৬৫ লাখ টাকার সেতু আছে, রাস্তা নাই

সরকারের ৬৫ লাখ টাকা পুরোটাই জলে ভেসে যাবে বলেও মনে করেন অনেকেই।

এম এ মোমেন
আলোকচিত্রী,লেখক
১৩ জুন ২০১৮, সময় - ১০:০৯

দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার ভুল্লী নদীর উপর জোড়া সেতু।

দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার ২ নং ভেড়ভেড়ী ইউনিয়নের হোসেনপুর গ্রামের মন্ডলপাড়া হয়ে সমশের ভেন্ডারের বাড়ি হয়ে আমতলী বাজারে যাওয়ার রাস্তায় ভুল্লী নদীর উপর জোড়া সেতুটি দুই বছর আগে হলেও রাস্তা না থাকার কারণে অকার্যকর অবস্থায় পড়ে আছে!

হোসেনপুর গ্রামের কয়েকশ’ মানুষের যাতায়াত এই ভুল্লী নদীর জোড়া সেতুর উপর দিয়ে। কিন্তু বছর দুয়েক আগে সেতু হলেও রাস্তা না থাকার কারণে সেতুটি ব্যবহার করতে পারছেন না এলাকাবাসী। ফলে সেতুর নিচ দিয়ে যাতায়াত করলেও বর্ষার মৌসুমে সেতুটি নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা এলাকাবাসীর রয়ে গেছে।

অথচ বাংলাদেশের একজন দায়িত্বশীল মন্ত্রীর নিজের ইউনিয়নের এমন উন্নয়নের ব্যাপারে শুধুমাত্র সামান্য রাস্তার কারণে লাখ লাখ টাকার সেতু নষ্ট হতে চলেছে!

বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর নিজ নির্বাচনী এলাকা এবং নিজ ইউনিয়নের ভুল্লী নদীর জোড়া সেতুটির রাস্তাটিতে মাটি ভরাট করে উঁচু না করলে সরকারের ৬৫ লাখ টাকা পুরোটাই জলে ভেসে যাবে বলেও মনে করেন অনেকেই।

পৃথক দুটি সেতুর ৩২ লাখ ৫২ হাজার ৬৩৯ টাকা করে মোট ৬৫ লাখ টাকা বরাদ্দের এই জোড়া সেতুটি কোনো কাজেই লাগছে না। বর্তমানে ৬৫ লাখ টাকা মাটির উপর ভেসে আছে। সেতুর দুই পাশেই রাস্তা নেই, সেতুর নিচ দিয়ে মানুষ যাতায়াত করছেন এবং সেতুটি পুরোটাই অকার্যকর অবস্থায় পরিত্যক্তভাবে পড়ে আছে!

মন্ত্রী মহোদয়ের কাছে এলাকাবাসীর দাবি ছিল এই সেতুটির। দুই বছর আগে সেতুটি হয়েছেও কিন্তু এলাকাবাসীর কোনো কাজে আসছে না। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নজরে এনে দ্রুত রাস্তাটির মেরামত করে সেতুটি চলাচলের উপযোগি করে দিলে ওই এলাকার মানুষ সুবিধা পাবে।

৩০০ মিটার রাস্তার সেতুই হলো ১৫+১৫=৩০ মিটার,বাকি ২৭০ মিটার রাস্তাটি সেতুর দুই পাশে খালি পড়ে আছে। রাস্তাটি ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের দায়িত্বে থাকলেও এতদিনেও ঠিক করা হয়নি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নিজ ইউনিয়নের উন্নয়ন এবং চলাচলের রাস্তাটিরও এই অবস্থা দেখে অনেকেই মনে করেন আমাদের মন্ত্রী উন্নয়নমূলক কাজ করছেন। কিন্তু এগুলোর সঠিক তদারকি হচ্ছে না। ফলে উন্নয়নের অনেকাংশই নষ্ট হচ্ছে।

এলাকাবাসীর দাবি, যথাযথ কর্তৃপক্ষ ভুল্লী নদীর এই জোড়া সেতুর রাস্তাটি দ্রুততার সঙ্গে সংস্কার করে সেতুটি চলাচলের জন্য সবার উপযোগি করে করে ‍তুলবেন।

[প্রকাশিত মতামত লেখকের একান্তই নিজস্ব। প্রিয়.কম লেখকের মতাদর্শ ও লেখার প্রতি শ্রদ্ধাশীল। প্রকাশিত মতামতেরসঙ্গে প্রিয়.কমের সম্পাদকীয় নীতির মিল না-ও থাকতে পারে।]
প্রিয় মতামত/গোরা

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


স্পন্সরড কনটেন্ট
জনপ্রিয়
আরো পড়ুন