প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। ফাইল ছবি 

(প্রিয়.কম) প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, স্বাধীনতার পরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু যেটার স্বপ্ন দেখেছিলেন- একটা কল্যাণকর রাষ্ট্র করার জন্যে। আমরা ব্রিটিশ আমলে ব্রিটিশদের পরাধীন ছিলাম, পাকিস্তান আমলে পাকিস্তানিদের পরাধীন ছিলাম। আমাদের কোনো স্বাধীনতা ছিল না। অর্থনৈতিক স্বাধীনতা, রাজনৈতিক স্বাধীনতা, কোনোটাই ছিল না।

তিনি বলেন, এটার থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্যই আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রাম এবং এই স্বাধীনতা। জনগণকে এই স্বাধীনতা ভোগ করতে হলে একটা কল্যাণকর রাষ্ট্রের দরকার। এই যে উন্নতি, এই উন্নতিটা কোনো মতেই স্বীকৃতি পাবে না, দেশের ন্যায় বিচার যদি প্রতিষ্ঠা না হয়।

১৯ মে শুক্রবার বিকালে চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলায় আদালত পরিদর্শন ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

মৌলিক প্রয়োজন পূরণ হলে তার অধিকারের নিশ্চয়তা নিয়ে চিন্তা করে মন্তব্য করে এস কে সিনহা বলেন, বেসিক তিনটা জিনিস যখন পূরণ হয়ে যায়, এরপরই মানুষ চিন্তা করে আমার অধিকারের নিশ্চয়তা থাকল কি না।

আমার জান-মাল-সম্পদের, চার নম্বর যেটা অধিকার। এটা আমাদের সংবিধানেরই একটা মৌলিক অধিকার। এই অধিকার নিশ্চিত করতে হলে আইনের শাসন দরকার।

এর আগে সকালে বাঁশখালী ঋষিধামে ‘শ্রী গুরু মন্দির’ উদ্বোধন করেন প্রধান বিচারপতি।

ওই উদ্বোধনীতে তিনি বলেন, কিছু স্বার্থানেষী মহল দেশের স্বাধীনতাকে ভুলুণ্ঠিত করার জন্যে, জাতির জনকের স্বপ্নকে ভুলুণ্ঠিত করার জন্যে উনাকে স্বপরিবারে মেরে শুধু ক্ষান্ত হয়নি, দেশে সাম্প্রদায়িক রাজনীতি চালু করেছে। আজকে কিন্তু সেই দিন নেই।

প্রিয় সংবাদ/ইরফান/কামরুল