(প্রিয়.কম) ‘বন্ধু থেকে পরিচয় তোমার সাথে, সেখান থেকে প্রয়াণ পর্যন্ত। কোনো দিন কি ভুলতে পারবো? একসাথে অনেক চলেছি। আজ তুমি কোথায়? ভাল থেকো।’ -কথাগুলো রাজধানীর পল্লবীর আজিজুর রহমান। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বুধবার শুরু হওয়া চার দিনব্যাপী ডিজিটাল মেলায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের স্টলে সদ্য-প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের ছবির নিচে রাখা স্মরণ খাতায় এসব লেখেন তিনি।

৭ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার ঢাকা উত্তরের স্টলে গিয়ে দেখা যায়, স্থির দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছেন আনিসুল হক। তাকিয়ে আছেন তো আছেনই। তার নয়নে নয়ন মিলিয়ে বিনয়ের সঙ্গে সবাই চোখ সরিয়ে নিচ্ছেন। অনেকেই নিচে তাকাচ্ছেন, লেখছেন সদ্য-প্রয়াত আনিসুল হককে নিয়ে মনের গভীরে জমে থাকা না বলা কথা।

যশোর থেকে আসা মো. জাহিদ হাসান দোলন লেখেন, ‌'সত্য কথা সবাই বলতে চাই, কিন্তু সবার সে সাহস থাকে না। শুধু যাদের থাকে তারাই হয় মহান নেতা; তুমি তেমনই।'

সিরাজগঞ্জ থেকে আসা মো. শাহজাহান লেখেন, 'জাগ্রত তুমি ছিলে, মানুষেক জাগ্রত করেছো।' ঢাকার মুহাম্মদপুরের ইমরান এইচ তুষার লেখেন, 'চলে গেছো সবাইকে ছেড়ে, রয়ে গেছো আমাদের অন্তরে- উত্তরের রাজা হয়ে...।'

'স্যার, কেন জেন আপনাকে ভাল লাগত। আপনার ডেফোডিল ইউনিভার্সিটিতে দেওয়া বক্তৃতায় আমার চোখে পানি আসে। ভাল থাকবেন, আল্লাহ বেহেস্ত নসিব করবে,' লেখেন পাবনার রিয়াদ হোসেন।

কবি রফিকুল ইসলামের কবিতা তুলে ধরে গাজীপুরের প্রিন্স লেখেন, 'অগত্যা কেউ তো পারেনি রাখতে ধরে তারে/ সত্যের এই চরাচরে/ রথ তার ছুটে চলে আকাশের নীলাচলে।' 

'আপনাকে খুঁজি, খুঁজব সব সময় সব সুন্দরের মাঝে, সব এলোমেলোর মাঝে। যেখানে আছেন শান্তিতে থাকুন,' নাজমুন নাহারের স্মরণ।

রাজধানীর উত্তরার ইফাত জাহান লোপা লেখেন, 'আপনার মতো হতে পারব কিনা জানি না, তবে আপনার আদর্শ জীবনের অংশ হিসাবে থাকবে।'

'আপনার জন্য দোয়া রইল। আমরা চাই আপনার স্বপ্ন পরবর্তী কেউ পূরণ করুক,' লেখেন আগারগাঁওয়ের মারিয়া আক্তার কলি। মিরপুরের আরেকজন লেখেন, 'আপনাকে হারিয়ে ঢাকা যা হারিয়েছে, তা পূরণে কেটে যাবে অনেক বছর।'