হতাশায় ডুবে যাওয়া কিউই খেলোয়াড়দের সান্তনা দিতে এগিয়ে যান ইংলিশ ক্রিকেটাররা। ছবি: সংগৃহীত

ফাইনাল হারের পর বাচ্চাদের জন্য জিমি নিশামের উপদেশ, খেলাধুলা করো না

ম্যাচ শেষে মাঠেই হতাশায় নুয়ে পড়েন কিউই ক্রিকেটাররা। উইলিয়ামসন-মার্টিন-নিশামদের ভেজা চোখ বলে দিচ্ছিলো - ফাইনাল ম্যাচে এমন হার তারা মোটেও কল্পনা করেনি।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৫ জুলাই ২০১৯, ১৩:৪৫ আপডেট: ১৫ জুলাই ২০১৯, ১৩:৪৫
প্রকাশিত: ১৫ জুলাই ২০১৯, ১৩:৪৫ আপডেট: ১৫ জুলাই ২০১৯, ১৩:৪৫


হতাশায় ডুবে যাওয়া কিউই খেলোয়াড়দের সান্তনা দিতে এগিয়ে যান ইংলিশ ক্রিকেটাররা। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) আগে ব্যাট করতে নেমে ইংলিশ বোলারদের তোপে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহটা ২৪১ রানের বেশি হয়নি। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের শেষ বলে গুটিয়ে যায় ইংলিশরা, তাদের সংগ্রহও ২৪১। প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনাল গড়ালো সুপার ওভারে। টান টান উত্তেজনা! ইংল্যান্ড করল ১৫ রান। নিউজিল্যান্ডও করল ঠিক ১৫!

সুপার ওভারেও ম্যাচ টাই। তখন দেখা হলো, ম্যাচে বাউন্ডারি বেশি কাদের। ইংল্যান্ড তাতেই চ্যাম্পিয়ন! কিউইদের চেয়ে বাউন্ডারি যে বেশি তাদের!

এ যেন রূপকথাকেও হার মানানো ফাইনাল! ক্লাইম্যাক্স-অ্যান্টি ক্লাইম্যাক্স, টাইয়ের ওপর টাই, চড়াই-উতরাই, নানা বাঁক- সব মিলিয়ে টান টান উত্তেজনায় ভরপুর স্নায়ুক্ষয়ী এক ফাইনাল; যেখানে শেষ হাসি হেসেছে ইংল্যান্ড আর নিয়মের মারপ্যাচে পড়ে কান্নাভেজা চোখে মাঠ ছাড়তে হয়েছে কেন উইলিয়ামসনের নিউজিল্যান্ডকে।

ম্যাচ শেষে মাঠেই হতাশায় নুয়ে পড়েন কিউই ক্রিকেটাররা। কেন উইলিয়ামসন-মার্টিন গাপটিল-জিমি নিশামদের ভেজা চোখ বলে দিচ্ছিলো - ফাইনাল ম্যাচে এমন হার তারা মোটেও কল্পনা করেনি।

কাঁদছেন অধিনায়ক উইলিয়ামসন, তাকে সান্তনা দিচ্ছেন জিমি নিশাম ও ইংলিশ অধিনায়ক মরগান। ছবি: সংগৃহীত

এতটাই হতাশা কাজ করছে যে কিউই অলরাউন্ডার জিমি নিশাম বাচ্চাদের উপদেশই দিয়ে দিলেন, যেন খেলাধুলার সঙ্গে আর কেউ না জড়ায়। তার মতে, খেলাধুলা করার চেয়ে সুস্থ স্বাভাবিকভাবে অন্য কিছু করে মরে যাওয়া ভালো। টুইটে নিশাম লিখেছেন, ‘বাচ্চারা, খেলাধুলা করো না। তার চেয়ে বরং বেকিং বা অন্যকিছু করো, ৬০ বছর বয়সে মোটা এবং হাসিখুশিভাবে মারা যাও।’

ক্রিকেট সমর্থকরা অবশ্য নিশামকে সান্তনা দিচ্ছেন। কিন্তু টানা দুই বিশ্বকাপের ফাইনালের দগদগে ক্ষত এত দ্রুতই কি সেরে যাবে নিশাম-উইলিয়ামসনদের!

প্রিয় খেলা/আশরাফ