ছবি: বিবিসি

‘নিখোঁজ সাবমেরিনের ক্রুদের জীবিত উদ্ধারের আশা নেই’

নিখোঁজ থেকে গেলেন ৪৪ জন ক্রু।

ইতি আফরোজ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০১ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৫:০৫ আপডেট: ১৯ আগস্ট ২০১৮, ১৯:১৬
প্রকাশিত: ০১ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৫:০৫ আপডেট: ১৯ আগস্ট ২০১৮, ১৯:১৬


ছবি: বিবিসি

(প্রিয়.কম) দুই সপ্তাহ আগে দক্ষিণ আটলান্টিক মহাসাগরে নিখোঁজ হয়ে যাওয়া আর্জেন্টিনার সাবমেরিনটিতে থাকা ৪৪ ক্রুদের জীবিত উদ্ধারের আশা আর নেই বলে জানিয়েছেন আর্জেন্টিনার নৌবাহিনী।

৩০ নভেম্বর বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির নৌবাহিনীর মুখপাত্র এনরিক বালবি জানান, নিখোঁজ হওয়া সাবমেরিনটি উদ্ধারের সর্বোচ্চ চেষ্টার পরও সফলতা আসেনি। এ জন্য নিখোঁজ সাবমেরিন অনুসন্ধান কার্যক্রমের সমাপ্তি ঘোষণা করেছে আর্জেন্টিনার নৌবাহিনী। 

পানিতে আটকে পড়া একটি সাবমেরিনে যত সময় পর্যন্ত ক্রুদের বেঁচে থাকা সম্ভব, তার চেয়ে দ্বিগুণ সময় অনুসন্ধান করে ব্যর্থ হওয়ার পর নৌবাহিনীর পক্ষ থেকে এ মন্তব্য এলো। 

এছাড়া শুরুতে বৈদ্যুতিক সমস্যার কারণে যোগাযোগ বিচ্ছিন হয়ে যাওয়ার কথা বলা হলেও নৌবাহিনী জানায়, সাবমেরিনটির কাছাকাছি কোথাও কোন ধরণের বিস্ফোরণ হয়েছে। শুরুতে নিখোঁজ ক্রুদের বেঁচে থাকার আশা প্রকাশ করা হলেও বিস্ফোরণের ঘটনা জানার সেই আশা আর নেই। সেই সাথে নিখোঁজ থেকে গেলেন ৪৪ জন ক্রুও। এতদিন পর্যন্ত উদ্ধার না হওয়ায় তাদের বেঁচে থাকার আশা ছেড়ে দিয়েছেন তাদের আত্মীয় স্বজনও। 

নিখোঁজ ওই সাবমেরিনটির সন্ধান পেতে যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, যুক্তরাজ্যসহ প্রায় এক ডজন দেশের সহায়তা দল আর্জেন্টিনা কর্তৃপক্ষের সাথে অভিযান চালায়।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ১৫ নভেম্বর গন্তব্যস্থল মার দেল প্লাতায় যাওয়ার সময় পাতাগোনিয়া উপকূল থেকে ৪৩২ কিলোমিটার দূরে দক্ষিণ আর্জেন্টিনা সাগরে অবস্থানকালে হঠাৎ করেই সাবমেরিনটির সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। সেখান থেকে শেষবার সঙ্কেত পাঠিয়েছিল ডুবোজাহাজ এআরএ সান হুয়ান। 

এ সময় ডুবোজাহাটিতে মোট ৪৪ জন ক্রু ছিলেন। পরে সাবমেরিনে থাকা স্যাটেলাইট ফোনের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণক্ষের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। ওই সংকেতের সূত্র ধরেই এতদিন উদ্ধার অভিযান চালানো হয়েছে।

সূত্র: বিবিসি
প্রিয় সংবাদ/

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...