্টা ধরে বা দীর্ঘ সময় ধরে মোবাইল ব্যবহারে ঘাড় ও মেরুদণ্ডের উপর চাপ পড়ে। ফলে মেরুদণ্ডের ভারসাম্য নষ্ট হয়। মাথাকে সাপোর্ট দিতে ঘাড়ের পেশিকে অতিরিক্ত ভারবহন করতে হয়। কম্পিউটারের সামনে বসে থাকার সময়ও মেরুদণ্ডের উপর এমন চাপ পড়ে।

অতিরিক্ত স্মার্টফোন-কম্পিউটার ব্যবহারের ফলে প্রভাব পড়তে পারে মেরুদণ্ডে। ছবি: সংগৃহীত

এ ছাড়া ২১০০ সালের ওই সময়ে মানুষের মস্তিস্ক সঙ্কুচিত ও ঘনীভূত হবে। এর মূল কারণ স্মার্টফোন থেকে নিঃসরণ হওয়া রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি এবং মানুষের চিন্তা ভাবনার স্থান। স্মার্টফোন ব্যবহারে ভাবনার স্থানগুলো কমে যাবে।

ধারণা করা হচ্ছে ওই সময়ে মানুষের হাত থাকবে বাকানো। অর্থাৎ একজন মোবাইল ব্যবহারকারী যখন হাতে স্মার্টফোন ধরে থাকে তখন তার তালু যেমন থাকে ভবিষ্যতে ঠিক তেমন থাকতে পারে মানুষের হাতের তালু। কনুই থাকতে পারে ৯০ ডিগ্রি বাঁকানো।

পড়তে পারে চোখে প্রভাব। ছবি: সংগৃহীত

হাত, ঘাড়ের পাশাপাশি প্রযুক্তি পণ্য মানুষের চোখে প্রভাব ফেলছে। তবে অদূর ভবিষ্যতে এর প্রভাব আরও ভয়াবহ হবে বলে আশঙ্কা বিজ্ঞানীদের। চোখে ছাঁনি পড়াসহ বিভিন্ন সমস্যায় ভুগতে হতে পারে সে সময়ের মানুষদের।

প্রিয় প্রযুক্তি/রাকিব/আশরাফ