(বাসস) সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপির ক্ষমতায় যাওয়ার রঙ্গিন খোয়াব কর্পূরের মতো দূর হয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, 'বিদেশিরা যেমন বিএনপিকে ক্ষমতায় বসিয়ে দেয়নি তেমনি আদালতও তাদের ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে না।'

১২ আগস্ট শনিবার দুপুরে রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ ছাত্রলীগের যৌথ উদ্যোগে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ছাত্র সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন ও অর্জনকে যারা সহ্য করতে পারছে না তারা আদালতের একটি রায়কে কেন্দ্র করে এই সাফল্যকে নস্যাত করার জন্য ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে।'

তিনি এ ষড়যন্ত্রকে প্রতিহত করার জন্য ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের শপথ নেওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, 'বিএনপি নির্বাচনে অংশ গ্রহণ না করে এবং আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে দেশে বিদেশে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। তারা নতুন নতুন ইস্যু তৈরি চেষ্টা করছে।'

বেগম খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে ভর্তি করে মওদুদ আহমাদ এরশাদের মন্ত্রী হয়েছিলেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘বহুরূপী মওদুদের পরামর্শ গ্রহণ করে বিএনপি আগেই অর্ধেক ডুবে গেছে, বাকি অর্ধেকটুকুও ডুবে যাবে।’

ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, 'সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করতে হবে। ষড়যন্ত্রের খুঁটি কোথায় তা আমরা জানি। দেশের জনগনের মধ্যে যাদের খুঁটি নেই, তারাই ষড়যন্ত্র করার জন্য খুঁটি খোঁজে। কারণ জনগনের মধ্যে তাদের (বিএনপি) খুঁটি থাকলে তারা ষড়যন্ত্র করত না।' 

ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি সৈয়দ মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, ডা. দীপু মনি, এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন বক্তব্য রাখেন।

 

প্রিয় সংবাদ/সজিব