(প্রিয়.কম) সিলেটেগোয়াইনঘাট উপজেলার জাফলং মন্দিরের জুম পাহাড় এলাকায় অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনকালে মাটিচাপায় নারী শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনায় ১১ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

১৩ নভেম্বর সোমবার রাতে নিহত চম্পা দাসের (১৭) মা রেখা দাস বাদী হয়ে গোয়াইনঘাট থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় কোয়ারি মালিক খলিলুর রহমানকে প্রধান আসামি করে তার সহযোগী পূর্বজাফলং ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নানু মিয়াসহ ৬ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৫ জনকে আসামি করা হয়েছে।

এ সব তথ্য নিশ্চিত করে গোয়াইনঘাট থানার ওসি (তদন্ত) হিল্লোল রায় প্রিয়.কম-কে জানান, দণ্ডবিধির ৩০২/৩৪ ধারায় মামলাটি দায়ের করেছেন নিহতের মা রেখা দাস। মামলায় ১১ জনকে আসামি করা হয়েছে। এ ঘটনায় আটক পূর্বজাফলং ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নানু মিয়াকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৩ নভেম্বর সোমবার সকাল ৮টার দিকে জাফলং মন্দিরের জুম এলাকায় পাথর তুলতে গিয়ে মাটিচাপায় নিহত হন নারী শ্রমিক চম্পা দাস (১৭)। এ ছাড়া আহত হন আরও ৪ জন। তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ পূর্বজাফলং ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নানু মিয়াকে আটক করে।

প্রিয় সংবাদ/আদিল/শান্ত