বাংলাদেশ জাতীয় দলের অনুশীলন। ছবি: প্রিয়.কম

মাশরাফি-সাকিবদের ছুটির পক্ষে টিম ম্যানেজমেন্ট

শ্রীলঙ্কায় নিদাহাস ট্রফি শেষে মে মাস পর্যন্ত কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ নেই বাংলাদেশের।

সামিউল ইসলাম শোভন
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২২ মার্চ ২০১৮, ১৯:৩৬
আপডেট: ১৮ আগস্ট ২০১৮, ০৯:১৬


বাংলাদেশ জাতীয় দলের অনুশীলন। ছবি: প্রিয়.কম

(প্রিয়.কম) জানুয়ারি থেকে টানা খেলার মধ্যে আছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। ঘরোয়াতেও চলছে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ। শ্রীলঙ্কায় নিদাহাস ট্রফি শেষে মে মাস পর্যন্ত কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ নেই বাংলাদেশের। দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন ব্যাপারটিকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন। আন্তর্জাতিক ম্যাচ না থাকার এ সময়টিতে ক্রিকেটারদের ছুটি দেওয়ার পক্ষে তিনি।

 আগামী জুন মাসে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ভারতের দেরাদুনে ওয়ানডে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। এরপর উইন্ডিজ সফ, এশিয়া কাপ ও অস্ট্রেলিয়া সফর। সেখান থেকে ফিরে ঘরের মাঠে বিপিএল। আসবে উইন্ডিজ ও জিম্বাবুয়ে দল। টানা খেলার মধ্যে থাকবে বাংলাদেশ। তার আগে এপ্রিল-মে দুই মাসের ‘গ্যাপে’ আপত্তি নেই বাংলাদেশের।

২২ মার্চ, বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সুজন এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমি মনে করি আমাদের একটা ব্রেক খুব দরকার হয়ে গেছে। যদি দেখেন এপ্রিল–মে গ্যাপ, খেলা নাই। আরও একটা টুর্নামেন্ট থাকলে ভালো হতো কিনা আফগানিস্তানের পরপরই আমরা উইন্ডিজ যাব। এসে এশিয়া কাপ তারপর অস্ট্রেলিয়া। কোন গ্যাপ নাই কিন্তু। তারপরে বিপিএল। সেটা শেষে আমাদের এখানে উইন্ডিজ ও জিম্বাবুয়ে আসবে। কিছু প্লেয়ার ইনজুরড হয়ে যেতে পারে। বাংলাদেশ কিন্তু এত ঘন ঘন ম্যাচ খেলে নাই। সুতরাং ইনজুরি আর অফ ফর্মে যাওয়ার চান্সও থাকবে। অনেকগুলো প্লেয়ারকে স্ট্যান্ডবাই রাখতে হবে। দুইটা টিম রেডি রাখতে হবে। কারণ ইনজুরি একটা ফ্যাক্ট হয়ে দাঁড়াতে পারে।’

চলমান প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের পর বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে (বিসিএল) খেলবে দেশের ক্রিকেটাররা। অর্থাৎ, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ছুটি পেলেও ঘরোয়া ক্রিকেটে সেই সুযোগ কম। সুজনের মতে, এমন অবস্থায় দলের ক্রিকেটারদের বিশ্রামের প্রয়োজন আছে। তাই বলে সেটা শুয়ে বসে কাটানোর মতো নয়। নিতে হবে ‘এক্টিভ রেস্ট’।

সুজন বলেন, ‘আমরা চাই তারা বিশ্রাম নিক। কিন্তু সেটা এক্টিভ রেস্ট। ন্যাশনাল টিমের প্লেয়ার তো ওই রকম নাই যে শুয়ে বসে কাটাবে। কোন দিন দৌঁড়াবে, কোন দিন জিমে আসবে।’

প্রিয় খেলা/কামরুল 

 

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গে ইউনিসেফ
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
খরুচে রুবেলের পাশে মাশরাফি
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
‘অপুর ফ্লাডলাইটে বল দেখতে সমস্যা হচ্ছিল’
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট
খরুচে রুবেলের পাশে মাশরাফি
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
‘অপুর ফ্লাডলাইটে বল দেখতে সমস্যা হচ্ছিল’
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
যে কারণে শেষ ওভারে মাহমুদউল্লাহ
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
মধুর হলো না অনেক উপলক্ষের ম্যাচ
শান্ত মাহমুদ ১১ ডিসেম্বর ২০১৮
বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গে ইউনিসেফ
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
খরুচে রুবেলের পাশে মাশরাফি
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
‘অপুর ফ্লাডলাইটে বল দেখতে সমস্যা হচ্ছিল’
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
যে কারণে শেষ ওভারে মাহমুদউল্লাহ
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
মধুর হলো না অনেক উপলক্ষের ম্যাচ
শান্ত মাহমুদ ১১ ডিসেম্বর ২০১৮