(প্রিয়.কম) আড়ংয়ের বিরুদ্ধে মেয়াদউত্তীর্ণ পণ্য বিক্রি ও মেয়াদউত্তীর্ণ হওয়ার পর তারিখ পাল্টে নতুন করে বিক্রির অভিযোগ করেছেন একজন ভোক্তা। 

বাদশাহ মিন্টু নামের এ ভোক্তার অভিযোগ, অল্প কয়েকদিনের ব্যবধানে ১২ অক্টোবর বৃহস্পতিবার দ্বিতীয়বার তার সাথে একই ধরনের ধটনা ঘটল।

মেয়াদউত্তীর্ণ পণ্য নিয়ে আড়ংয়ের এমন ‘প্রতারণার’ প্রমাণসহ বৃহস্পতিবার রাতে নিজের ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন মিন্টু। তার পোস্ট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, আড়ংয়ের টক দইয়ের উপরের ঢাকনায় ২০ অক্টোবর মেয়াদউত্তীর্ণের তারিখ লেখা থাকলেও ঢাকনা খুলতেই ভেতরের প্যাকেটে মেয়াদউত্তীর্ণের তারিখ লেখা আছে ১০ অক্টোবর। অর্থাৎ পণ্যটির মেয়াদ দুই দিন আগেই শেষ হয়েছে!

ওই ফেসবুক পোস্টে তিনি সবাইকে আড়ংয়ের পণ্য না কেনার আহবানও জানিয়েছেন। 

ওই ফেসবুক পোস্টের সূত্র ধরে বাদশাহ মিন্টুর সাথে কথা বলে প্রিয়.কম। 

তিনি প্রিয়.কমকে বলেন, ‘রাজধানীর পানস্থপথের একটি দোকান থেকে আজ একটি আড়ংয়ের টক দই কিনি। কিন্তু বাসায় এসে দেখি এটি মেয়াদউত্তীর্ণ। টক দইটির উপরের ঢাকনাতে ২০ অক্টোবর মেয়াদউত্তীর্ণের তারিখ লেখা থকালেও ভেতরে মেয়াদউত্তীর্ণের তারিখ লেখা ছিল ১০ অক্টোবর।’ 

মেয়াদউত্তীর্ণ পণ্য আড়ং এভাবে উপরের ঢাকনা পরিবর্তন করে বিক্রি করে বলে দাবি করেন তিনি। অল্প কয়েকদিন আগে পান্থপথেরই আরেকটি দোকান থেকে আড়ংয়ের পণ্য কিনে একই রকম অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছেন বলেও জানান তিনি। 

তিনি বলেন, আড়ংয়ের এসব প্রতারণার বিষয়ে সবাইকে সতর্ক করতেই ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছি।

প্রিয় সংবাদ/মিজান