দক্ষিণ আফ্রিকা-বাংলাদেশ সিরিজের ছবি, হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে মুশফিকুর রহিমকে। ছবি: সংগৃহীত

আইসিসির নতুন নিয়ম: ক্রিকেটেও মাঠে নামানো যাবে বদলি খেলোয়াড়

এ নিয়মটি আগামী ১ আগস্ট থেকে শুরু হতে যাওয়া অ্যাশেজ সিরিজ দিয়ে চালু হবে।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৯ জুলাই ২০১৯, ১২:৪৩ আপডেট: ১৯ জুলাই ২০১৯, ১২:৪৩
প্রকাশিত: ১৯ জুলাই ২০১৯, ১২:৪৩ আপডেট: ১৯ জুলাই ২০১৯, ১২:৪৩


দক্ষিণ আফ্রিকা-বাংলাদেশ সিরিজের ছবি, হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে মুশফিকুর রহিমকে। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ইনজুরি প্রতিটি খেলারই একটি খারাপ দিক। খেলার মাঠে অনেক সময়ই ইনজুরিতে পড়তে হয় খেলোয়াড়দের। ক্রিকেটও এই একই সূত্র মেনে চলে। তবে শক্ত ক্রিকেট বলের কারণে ব্যাপারটি আরো গুরুতর রূপ ধারণ করে। তার কারণ বোলারদের গতি আর বাউন্সার। আবার কখনো অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনাতেও খেলোয়াড়কে ইনজুরির কবলে পড়তে হয়।

বোলারদের দ্রুতগতির বলের কারণে প্রায়শই গুরুতর আহত হন ক্রিকেটাররা। অনেককেই সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হয়। অনেককে আবার অ্যাম্বুল্যান্সে করে হাসপাতালে নিতে হয়। অনেক ক্রিকেটারই আবার মাথার চোট বা অন্য অঙ্গের চোট নিয়েই খেলা চালিয়ে যান। এটি খুবই গুরুতর ব্যাপার ৷ এতে সেই খেলোয়াড়ের ক্যারিয়ার এমনকি জীবনও বিপন্ন হতে পারে।

এই বিষয়গুলো মাথায় রেখে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) চালু করছে নতুন নিয়ম। আর তা হলো মাথায় আঘাত পেয়ে কোনো ক্রিকেটার খেলতে না পারলে তার পরিবর্তে খেলোয়াড় মাঠে নামানো যাবে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এ নিয়মের অনুমোদন দিয়েছে আইসিসি। ঘরোয়া ক্রিকেটে দুই বছর পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর অবশেষে এমন সিদ্ধান্তে উপনীত হলো ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা।

এ নিয়মটি আগামী ১ আগস্ট থেকে শুরু হতে যাওয়া অ্যাশেজ সিরিজ দিয়ে চালু হবে। এ নিয়মানুসারে আইসিসির শর্ত মেনে দলগুলো তাদের গুরুতর আঘাত পাওয়া ক্রিকেটারদের বদলে বদলি খেলোয়াড়দের খেলাতে পারবে। কোনো খেলোয়াড় যদি ইনজুরিতে পড়ে আর খেলার উপযুক্ত না থাকেন, তাহলেই এই নিয়মটি তার ওপর প্রযোজ্য হবে। ছেলে ও মেয়ে উভয় ক্রিকেটের সব ফরম্যাটেই এই নিয়ম মানা হবে।

বদলি খেলোয়াড়ের নিয়মটা অনেকটা ফিল্ডিংয়ের সময়ে বদলি খেলোয়াড়ের মতো হতে চলেছে। কেউ আহত হওয়ার পর ফিজিওর পরামর্শে তিনি যদি মাঠে খেলার অনুপযুক্ত হন, তবে সেক্ষেত্রে ওই খেলোয়াড়ের বদলি হিসেবে অন্য আরেকজনকে খেলানো হবে। এতে দল যেমন ব্যাটিং বিপর্যয় থেকে রক্ষা পাবে, তেমনি ব্যাটসম্যানও চোট কাটিয়ে উঠার প্রয়োজনীয় সুযোগও পাবেন। ফলে এই নিয়মের প্রসংশাও করছেন ক্রিকেটবোদ্ধারা।

আইসিসি এক বিবৃতিতে জানায়, বদলি খেলোয়াড় নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেবেন দলের ফিজিও। ওই ক্রিকেটারকে অবশ্যই একই মানের হতে হবে। তাতে ম্যাচ রেফারির অনুমোদন থাকবে।

এ ছাড়া ক্রিকেট কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী, স্লো ওভার রেটের শাস্তিতে পরিবর্তন এনেছে আইসিসি। টানা বা গুরুতর মন্থর ওভার রেটের কারণে অধিনায়ক আর নিষিদ্ধ হবেন না। আগে শাস্তিতে অধিনায়কের ম্যাচ ফি’র অর্ধেক কেটে নেওয়া হতো এবং বাকি অর্ধেক কাটা হতো দলের অন্য ক্রিকেটারদের ম্যাচ ফি থেকে। এখন দলপতির সমান তাদেরও জরিমানা গুনতে হবে।

প্রিয় খেলা/রুহুল