বিকাশ। ফাইল ছবি

বিকাশ অ্যাপের ক্যাশব্যাক জটিলতা

ভুক্তভোগীরা বলছেন, চালাকির আশ্রয় নিয়ে এভাবে গ্রাহকদের আকৃষ্ট করার বিষয়টি অনৈতিক।

ইতি আফরোজ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১১ জুন ২০১৮, ১০:৩০ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২১:৪৮


বিকাশ। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) গ্রাহকদের লেনদেন সহজ, দ্রুত ও নিরাপদ করতে মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাকাউন্টের পাশাপাশি লেনদেনে ‘অ্যাপ’ চালু করেছে বিকাশ। নতুন এ অ্যাপ ব্যবহারে গ্রাহকদের আকৃষ্ট করতে কেনাকাটায় বড় অফারও দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। তবে এসব অফারের প্রলোভনে আকৃষ্ট হয়ে কেনাকাটা করে গ্রাহকরা প্রতারিত হচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অফারের বিজ্ঞাপনে বলা হচ্ছে, বিকাশ অ্যাপে শপিংয়ের বিল পরিশোধে মিলবে ২০ শতাংশ ক্যাশব্যাক। কিন্তু পরে দেখা যাচ্ছে শর্তের জালে আটকে রয়েছে ওইসব অফার। 

ভুক্তভোগীরা বলছেন, চালাকির আশ্রয় নিয়ে এভাবে গ্রাহকদের আকৃষ্ট করার বিষয়টি অনৈতিক। তবে বিকাশ কর্তৃপক্ষ দাবি, এখানে গ্রাহকদের কোনো ধরনের প্রতারণার সুযোগ নেই।

১১ জুন, সোমবার সংবাদমাধ্যম শেয়ার বিজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সম্প্রতি রাজধানীর একটি শপিং মল থেকে রিয়াজুল হক নামের একজন ব্যাংক কর্মকর্তা কেনাকাটা করেছেন। বিকাশ অ্যাপে পেমেন্ট করেও, প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ২০ শতাংশ ক্যাশব্যাক পাননি বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে রিয়াজুল হক তার ফেসবুক পেজে লিখেছেন, ‘এক হাজার ৮০০ টাকার একটা শার্ট কিনলাম। পেমেন্ট করলাম বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে। ২০ শতাংশ ক্যাশ ব্যাকের কথা বলা আছে। ৩৬০ টাকা ক্যাশ ব্যাক পাওয়ার কথা। অথচ ১৪ টাকা ৮০ পয়সা ফেরত এসেছে। ওই শোরুমের ম্যানেজার বলেছেন, মাঝেমধ্যে এ রকম হচ্ছে। প্রায় তিন ঘণ্টা হতে চলল, বিকাশ থেকে কোনো সংশোধনী মেসেজ আসেনি। যদি এগুলো ইচ্ছা করে করা হয়, তবে সেটা তো এক ধরনের প্রতারণা। এই ধরনের প্রতারিত হওয়ার সংখ্যা তাহলে কত?’

এ বিষয়ে রিয়াজুল হক বলেন, ‘আমি নিয়মিতই ক্যাশ ব্যাক অফার পেতে বিকাশ অ্যাপে কেনাকাটা করি। কিন্তু এই অ্যাপের কোনো সীমা কোনো বিজ্ঞাপনে দেওয়া নেই। বিক্রয়কর্মী আমাকে জানিয়েছেন এক দিনে এক হাজার ৯০০ টাকার ক্যাশ ব্যাক পাওয়া যাবে। কিন্তু আমি তো তার চেয়ে কম কেনাকাটা করেছি সেদিন।’

তবে বিকাশের পক্ষ থেকে বলা হয়, গ্রাহকদের বিস্তারিত জানানোর জন্য সব ধরনের তথ্য দেওয়া আছে। দোকানে দোকানে লিফলেট রাখা আছে। এ ছাড়া বিজ্ঞাপনের সঙ্গে তারকাচিহ্ন দিয়ে ছোট আকারে ‘শর্ত প্রযোজ্য’ লেখা আছে।

এদিকে রাজধানীর বসুন্ধরা শপিং কমপ্লেক্স ঘুরে দেখা গেছে, বিভিন্ন বড় বড় ব্র্যান্ডের শো-রুমে বিকাশে পেমেন্টের ব্যবস্থা রয়েছে। তবে এসব অফার প্রসঙ্গে বিভিন্ন শোরুমের বিক্রেতারা জানিয়েছেন ভিন্ন ভিন্ন তথ্য। বিক্রেতারা কেউ কেউ বলেছেন এক দিনে সর্বাধিক ৩০০ টাকা ক্যাশ ব্যাক আসে। আবার কেউ বলেছেন, এক দিনে সর্বাধিক এক হাজার ৯০০ টাকা ক্যাশ ব্যাক পাবেন গ্রাহক। তবে অধিকাংশ বিক্রেতাই শুধু সাধারণ অফারটি জানিয়ে বলছেন, পেমেন্ট করলেই ২০ শতাংশ ক্যাশব্যাক পাবেন।

বিভিন্ন বিপণিবিতানে আসা গ্রাহকরা জানান, প্রায় সব গ্রাহকই জানেন যে বিকাশ অ্যাপে কেনাকাটায় ২০ শতাংশ ক্যাশব্যাক দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এক হাজার ৮০০ টাকার ক্যাশব্যাকের সীমার শর্তটি কারোরই জানা নেই।

বিকাশের করপোরেট কমিউনিকেশনস প্রধান শামসুদ্দিন হায়দার ডালিম জানান, অ্যাপের মাধ্যমে কেনাকাটাকে বেশি উৎসাহিত করা হচ্ছে। এ জন্য সাধারণ বিকাশ অ্যাকাউন্টের চেয়ে অ্যাপের কেনাকাটায় বেশি অফার দেওয়া হচ্ছে।

সাধারণ বিকাশ অ্যাকাউন্টে কেনাকাটার পেমেন্ট করলে একজন গ্রাহক ঈদের আগে সর্বোচ্চ ৮৫০ টাকা ক্যাশব্যাক পাবেন। আর অ্যাপের মাধ্যমে পেমেন্টে সর্বোচ্চ এক হাজার ৮০০ টাকা পর্যন্ত ক্যাশ ব্যাক পাবেন গ্রাহক। মোট মূল্যের ২০ শতাংশ করে ক্যাশ ব্যাক আসবে। এক হাজার ৮০০ টাকার সীমা অতিক্রম করলে তিনি আর পাবেন না। বিজ্ঞাপনে সব কথা বিস্তারিত লেখা সম্ভব না হওয়ায় এগুলো আলাদাভাবে শর্তের মধ্যে রাখা হয়েছে বলে জানান শামসুদ্দিন হায়দার।

প্রিয় সংবাদ/গোরা 

পাঠকের মন্তব্য(১)

মন্তব্য করতে করুন


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

সব ক্ষেত্রে 20% ক্যাশ ব্যাক অফার দেয়া হয়নি. অনেক জায়গায় 10-12% পর্যন্ত ক্যাশ ব্যাক অফার দেয়া হয়েছে. আমি যেসব জায়গায় পেমেন্ট করেছি কোথাও কোনো সমস্যা পাইনি. ঠিক মতোই ক্যাশ ব্যাক এসেছে. তাছাড়া আনলিমিটেড ক্যাশ ব্যাক এর অফার দেয়া হয়নি. তেমনটা হলে মানুষ লাখ লাখ টাকা পেমেন্ট করে ক্যাশ ব্যাক নিয়ে নিবে.

আরো পড়ুন
২০ বছরে ঋণখেলাপি বেড়েছে শত ভাগেরও বেশি
প্রিয় ডেস্ক ১৯ অক্টোবর ২০১৮
ঢাকা ও রিয়াদের মধ্যে ৫টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর
আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন ১৮ অক্টোবর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট
নয়নীকে হোটেলকক্ষে ডেকেছিলেন বিকাশ
নয়নীকে হোটেলকক্ষে ডেকেছিলেন বিকাশ
https://www.prothomalo.com/ - ১ week, ৩ দিন আগে
গণতন্ত্রের বিকাশ কীভাবে নিশ্চিত হয়
গণতন্ত্রের বিকাশ কীভাবে নিশ্চিত হয়
https://www.prothomalo.com/ - ৩ সপ্তাহ, ৫ দিন আগে