স্বামীর সঙ্গে ববি ডার্লিং। ছবি: সংগৃহীত

ববি ডার্লিংয়ের বিবাহবিচ্ছেদ

একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাতকারে বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদনের খবর স্বীকারও করে নিয়েছেন ববি। তিনি জানান, বিবাহ বিচ্ছেদের জন্য আবেদনের পর তিনি কাউন্সেলিং পর্বের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন।

শামীমা সীমা
সহ সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৩ জুলাই ২০১৯, ১৭:১৭ আপডেট: ১৩ জুলাই ২০১৯, ১৭:১৭
প্রকাশিত: ১৩ জুলাই ২০১৯, ১৭:১৭ আপডেট: ১৩ জুলাই ২০১৯, ১৭:১৭


স্বামীর সঙ্গে ববি ডার্লিং। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) বি টাউনের একাধিক সিনেমায় অভিনয় করা ববি ডার্লিং নিজের লিঙ্গ পরিবর্তন করে ২০১৬ সালে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন। ভোপালের ব্যবসায়ী রামনিক শর্মাকে বিয়ে করে খবরের শিরোনামে উঠে আসেন তিনি। বিয়ের পর নিজের নাম বদলে রেখেছিলেন পাখি শর্মা। তবে বিয়ের কিছুদিনের মাথায় শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগে বিবাহ-বিচ্ছেদের আবেদন করেন ববি ডার্লিং ওরফে পঙ্কজ শর্মা

সম্প্রতি বান্দ্রার পারিবারিক আদালতে হাজির হতে দেখা যায় ববি ডার্লিংকে। আর এর পরই ববির বিবাহ-বিচ্ছেদের আবেদনের খবর ছড়িয়ে পড়ে। একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাতকারে বিবাহ- বিচ্ছেদের আবেদনের খবর স্বীকারও করে নিয়েছেন ববি। তিনি জানান, বিবাহ-বিচ্ছেদের জন্য আবেদনের পর তিনি কাউন্সেলিং পর্বের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন।

স্বামীর সঙ্গে ববি ডার্লিং। ছবি: সংগৃহীত

ইতোমধ্যেই কাউন্সেলিংয়ের প্রথম পর্ব পার করেও ফেলেছেন বলে জানিয়েছেন ববি। তিনি জানান, বহুদিন ধরেই স্বামী রামনিকের সঙ্গে ঝগড়া বিবাদের মধ্য দিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। ঝগড়া অশান্তির মধ্যে দিয়ে চলার থেকে শান্তিতে থাকা অনেক ভালো বলে মনে করেন বিগবস রিয়েলিটি শোয়ের অন্যতম আলোচিত প্রতিযোগী ববি ডার্লিং।

প্রসঙ্গত, বিয়ের ঠিক একবছর পর থেকেই স্বামী রামনিক শর্মার বিরুদ্ধে শারীরিক নির্যাতন ও অস্বাভাবিক যৌনতার অভিযোগ তুলেছিলেন ববি। যৌতুকের দাবিতে শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাকে অত্যাচার করে বলেও অভিযোগ এনেছিলেন তিনি।

লিঙ্গ পরিবর্তনের আগে ও পরে ববি ডার্লিং। ছবি: সংগৃহীত

ববির অভিযোগ ছিল, তাকে ভোপালের একটা ফ্ল্যাটে বন্দী করে রাখা হয়েছিল। কোনোক্রমে সেখান থেকে পালিয়ে আসেন। তার অভিযোগের ভিত্তিতে রামনিককে গ্রেফতারও করে পুলিশ। এখনও তিহার জেলে বন্দী রয়েছেন ববির স্বামী রামনিক শর্মা।

সূত্র: ইন্ডিয়া.কম

প্রিয় বিনোদন/রুহুল