(প্রিয়.কম) মরোক্কোতে একটি গাধাকে ধর্ষণ করা হয়েছিলো। এরপর একটি কুকুর ছানা বিকৃত যৌনতার শিকার হয়ে দিল্লিতে মারা যায়। এবার একই বিকৃত মানসিকতার প্রমাণ দিলো মুম্বাইয়ের হাউজিং সোসাইটির নিরাপত্তাকর্মী। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় সিসিটিভি ফুটেজের মাধ্যমে দেখা গেলো, একটি কুকুরকে ধর্ষণ করছে সেই ব্যক্তি।

জানা গেছে, গত সপ্তাহে ৪১ বছর বয়সী রাম নরেশ নামের নিরাপত্তাকর্মী কুকুর নিয়ে বাথরুমে যায়। প্রতিবার পাঁচ থেকে সাত মিনিট যাবত কুকুরের সঙ্গে বাথরুমে সময় কাটাতো নরেশ। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আনেন সেই হাউজিং সোসাইটির সেক্রেটারি। কয়েকদিনের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে তার সন্দেহ হয়। পরে কুকুর সহ বাথরুম থেকে ধরা পড়ে বিকৃত যৌন মানসিকতার ব্যক্তিটি।

এদিকে জানা গেছে, দিনের বেলা অটো চালিয়ে রাতে নিরাপত্তাকর্মীর কাজ করতো নরেশ। সিসিটিভি ফুটেজ দেখে তাকে জেল হাজতে নেয় মুম্বাই পুলিশ। ভারতীয় আইনে যেকোন প্রাণীর উপর অত্যাচারের ধারায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেই ব্যক্তির নামে একাধিক নাগরিক অভিযোগ দায়ের করেছে বলে জানা গেছে। এছাড়া পশু নিরাপত্তা সংরক্ষণ সস্থা ‘পেটা’ এই বিষয়ে তদন্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এদিকে কুকুরের মেডিকেল রিপোর্ট সামনে এসেছে। কুকুরটির মলদ্বারে একাধিক ঘা ও আঘাতের চিহ্ন পেয়েছে চিকিৎসকরা। কুকুরটি মানুষের সামনে আসতে ভয় পাচ্ছে, এবং সেই সঙ্গে কুকুরটির শরীরের পেছনের অংশ ব্যথায় অবশ হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন মেডিকেল কর্তৃপক্ষ। যদিও এই অভিযোগ আজ নতুন নয়। এর আগেও ভারতে পোষা প্রাণীর উপর যৌন নির্যাতনের অনেক ঘটনা ঘটেছে।

সূত্র: ডেকান ক্রনিকল

প্রিয় জটিল/গোরা