বাঁ থেকে শাকিব খান, জয়া আহসান, মেহজাবিন চৌধুরী ও টনি ডায়েস। ছবি: সংগৃহীত ও প্রিয়.কম

বিমান দুর্ঘটনায় শোক প্রকাশ করে যা বললেন তারকারা

নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় ঝরে গেল ৫১টি তাজা প্রাণ। তাদের এ আকস্মিক বিদায়ে শোকাহত বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের মানুষ। মুহূর্তেই যেন স্তব্ধ হয়ে পড়েছিল গোটা বাংলাদেশ।

শিবলী আহমেদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৩ মার্চ ২০১৮, ১৮:৫৪ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২১:৪৮


বাঁ থেকে শাকিব খান, জয়া আহসান, মেহজাবিন চৌধুরী ও টনি ডায়েস। ছবি: সংগৃহীত ও প্রিয়.কম

(প্রিয়.কম) নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় ঝরে গেল ৫১টি তাজা প্রাণ। তাদের এ আকস্মিক বিদায়ে শোকাহত বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের মানুষ। মুহূর্তেই যেন স্তব্ধ হয়ে পড়েছিল গোটা বাংলাদেশ। সামাজিক গণমাধ্যম ফেসবুক জুড়ে ছিল শোকের মাতম। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে তারকারাও হতভম্ব হয়ে পড়েছিলেন ঘটনার আকস্মিকতায়। আর তাই বেদনাকাতর হয়ে ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন তারা। শোক প্রকাশে কেউ কেউ নিজের ফেসবুক প্রোফাইল ছবিটি কালো করেছেন। কেউ কেউ গভীর শোক প্রকাশের পাশাপাশি নিহতদের পরিবারকে জানিয়েছেন সমবেদনা। অনেকেই আবার এ দুর্ঘটনাকে ঘিরে সৃষ্ট নানা বিতর্কের প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

দেশের তারকাঙ্গনের মোটামুটি সবাই বর্তমানে শোকে বিহ্বল। অভিনেত্রী মৌসুমী হামিদ, শামিমা তুষ্টি, মেহের আফরোজ শাওন, শবনম ফারিয়া, নিপুণ, ফারিয়া শাহরিন, মৌসুমী নাগ, বন্যা মির্জা, আশনা হাবিব ভাবনা, জয়া আহসান, মেহজাবিন চৌধুরী, জাকিয়া বারী মম, তারিন জাহান, শিরিন বকুল, তানভীন সুইটি, রুনা খান, সুবর্ণা মুস্তাফা, জ্যোতিকা জ্যোতি, উর্মিলা শ্রাবন্তী কর, অপর্ণাসহ আরও অনেকের ফেসবুক প্রোফাইলে দেখা যায় শোকের ছায়া।

অভিনেতা জায়েদ খান, সাজু খাদেম, জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, ওমর সানি, অনন্ত জলিল, নিরব, আদনান ফারুক হিল্লোল, চঞ্চল চৌধুরী, শাকিব খান, ইরেশ যাকের, মিলন ভট্টাচার্য, টনি ডায়েস, রওনক হাসানইমন আঁতকে উঠেছেন দুর্ঘটনার ভয়াবহতায়।

নির্মাতা সাগর জাহানঅনিমেষ আইচ, উপস্থাপক দেবাশীষ বিশ্বাস ছাড়াও শোক বিহ্বল হয়ে পড়েছেন সংগীতশিল্পী প্রীতম হাসান, সালমা, আঁখি আলমগীরশফিক তুহিন

বিভিন্ন তারকাদের শোক প্রকাশ করে দেওয়া ফেসবুক স্ট্যাটাসের কয়েকটি তুলে ধরা হলো।

‘যাবার আগে আরও একবার ১৬ কোটি মানুষকে গর্ব দিয়ে গেলেন’

এ বাক্যটি পাওয়া গেল অভিনেত্রী মৌসুমি হামিদের ফেসবুক পোস্ট থেকে। মূলত ইউ-এস বাংলা বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার পর এক দল ব্যক্তি পাইলটকে দোষারোপ করছিল। তারা বলছিল যে নারী পাইলট হওয়ার কারণে এ দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। তাদের কথার প্রতিবাদ করে মৌসুমি হামিদ ওই পাইলটের ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘যারা মহিলা পাইলট বলে নাক কুচকাইছে, তাদের মুখে জুতা পড়া উচিত এখন। আপনি ভালো থাকবেন আপু। যাবার আগে আরও একবার ১৬ কোটি মানুষকে গর্ব দিয়ে গেলেন। বেঁচে থাকবেন আপনি যুগে যুগে।’

‘সৃষ্টিকর্তা সকল নিহতের পরিবারকে এই শোক সামলে ওঠার শক্তি দান করুক’

কালো ব্যাকগ্রাউন্ডে সাদা বর্ণে লেখা ‘আমরা শোকাহত’- এমন একটি ছবি আপ করে অভিনয় শিল্পী সংঘের পক্ষ থেকে লিখেছেন, ‘ইউ-এস বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান দুর্ঘটনায় নিহত ও আহত এবং মিরপুর এর ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে নিহত, আহত, নিঃস্ব পরিবারের সকলের প্রতি গভীর শোক, সমবেদনা জ্ঞাপন করছি। আহতরা সুস্থ হয়ে উঠুক। সৃষ্টিকর্তা সকল নিহতের পরিবারকে এই শোক সামলে ওঠার শক্তি দান করুক। অভিনয় শিল্পী সংঘ।’

একই স্ট্যাটাস চোখে পড়েছে অভিনেত্রী তানভীন সুইটি ও অভিনেতা রওনক হাসানের ফেসবুক ওয়ালে।

‘কালো চশমা ভেদ করে দুটি করুণ চোখ আমাকে কুঁড়ে কুঁড়ে খাচ্ছে’

এ বাক্যটি অভিনেত্রী মেহের আফরোজ শাওনের স্ট্যাটাস থেকে নেওয়া। মূলত মৃতদের মধ্যে এক জন নারী ছিলেন, যার হাতে মেহেদী পরা ছিল। পরবর্তীতে তাকে সেই মেহেদী দেখেই চিহ্নিত করা হয়। সেই নানীসহ দুর্ঘটনা কবলিত সকলকে স্মরণ করে শাওন লিখেছেন, “বিবাহবার্ষিকী আগাম পালন করতে নেপাল যাচ্ছিলেন মেহেদী রাঙা হাতে বোর্ডিং কার্ডসহ পাসপোর্ট ধরে রাখা তাহিরা শশী। লিখেছিলেন ‘স্পেশাল মার্চ’। ছিল প্রিয়তম মানুষটির সাথে ছবি। আরও লেখা ‘মোমেন্টস উইথ হিম’। মেহেদী পরা, আধপোড়া সেই হাতটি দেখেই কি তাকে সনাক্ত করা হয়েছে? তার পরিবারের কাছে বাকি জীবনের কোনো মার্চ কি আর ‘স্পেশাল’ হবে? কাঠমুন্ডু হাসপাতালের আইসিইউতে থাকা প্রিয় মানুষটির সাথে তার শেষ মোমেন্টসগুলো কেমন ছিল? ‘অ্যান্ড হেয়ার দ্য জার্নি বিগেইন্স’- এ কোন যাত্রার শুরু তার?

এই মেয়েটির চেহারা চোখের সামনে থেকে দূর করতে পারছি না কেন! কালো চশমা ভেদ করে দুটি করুণ চোখ আমাকে কুঁড়ে কুঁড়ে খাচ্ছে।

তিন বছরের ছোট জীবনে বাবা-মার সাথে হয়তো প্রথমবারের মতো বিমানে চড়ে আনন্দ ভ্রমণে যাচ্ছিল ‘প্রিয়ন্ময়ী’। ফেসবুকে ভ্রমণের আগে সবার কাছে দোয়া চেয়ে তার মায়ের দেওয়া ছবি তোলার সময় একটা টুকটকে লাল সুটকেসের পেছনে দাঁড়িয়ে ছিল ফুটফুটে ওই শিশু। বিধ্বস্ত বিমানের পাশে পড়ে থাকা একটা লাল সুটকেসের ছবি ফেসবুকে ছড়ানো। আচ্ছা এটা কি ‘প্রিয়ন্ময়ী’র বাবা-মার সুটকেস? এই সুটকেসে করে মা আর বাবা কি তাদের বাবুটার জন্য পরীদের মতো জামা এনেছিল? বেড়াতে গিয়ে কতই না ছবি তোলা হবে তাদের পরী বাবুটার! পরীর বাবা যে ফটোগ্রাফার ছিল।

আচ্ছা পরীর বাবা যখন বুঝে ফেলল সবকিছু, চোখের সামনে দেখতে পেল মৃত্যুদূত, তখন নিজের কথা ভুলে কীভাবে জড়িয়ে ধরেছিল তার প্রিয়ন্ময়ীকে? আর পরীর মা? আহারে বেঁচে থাকা! এ কেমন বেঁচে থাকা!

লাল সুটকেসের আড়াল থেকে তাকিয়ে থাকা ‘প্রিয়ন্ময়ী’ পরীর মায়া ভরা চোখ- আমাকে চোখ বুজতে দেয় না। বারবার তার মার প্রোফাইলে গিয়ে আমি পরীর মুখে কথা ফোটার ভিডিও দেখি।

প্লেনে ওঠার আগে পিয়াস রায়ের ফেসবুক পোস্ট ‘টাটা মাই কান্ট্রি ফর ফাইভ ডেজ’। কে জানতো নিজ দেশে তার আর জীবিত ফেরা হবে না!

ধ্বংসস্তুপে পড়ে থাকা ‘রূপা ফেব্রিকস’ এর কাপড়ের ব্যাগের পাশে আধপোড়া ডেভিডসনস মেডিসিন বই। প্রিয়জনকে পাঠানো কোনো উপহারের বাক্স থেকে ছিটকে পড়া নোট যাতে লেখা ‘জানি না তোমার পছন্দ হবে কি হবে না তবুও, গায়ে জড়িয়ো!’ আই ডোন্ট নো হোয়েদার ইউ উইল লাইক ইট ওর নট বাট ওয়ার ইট।’

অস্থির লাগে। আর পারি না। অচেনা মানুষগুলোকে খুব কাছের পরমাত্মীয় মনে হয়।”

‘এমন মৃত্যু আল্লাহ শত্রুকেও না দিক’

এমন প্রত্যাশা পাওয়া গিয়েছে অভিনেত্রী ফারিয়া শাহরিনের ফেসবুক স্ট্যাটাস থেকে। তিনি লিখেছেন, ‘ইউএস বাংলার সব যাত্রীদের জন্য আসুন আমরা দোয়া করি। সবাইকে আল্লাহ রহমত দান করুক। আমীন। যারা নিহত হয়েছেন তাদের বেহেশত নসীব করুক। খুব কষ্ট লাগে এসব নিউজ পড়লে। আর চাই না এমন নিউজ পড়তে হোক। এমন মৃত্যু আল্লাহ শত্রুকেও না দিক।’

‘সারা বাংলাদেশের মানুষের সংকট এটা’

এ দুর্ঘটনাটিকে সারা বাংলাদেশের মানুষের সঙ্কট হিসেবে দেখছেন অভিনেত্রী বন্যা মির্জা। লিখেছেন, ‘দুর্ঘটনা পরিশেষে দুর্ঘটনা, আমাদের উচিত আর দায়িত্ববান হওয়া, মন্তব্য করতে আরও সতর্ক যত্নবান হওয়া। এটি অনেক বড় বিপর্যয় সেটা সামাল দিতে পারা আমাদের জন্য খুব জরুরি। এমন সময় অহেতুক মন্তব্য এবং অহেতুক দোষরোপ করা সহজ আর এই সহজ কাজ সবাই করতে পারি। ইউ-এস বাংলা এয়ারলাইন্স নাকি নেপাল এয়ারপোর্টের সিগন্যালের সমস্যা তা নিশ্চয় খতিয়ে দেখা হবে, আগেই এত কথা বলার কিছু নেই। ভুল তথ্য দেওয়াও অন্যায়। সারা বাংলাদেশের মানুষের সংকট এটা। সেভাবেই দেখা দরকার। আমিও আমার পরিবারের একজনকে হারিয়েছি। আশা করি, বুঝবেন কেমন লাগে।’

‘দুর্ঘটনায় নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি’

এমন প্রত্যাশা করেছেন চিত্রনায়ক শাকিব খান। লিখেছেন, ‘দুর্ঘটনায় নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি। যারা আহত, তাদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি। আল্লাহ্ পাক সবাইকে বিপদমুক্ত রাখুন। এই দোয়া করি, আমীন!’

‘দোয়া করি যাতে পরিবারগুলো যেন নিজেদের সামলে নিতে পারে’

আমেরিকা প্রবাসী অভিনেতা টনি ডায়েস লিখেছেন, ‘পৃথিবীর অন্যতম রিস্কি এয়ারপোর্ট নেপালের কাঠমন্ডু- ল্যান্ডিং আর টেকঅফের জন্য। পাইলট আর টাওয়ারের সাথে ঠিকমতো সমন্বয় খুবই জরুরি এই এয়ারপোর্টে! দোয়া করি যাতে পরিবারগুলো যেন নিজেদের সামলে নিতে পারে।’

অভিনেত্রী মেহজাবীন চৌধুরী ফেসবুকে লিখেন, ‘নেপালের বিমান দুর্ঘটনায় আমরা শোকাহত।’ 

প্রিয় বিনোদন/শান্ত  

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত আয়ুষ্মানের স্ত্রী
শামীমা সীমা ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮
চিকিৎসার জন্য চেন্নাই যাচ্ছেন আফজাল শরীফ
মিঠু হালদার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮
প্রিয় অবসর: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮
প্রিয় ডেস্ক ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮
চুমুর ক্ষেত্রে আলিয়াকে পছন্দ অর্জুনের!
শামীমা সীমা ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
যুগল ছবি তুলে নেটদুনিয়া উত্তপ্ত করলেন সুহানা
শামীমা সীমা ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট
ট্রেন্ডিং