বরিশালে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় ৮ ডিবি সদস্য প্রত্যাহার

বরিশালে বেসরকারি একটি টেলিভিশন চ্যানেলের আলোকচিত্রী সুমন হাসানকে তুলে নিয়ে গিয়ে শারীরিক নির্যাতনের ঘটনায় অভিযুক্ত ৮ ডিবি সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

আফসানা সুমী
সহ-সম্পাদক
১৪ মার্চ ২০১৮, সময় - ১৩:৪৯

সুমন হাসান (বামে) ছবি: ইউএনবি

(প্রিয়.কম) বরিশালে বেসরকারি একটি টেলিভিশন চ্যানেলের এক ক্যামেরা পারসনকে তুলে নিয়ে গিয়ে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগে পুলিশের গোয়েন্দা শাখার ৮ সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। 

ঘটনা খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে জানিয়ে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের (বিএমপি) ডেপুটি কমিশনার (দক্ষিণ) গোলাম রউফ বলেন, ‘তদন্ত রিপোর্টে দোষী সাব্যস্তদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ১৩ মার্চ মঙ্গলবার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবুল বাশারের নেতৃত্বে ডিবি পুলিশের একটি দল দক্ষিণ চক বাজারের বিউটি হলের কাছে এক বাড়িতে তল্লাশি চালায়। তখন ওই বাড়িতে ডিবিসি নিউজের ক্যামেরা পারসন সুমন হাসান উপস্থিত হন এবং সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বিস্তারিত জানতে চান। কথাবার্তার এক পর্যায়ে ডিবি পুলিশ তার ওপর চড়াও হয়ে মারধর করতে শুরু করলে সুমন অজ্ঞান হয়ে যায়। এরপর সুমনকে তারা অফিসে নিয়ে যায়।   

এই বিষয়ে ডিবি অফিসে তথ্যের জন্য গেলে অন্য সাংবাদিকদেরও লাঞ্ছিত করেন তারা। পরে সাংবাদিকরা বিষয়টি বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের ডেপুটি কমিশনার (দক্ষিণ) গোলাম রউফকে জানালে তিনি ৮ ডিবি পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেন। 

এই বিষয়ে সুমন বলেন, ‘আমি সাংবাদিক পরিচয় দেওয়ার সাথে সাথে তারা প্রচণ্ড রেগে যান।’ এমনকি তাকে ক্রসফায়ার করে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন সুমন। 

বিএমপি সহকারী কমিশনার (ডিবি) নাছির উদ্দিন মল্লিক বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় এসআই আবুল বাশার এবং তার দলের ৭ সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এদের মধ্যে ২ জন উপ-পরিদর্শক ছিলেন।’

এই ঘটনায় ইতোমধ্যে বরিশাল প্রেসক্লাব, বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটি এবং অন্যান্য সাংবাদিক সংস্থাগুলো তীব্র নিন্দা জানিয়েছে।

সূত্র: ইউএনবি

প্রিয় সংবাদ/রুহুল

প্রিয় সংবাদ/আফসানা সুমী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
জনপ্রিয়