ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব দাবি করেছেন, রবীন্দ্রনাথ নোবেল পুরস্কার ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। ছবি: সংগৃহীত

নোবেল পুরস্কার ফিরিয়ে দিয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ: ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী

চলতি বছরের এপ্রিলে এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেছিলেন, ‘ইন্টারনেট নতুন কিছু নয়, মহাভারতের যুগেও ইন্টারনেট ছিল।’

কে এন দেয়া
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১১ মে ২০১৮, ১৫:৩০ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২১:০০
প্রকাশিত: ১১ মে ২০১৮, ১৫:৩০ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২১:০০


ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব দাবি করেছেন, রবীন্দ্রনাথ নোবেল পুরস্কার ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ১৯১৯ সালে জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে ব্রিটিশ সরকারের দেওয়া নাইটহুড বর্জন করেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। কিন্তু ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব দাবি করেছেন, রবীন্দ্রনাথ নোবেল পুরস্কার ফিরিয়ে দিয়েছিলেন।

১১ মে, শুক্রবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে বিপ্লব দেব এ মন্তব্য করেছেন বলে উল্লেখ করা হয়। 

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে ইতোমধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে বিপ্লবদের এই মন্তব্যের ভিডিও ফুটেজ। ওই ভিডিওতে দেখা যায়, বিপ্লব দেব বলছেন, ‘ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে নোবেল প্রাইজ ফিরিয়ে দিয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।’ রবীন্দ্রনাথের জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে উদয়পুরের এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর গীতাঞ্জলির জন্য নোবেল পুরস্কার পান ১৯১৩ সালে। কিন্তু তিনি এ পুরস্কার ফিরিয়ে দেননি। অবশ্য ১৯১৯ সালে ব্রিটিশ সরকারের দেওয়া নাইটহুড খেতাব বর্জন করেছিলেন তিনি।

বিতর্কিত মন্তব্য করে সমালোচিত হওয়ার ঘটনা বিপ্লব দেবের জন্য নতুন কিছু নয়। চলতি বছরের এপ্রিলে এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেছিলেন, ‘ইন্টারনেট নতুন কিছু নয়, মহাভারতের যুগেও ইন্টারনেট ছিল। সঞ্জয় কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধের সময় মাঠে না গিয়েও যুদ্ধের সম্পূর্ণ বিবরণ ইন্টারনেট-প্রযুক্তির মাধ্যমে অন্ধ ধৃতরাষ্ট্রকে শুনিয়েছিলেন। এর অর্থ হলো- তখনো আমাদের দেশে ইন্টারনেট-প্রযুক্তি ছিল।’

বিপ্লব দেব আরও বলেন, ‘ইন্টারনেট প্রযুক্তি হাজার বছরেরও বেশি আগে আবিষ্কার হয়েছিল এবং ন্যাশনাল ইনফরম্যাটিক্স সেন্টার (এনআইসি) এটি ব্যবহার করছিল।’

শুধু তাই নয়, বিপ্লব দেব দাবি করেন, ‘মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারদের সরকারি চাকরি করা উচিত নয়, শুধু সিভিল এঞ্জিনিয়ারদেরই সরকারি চাকরি করা উচিত।’

কয়েক সপ্তাহ আগে ত্রিপুরার এ মুখ্যমন্ত্রী উপদেশ দেন, স্নাতক পাশ করে সরকারি চাকরি করা উচিত নয় বরং পানের দোকান দেওয়া উচিত। তিনি আরও উপদেশ দেন, যুবকদের উচিত গবাদিপশু লালনপালন করা।

প্রিয় জটিল/শান্ত