(প্রিয়.কম) দু'টি টেস্ট খেলতে আগামী ১৮ আগস্ট বাংলাদেশে পা রাখবে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। সূচি অনুযায়ী ২২ ও ২৩ আগস্ট ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচটি। হাতে সময় নেই খবু বেশি। কিন্তু টানা দু'দিনের টানা বৃষ্টিতে আবারও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কপালে চিন্তার ভাঁজ। কেননা টানা বৃষ্টির ফলে ফতুল্লা ক্রিকেট স্টেডিয়াম হয়ে পড়বে পুরো খেলার অনুপোযোগী।

যদিও বিকল্প ভেন্যু হিসেবে বিসিবির ভাবনায় আছে সাভারের বিকেএসপি ও সিলেট। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া দলের বিকেএসপিতে না যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। ঢাকায় হোটেল র‌্যাডিসনে উঠবে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। সেখান থেকে বিকেএসপির দূরত্ব ৩৬ কিলোমিটার। স্টেডিয়ামে যেতে কমপক্ষে দেড় ঘন্টা সময় লাগবে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল এক ঘন্টার বেশি ভ্রমণ করবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে। পাশাপাশি আসা-যাওয়ার পথে নিরাপত্তা ইস্যুটিও জড়িত। এ কারণে বিকেএসপিতেও প্রস্তুতি ম্যাচ হওয়ার সম্ভাবনা কম।

সব মিলিয়ে এখনও প্রস্তুতি ম্যাচ নিয়ে ধোঁয়াশায় বিসিবি। অস্ট্রেলিয়ার প্রতিনিধি দল ১৫ আগস্ট ঢাকায় পৌঁছাবে। তাদের সঙ্গে আলোচনা করেই প্রস্তুতি ম্যাচের ভেন্যু ঠিক করতে চায় বিসিবি। এ প্রসঙ্গে শনিবার বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেছেন, ‘ফতুল্লায় না হলে বিকেএসপি প্রস্তুত আছে। সেখানে না হলে আমরা সিলেটেও ম্যাচ আয়োজন করতে পারি। তবে সিলেট স্টেডিয়াম সম্পর্কে তারা অবগত নয়। অস্ট্রেলিয়ার প্রতিনিধি দল ১৫ আগস্ট আসছে। ওদের সঙ্গে আলোচনার পর আমরা সব কিছু চূড়ান্ত করব।’

জানা গেছে, অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল মিরপুরে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে আগ্রহী। কিন্তু টেস্ট শুরুর আগে ম্যাচ ভেন্যুতে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার প্রচলিত কোনো নিয়ম নেই। বিসিবিঅ মিরপুরে খেলাতে রাজি নয়। এ প্রসঙ্গে জালাল ইউনুস বলেন, ‘সিরিজ শুরু হতে কিছুদিন বাকি। মিরপুর আমাদের হোম গ্রাউন্ড। এখানে প্রথম টেস্ট অনুষ্ঠিত হবে। আমাদেরকে উইকেটও বানাতে হবে। প্রস্তুতি ম্যাচ হলে উইকেট বানাতে আরও সময় প্রয়োজন হবে। সেজন্য আমরা মিরপুর বাদে অন্য স্টেডিয়াম খুঁজছি।’

ফতুল্লার বিকল্প হিসেবে বিকেএসপি ও সিলেটের পাশপাশি উঠে এসেছে ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশের (ইউল্যাব) ক্রিকেট গ্রাউন্ডের নামও। ইতিমধ্যেই ইউল্যাব ক্রিকেট গ্রাউন্ড পরিদর্শন করেছে বিসিবির একটি প্রতিনিধি দল। প্রয়োজনে ইউল্যাবের এই মাঠ অস্ট্রেলিয়ার নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দলের সামনে উপস্থাপন করা হবে বলেও জানালেন জালাল ইউনুস, ‘আমরা খেলার ব্যবস্থা অবশ্যই করবো। এই অপশনগুলোও যদি তারা পছন্দ না করে তাহলে অন্য অপশন আমাদের হাতে আছে।’

প্রিয় স্পোর্টস/