মিনহাজুল আবেদীন নান্নু ও হাবিবুল বাশার সুমনের সঙ্গে খালেদ মাহমুদ সুজন। ছবি: প্রিয়.কম

কোচ হতে আবেদনই করেননি খালেদ মাহমুদ সুজন!

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, ১৮ জুলাই পর্যন্ত ছিল প্রধান কোচ হিসেবে আবেদন করার শেষদিন।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৮ জুলাই ২০১৯, ২২:৪১ আপডেট: ১৮ জুলাই ২০১৯, ২২:৪১
প্রকাশিত: ১৮ জুলাই ২০১৯, ২২:৪১ আপডেট: ১৮ জুলাই ২০১৯, ২২:৪১


মিনহাজুল আবেদীন নান্নু ও হাবিবুল বাশার সুমনের সঙ্গে খালেদ মাহমুদ সুজন। ছবি: প্রিয়.কম

(প্রিয়.কম) স্টিভ রোডসের পর জাতীয় দলের পরবর্তী প্রধান কোচ হিসেবে বেশ জোরেশোরেই আলোচনায় উঠে এসেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজনের নাম। জাতীয় দলের সাবেক এই ক্রিকেটার নিজেও জানিয়েছিলেন, লম্বা সময়ের জন্য বাংলাদেশ দলের কোচ হতে চান। কিন্তু প্রধান কোচ হিসেবে আবেদনই করেননি তিনি।

১৮ জুলাই, বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় একটি দৈনিককে এমন তথ্য জানিয়েছেন সুজন নিজেই। তিনি জানান, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের কাছ থেকে সবুজ সঙ্কেত না পাওয়ায় মাশরাফি-সাকিবের কোচ হওয়ার জন্য আবেদন করেননি করেননি।

সেমিফাইনালে খেলার লক্ষ্য নিয়ে এবারের বিশ্বকাপে অংশ নিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু বিদায় নিতে হয়েছে লিগ পর্ব থেকেই। লিগ পর্বের ৯ ম্যাচের মধ্যে মাত্র তিনটিতে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। এ ছাড়া একটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয় বৃষ্টিতে। সবমিলিয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার অষ্টম অবস্থানে থেকে বিশ্বকাপ মিশন শেষ হয়েছে মাশরাফি-সাকিব-তামিমদের।

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের এমন পারফরম্যান্সে অনেকটাই হতাশ ভক্ত-সমর্থকরা। হতাশ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও (বিসিবি)। তাই তো আসন্ন ২০২০ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত স্টিভ রোডসের সঙ্গে চুক্তি থাকলেও তার আগেই তার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে বিসিবি। আপাতত জাতীয় দলের প্রধান কোচের পদটি ফাঁকা পড়ে আছে।

প্রধান কোচের পদটি অবশ্য বেশিদিন ফাঁকা রাখতে চাইছে না বিসিবি। এজন্য রোডসের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করার পর থেকেই তৎপরতা শুরু করে দেয় বাংলাদেশ ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি, প্রকাশ করে প্রধান কোচের জন্য নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি।

সেই বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, ১৮ জুলাই পর্যন্ত ছিল প্রধান কোচ হিসেবে আবেদন করার শেষদিন। এই সময়ের মধ্যে কোচ হিসেবে দায়িত্ব নিতে আগ্রহী প্রার্থীকে এক কপি ছবি ও জীবন বৃত্তান্ত বিসিবি বরাবর মেইলে পাঠাতে বলা হয়েছিল। আজ শেষ হয়েছে আবেদন করার সময়।

প্রিয় খেলা/রুহুল