ছবি সংগৃহীত

বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করল ‘ক্লাইমেট লঞ্চপ্যাড’

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় সক্ষম এমন পরিবেশবান্ধব ক্লিনটেক সবুজ উদ্যোগ বা ব্যবসায়িক প্রকল্পগুলো তুলে আনা এবং সমর্থন জোগানই এই প্রতিযোগিতার মূল উদ্দেশ্য।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ১৩ মে ২০১৭, ১১:০২ আপডেট: ১৭ আগস্ট ২০১৮, ১৬:৪৮
প্রকাশিত: ১৩ মে ২০১৭, ১১:০২ আপডেট: ১৭ আগস্ট ২০১৮, ১৬:৪৮


ছবি সংগৃহীত

২০১৬ সালের প্রতিযোগিতায় বিজয়ী দল। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করেছে ইউরোপিয়ান ইনস্টিটিউট অব ইনোভেশন অ্যান্ড টেকনোলজি (ইআইটি) সমর্থিত ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) উদ্যোগে গঠিত ‘ক্লাইমেট লঞ্চপ্যাড’।

সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটি বিশ্বব্যাপী সফল সবুজ ব্যবসায় প্রকল্প প্রতিযোগিতার চতুর্থ সংস্করণ চালু করেছে এবং বাংলাদেশ প্রথমবার এই প্রতিযোগিতায় যুক্ত হয়েছে। এটি বিশ্বের সর্ববৃহৎ সবুজ ব্যবসায় প্রকল্প প্রতিযোগিতা। প্রতিযোগিতায় প্রকল্প পরিকল্পনা জমা দেওয়ার জন্য নির্ধারিত সময়সীমা ২২ জুন পর্যন্ত।

প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে ১৩ মে শনিবার সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় সক্ষম এমন পরিবেশবান্ধব ক্লিনটেক সবুজ উদ্যোগ বা ব্যবসায়িক প্রকল্পগুলো তুলে আনা এবং সমর্থন জোগানই এই প্রতিযোগিতার মূল উদ্দেশ্য। সৃজনশীল এই মঞ্চের মধ্যে দিয়ে প্রতিযোগীরা নিজেদের তুলে ধরবেন। প্রতিযোগিতাটি সহায়তা করবে ব্যবসায় উদ্যোক্তাদের, যা তাদের সবুজ উদ্যোগকে বৈশ্বিক পর্যায়ে ব্যবসা সম্প্রসারণের সুযোগ করে দেবে। 

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, প্রতিযোগী দেশগুলোতে দুই দিনের বুট-ক্যাম্প এবং পরবর্তীতে ৬টি প্রশিক্ষণ কর্মশালার মধ্যে দিয়ে কার্যক্রম শুরু হবে এবং পরবর্তীতে জাতীয় পর্যায়ের ফাইনাল রাউন্ড-এর মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ পর্যায়ের সমাপ্তি ঘটবে। অংশগ্রহণকারী সবগুলো দেশের সেরা তিন দল নিয়ে বৈশ্বিক গ্র্যান্ড ফাইনাল রাউন্ড অনুষ্ঠিত হবে ইউরোপের সাইপ্রাসে। 

‘ক্লাইমেট লঞ্চপ্যাড’ এর প্রতিষ্ঠাতা ফ্রানস ন্যাটা বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তন আমাদের নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে এবং ঠিক একটি প্রজন্মই আমাদের ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করে দিতে পারে। বিশ্বব্যাপী অসংখ্য মহান উদ্যোক্তা অভিনব সব উদ্যোগ নিয়ে জলবায়ু পরিবর্তন এবং এর বৈশ্বিক প্রভাব মোকাবেলায় কাজ করছেন। ক্লাইমেট লঞ্চপ্যাড সেইসব উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত আর সহায়তা করছে, প্রশিক্ষণ আর আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি প্রদানের মধ্য দিয়ে।’

প্রিয় সংবাদ/মেহেদী/শান্ত  

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...