‘অলিম্পিয়ার জন্মের পর আমি প্রায় মরতে বসেছিলাম’

সেপ্টেম্বরের শুরুতে তার কোল আলো করে পৃথিবীতে আসে মেয়ে অলিম্পিয়া ওহানিয়ান।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, সময় - ২১:২৪

মেয়ে অলিম্পিয়ার সঙ্গে সেরেনা উইলিয়ামস। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় খেলতে নেমে গত বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জিতেছিলেন সেরেনা উইলিয়ামস! তবে এরপরই টেনিস থেকে বিরতিতে যান ২৩টি গ্র্যান্ড স্লামজয়ী এই তারকা। সেপ্টেম্বরের শুরুতে তার কোল আলো করে পৃথিবীতে আসে মেয়ে অলিম্পিয়া ওহানিয়ান।

মা হওয়ার পাঁচ মাস পর মাতৃত্বকালীন সেই অভিজ্ঞতা নিয়ে সম্প্রতি সংবাদ সংস্থা সিএনএনে কলাম লিখেছেন বিশ্ব টেনিসের সাবেক এই এক নম্বর তারকা। সেরেনা সেই প্রতিবেদনের শুরুটাই করেছেন এভাবে, ‘মেয়ে অলিম্পিয়ার জন্মের পর আমি প্রায় মরতে বসেছিলাম।’

সেরেনা লিখেছেন, ‘গর্ভাবস্থায় সে রকম কোনো সমস্যা হয়নি আমার। আমার মেয়ে এমার্জেন্সি সি সেকশনে হয়। জন্ম নেওয়ার সময় ওর হৃৎস্পন্দনের গতি হঠাৎ কমে গিয়েছিল তাই। অস্ত্রোপচারটাও ভালো মতোই হয়েছিল। আমি কিছু বোঝার আগেই দেখি অলিম্পিয়া আমার কোলে। এ রকম অসাধারণ অভিজ্ঞতা আমার আগে কখনো হয়নি।’

‘তবে মা হওয়ার পরের ছয় দিন প্রবল অনিশ্চয়তায় কেটেছে। সমস্যাটা শুরু হয় পালমোনারি এম্বোলিজম দিয়ে। এটা এমন একটা অবস্থা, যেখানে ধমনীতে রক্ত জমাট বেঁধে যায়। আগেও আমার এই সমস্যা হয়েছে। তাই ভয়ে ভয়ে থাকতাম আবার না সমস্যাটা দেখা দেয়। তাই যখনই নিঃশ্বাস নিতে সমস্যা হতো, এক সেকেন্ডও সময় নষ্ট না করে নার্সদের সতর্ক করে দিতাম। এর পরই গুরুতর কিছু শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। আমার ভাগ্য ভালো, সেগুলো কাটিয়ে উঠতে পেরেছি।’

মেয়ে অলিম্পিয়াকে কোলে নিয়ে স্ত্রী সেরেনা উইলিয়ামসের খেলা দেখছেন অ্যালেক্সিস ওহানিয়ান। ছবি: সংগৃহীত

মেয়ে অলিম্পিয়াকে কোলে নিয়ে স্ত্রী সেরেনা উইলিয়ামসের খেলা দেখছেন অ্যালেক্সিস ওহানিয়ান। ছবি: সংগৃহীত 

‘যদিও প্রথমে ধমনীতে রক্ত জমাট বেঁধে যাওয়ার জন্য আমার প্রচণ্ড কাশি হচ্ছিল, তাতে অস্ত্রোপচারের সময় আমার শরীরের সেলাই করা অংশটা উন্মুক্ত হয়ে যায়। ফের অস্ত্রোপচার করতে হয়। সেখানে চিকিৎসকরা আবিষ্কার করেন, আমার তলপেটে একটা বড় অংশে রক্ত জমাট বেঁধে আছে। চিকিৎসকরা এর পরে চেষ্টা করতে থাকেন যাতে জমাটবাঁধা রক্তটা আমার ফুসফুসে না পৌঁছায়। শেষ পর্যন্ত যখন আমি হাসপাতাল থেকে বাড়িতে ফিরলাম, তত দিনে মাতৃত্বের ছয় সপ্তাহ আমার বিছানাতেই অসুস্থতা কাটাতে চলে গিয়েছে।’

মেয়ের বয়স চার মাস পূর্ণ হওয়ার আগেই আবারও কোর্টে ফেরেন আমেরিকান এই তারকা। যদিও প্রত্যাবর্তনটা সুখকর হয়নি সেরেনার। মুবাদালা ওয়ার্ল্ড টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপে নিজের প্রত্যাবর্তন ম্যাচে আবুধাবিতে জেলেনা ওস্তাপেঙ্কোর কাছে কাছে হেরে যান যুক্তরাষ্ট্রের এই ‘কৃষ্ণকলি’।

প্রিয় স্পোর্টস/আজহার

আরো পড়ুন
জনপ্রিয়