ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। ছবি: এনডিটিভি

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন বিপ্লব দেব

শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

কে এন দেয়া
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০৯ মার্চ ২০১৮, ১৪:৪৪ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০
প্রকাশিত: ০৯ মার্চ ২০১৮, ১৪:৪৪ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০


ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। ছবি: এনডিটিভি

(প্রিয়.কম) ভারতের উত্তর-পূর্বের রাজ্য ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণ করেছেন বিপ্লব কুমার দেব। ৯ মার্চ শুক্রবার জমকালো এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে তিনি শপথ নেন।

ত্রিপুরার নতুন সরকারে জ্যেষ্ঠ বিজেপি নেতা জিষ্ণু দেববর্মণ সহকারী মুখ্যমন্ত্রীর ভূমিকা পালন করবেন। তিনিও শপথ নিয়েছেন।

সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি , বিজেপির কেন্দ্রীয় সভাপতি অমিত শাহসহ শীর্ষ নেতারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

২০ বছর ধরে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন সিপিএম নেতা মানিক সরকার। এই বছর বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে তার ‘দুর্গ’ গুঁড়িয়ে দিয়েছে বিজেপি।

বিপ্লব দেব বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত। ১৯৭১ সালের তার বাবা-মা হিরুধন দেব ও ও মিনা রানী বাংলাদেশের চাঁদপুর থেকে ত্রিপুরায় যান। সেখানেই তারা স্থায়ী হন। বিপ্লবেরও জন্ম সেখানে।

ত্রিপুরার দায়িত্ব নেবার আগে এনডিটিভির সাথে কথা বলেন। তিনি নিজেকে জনতার নেতা বলে দাবি করেন। তিনি বলেন, ‘জনগণই আমার অনুপ্রেরণা, তারাই আমার ডাল-রুটি।’ 

বিপ্লব দেব শপথ গ্রহণের আগে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফোন করেছেন। ফোনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সার্বিক সহযোগিত কামনা করেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বিপ্লব কুমার দেবের পাশে থাকার আশ্বাস দেন।

১৯৬৯ সালে ত্রিপুরার এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম নেন বিপ্লব দেব। তিনি ১৯৯৯ সালে কলেজের পড়াশোনা শেষ করবার পরই ডানপন্থী সংগঠন আরএসএস (ন্যাশনাল ভলান্টিয়ার অর্গানাইজেশন) এর স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে যোগ দেন। এখানে ১৬ বছর কাজ করেন তিনি। দুই বছর আগে তিনি ত্রিপুরা ফিরে এসে ত্রিপুরা বিজেপির হাল ধরেন। বিজেপির মতে, গত বছর মানিক সরকারের চাইতেও বেশি জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন তিনি।

ত্রিপুরায় বিজেপির এই জয়কে অপ্রত্যাশিত বললেও বিপ্লব দেবের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার।

সুত্র: NDTV

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...