(প্রিয়.কম) ‘ঢাকা অ্যাটাক’ নিয়ে কিছুদিন আগে মধ্যপ্রাচ্য ও ইউরোপের কয়েকটি দেশে তিন সপ্তাহ ঘুরে এসেছেন, জনপ্রিয় নায়ক আরিফিন শুভ। তখন সেখানকার বাংলা সিনেমার দর্শকদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলেছেন তিনি । তাদের সিনেমা বোধ সম্পর্কে খুঁটিনাটি বিষয়গুলো জেনেছেন। এই সিনেমা মুক্তির পর প্রযোজক, পরিচালক ও প্রদর্শকদের কাছে শুভর আলাদা একটা কদর তৈরি হয়েছে। অনেকেই তাকে নিয়ে সিনেমা নির্মাণ করতে চাচ্ছেন। প্রতিনিয়তই নতুন সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব আসছে তার কাছে।

কিন্তু শুভর কথা হলো বুঝে সিনেমা হাতে নিবেন তিনি। একটু সচেতনভাবেই সামনের দিনগুলোর জন্য কাজের পরিধি নির্ধারণ করতে চান। আরিফিন শুভর ভাষায় বলতে গেলে, ‘হুজুগে গা ভাষাতে চান না।’ গত ১০ ডিসেম্বর বিকেলে প্রিয়.কমের সঙ্গে কথা হয় এ নায়কের। তিনি জানান, ইউরোপের কয়েকটি দেশ ভ্রমণ শেষে দেশে ফেরার চারদিনের মাথায় চলে যান ভারতে। সেখান থেকে দেশে ফিরে তারপর চলে যান খুলনা। আবার সেখান থেকে যেদিন আরিফিন শুভর সঙ্গে এ প্রতিবেদকের কথা হয় সেদিন দুপুরেই ঢাকায় ফিরেছেন।

এদিকে বেশ কয়েক দিন ধরেই জনপ্রিয় এ নায়কের মায়ের শরীরটা ভাল যাচ্ছে না। আজ ভালো তো কাল খারাপ। এজন্য কিছুদিন পরপরই চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হয়। যার কারণে তার মনটাও ভাল থাকে না। মাকে নিয়ে রাজ্যের চিন্তা মাথায় ভর করে থাকে তার। এরপর ভিন্ন কিছু প্রসঙ্গে কথা হওয়ার পর কাজের প্রসঙ্গে আলাপ শুরু হয়। তিনি জানান, বড় একটি প্রজেক্টে কাজের বিষয়ে কথা হচ্ছে। কিন্তু এখনও খবর প্রকাশ করার মতো কিছু হয়নি। তাই এ বিষয়ে তিনি আর বিস্তারিত জানাননি।

আরিফিন শুভ বলেন, ‘প্রায় ১৫ দিনের মতো দেশে ছিলাম না। যার কারণে নতুন সিনেমায় অভিনয়ের ব্যাপারে কারোর সঙ্গে বসতেও পারিনি। ঢাকায় আসার পর চার দিন দেশে ছিলাম। এরপর আবার ঢাকার বাইরে চলে গেলাম। আমি যে বসে কথা বলব সে ফুসরত হয়ে উঠেনি। এখন একটু নিজেকে গুছিয়ে নিচ্ছি। এরপর বলতে পারবো সামনে আমার কাজগুলো কী হবে। দেখা যাক কী হয়। আবার আমি তো হুটহাট করে কিছু করতে পারি না। এমনটা তো আমার দ্বারা কখনো হয়ে উঠেনি।’

২০১০ সালে ‘জাগো’ সিনেমা দিয়ে বড় পর্দায় নাম লেখান আরিফিন শুভ। তার ব্লকবাস্টার হিট সিনেমা ‘ঢাকা অ্যাটাক’। তবে ‘অগ্নি’ ও ‘ছুঁয়ে দিলে মন’ সিনেমার জন্য আলোচনায় আসেন এই নায়ক। একটি সিনেমা বিগ হিট হওয়ার পরে অনেকগুলো ছবি একসাথে করে ফেলবেন, তা শুভ ভাবতে পারেন না। কারণ তিনি সংখ্যার চেয়ে মানে বিশ্বাসী। আর সেটি সিনেমায় ক্যারিয়ারের শুরুর সময় থেকেই। তিনি বলেন, ‘আমি হুজুগে পা দিতে চাই না। আমি টেষ্ট ম্যাচে বিশ্বাসী, ওয়ান ডে'তে বিশ্বাসী না।’

এদিকে আগামী বছর ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে মুক্তি পাবে আরিফিন শুভর নতুন ছবি ‘ভালো থেকো’। ডিসেম্বর মাসে বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্র মুক্তি পাচ্ছে। তাছাড়া ডিসেম্বরের শীতে ব্যবসা হঠাৎ কমে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তাই সবকিছু মিলিয়ে বড় ক্যানভাসের ছবি ‘ভালো থেকো’ এখন মুক্তি না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জাকির হোসেন রাজু সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন। আর নতুন বছরের শুরুতে মুক্তি পাবে চিত্রনায়ক আলমগীর পরিচালিত ‘একটি সিনেমার গল্প’। এতে তার সহশিল্পী ভারতের ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত।

প্রিয় বিনোদন/গোরা