শ্রীলঙ্কা দল। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার স্কোয়াডে এত খেলোয়াড় কেন?

১৫ কিংবা ১৬ জন নয়, বাংলাদেশের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কা ২২ সদস্যর স্কোয়াড ঘোষণা করে।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২১ জুলাই ২০১৯, ১০:০৯ আপডেট: ২১ জুলাই ২০১৯, ১০:০৯
প্রকাশিত: ২১ জুলাই ২০১৯, ১০:০৯ আপডেট: ২১ জুলাই ২০১৯, ১০:০৯


শ্রীলঙ্কা দল। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) বাংলাদেশের বিপক্ষে আসন্ন তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের জন্য ২২ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করেছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি)। নিয়মিত মুখ ও বিশ্বকাপ দলের ক্রিকেটাররা ছাড়াও ২২ জনের বড় এই স্কোয়াডে সুযোগ পেয়েছেন বিভিন্ন সময়ে ওয়ানডে ক্রিকেটে শ্রীলঙ্কাকে প্রতিনিধিত্ব করা ১০ জন ক্রিকেটার।

স্বাভাবিকভাবেই এত বড় স্কোয়াড দেখে দ্বিধায় পড়ে যেতে পারে ক্রিকেট সমর্থকরা। বাংলাদেশি সমর্থকদের মধ্যে তো অনেকেই মনে করেছেন এটা বুঝি প্রাথমিক স্কোয়াড। এখান থেকে ১৫ কিংবা ১৬ জনকে নিয়ে পরবর্তী সময়ে হয়তো মূল স্কোয়াড ঘোষণা করবে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড।

লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের ঘোষিত এই দলটাই মূল স্কোয়াড। বাংলাদেশের বিপক্ষে এত বড় স্কোয়াড ঘোষণা মূল কারণ একটাই। আর তা হলো - পরীক্ষা-নিরীক্ষা। ওয়ানডে বিশ্বকাপের ১২তম আসরটা ভালো যায়নি। বিশ্বকাপ দল নিয়েও ছিল বিতর্ক। তাই বিশাল আকারের দল নিয়ে যাচাই করার প্রচেষ্টা।

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের প্রধান নির্বাচক আশান্থা ডি মেল বড় দল ঘোষণার ব্যাখ্যায় জানিয়েছেন, বড় স্কোয়াড ঘোষণা করলেও প্রতি ম্যাচের আগে টিম ম্যানেজমেন্ট বসবে একাদশ বাছাইয়ের জন্য।

হোম সিরিজগুলোতে স্বাগতিক দল যেকোনো সময় স্কোয়াডে নতুন খেলোয়াড় অন্তর্ভুক্ত করার সুযোগ পায়। সেই সুবিধা কাজে লাগিয়ে বেশিরভাগ দলই পুরো সিরিজের জন্য স্কোয়াড ঘোষণা না করে পৃথক ম্যাচের জন্য দফায় দফায় দল ঘোষণা করে, যদি দল নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার ভাবনা থাকে।

লঙ্কান বোর্ড একবারেই পুরো স্কোয়াড ঘোষণা করেছে। এ নিয়ে শ্রীলঙ্কার একটি সংবাদমাধ্যমকে আশান্থা ডি মেল বলেন, ‘আমরা ২২ খেলোয়াড়ের বিশাল স্কোয়াড করেছি কারণ দল নিয়ে আমরা কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে চাচ্ছি। এটি হোম সিরিজ। প্রত্যেক ম্যাচের আগেই আমরা আলাদাভাবে একাদশ বাছাই করব।’

এই দল নিয়েও রয়েছে বিতর্ক। ২২ সদস্যের দলেও জায়গা পাননি দীনেশ চান্দিমালের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটার, যিনি কিনা কয়েক মাস আগে জাতীয় দলের অধিনায়কও ছিলেন!

তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচটি আগামী ২৬ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে। ২৮ জুলাই দ্বিতীয় ও তৃতীয় ম্যাচটি ৩১ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে। সবগুলো ম্যাচই প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কা স্কোয়াড: দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), কুশল পেরেরা, আভিশকা ফার্নান্ডো, কুশল মেন্ডিস, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, লাহিরু থিরিমান্নে, দানুশকা গুনাথিলাকা, শিহান জয়াসুরিয়া, নিরোশান ডিকওয়েলা, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, আকিল ধনঞ্জয়া, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, লক্ষ্মণ সান্দাকান, আমিলা আপোনসো, দাসুন শনাকা, থিসারা পেরেরা, ইসুরু উদানা, লাহিরু মাদুশাঙ্কা, লাসিথ মালিঙ্গা, কাসুন রাজিথা, লাহিরু কুমারা, নুয়ান প্রদীপ।

প্রিয় খেলা/আশরাফ