প্রতীকী ছবি

মার্চে প্রবাসী আয় ১৩০ কোটি ডলার

পরিসংখ্যানে দেখা যায়, প্রবাসীরা মার্চ মাসে রেমিট্যান্স পাঠাতে বেসরকারি ব্যাংকিং চ্যানেল বেশি ব্যবহার করেছেন, যার পরিমাণ ছিল ৯৫৯.৫১ মিলিয়ন ডলার।

জানিবুল হক হিরা
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০৪ এপ্রিল ২০১৮, ২২:৫৫ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ০৭:৪৮
প্রকাশিত: ০৪ এপ্রিল ২০১৮, ২২:৫৫ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ০৭:৪৮


প্রতীকী ছবি

(প্রিয়.কম) চলতি বছরের মার্চ মাসে প্রবাসী বাংলাদেশিরা দেশে ১,৩০০.৪৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স প্রেরণ করেছে, যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ২২২.৯৪ মিলিয়ন ডলার বেশি।

২০১৭ সালের মার্চ মাসে প্রবাসীরা দেশে ১,০৭৭.৫২ মিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিল।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ৯ মাসে (অর্থবছর ২০১৮) দেশে মোট ১০,৭৬১.২৯ মিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স এসেছে, যা গত অর্থবছরের একই সময়ে ছিল ৯,১৯৪.৫৯ মিলিয়ন ডলার। খবর বাসসের।

পরিসংখ্যানে দেখা যায়, প্রবাসীরা মার্চ মাসে রেমিট্যান্স পাঠাতে বেসরকারি ব্যাংকিং চ্যানেল বেশি ব্যবহার করেছেন, যার পরিমাণ ছিল ৯৫৯.৫১ মিলিয়ন ডলার।

এ সময়ে অগ্রণী, জনতা, রূপালী, সোনালী, বেসিক ও বিডিবিএল—এই ছয়টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক মোট ৩১৫.৭৯ মিলিয়ন ডলার এবং একটি রাষ্ট্রায়ত্ত বিশেষায়িত ব্যাংক বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক ১১.৩৪ মিলিয়ন ডলার গ্রহণ করেছে। এর মধ্যে রাষ্ট্রায়ত্ত অগ্রণী ব্যাংক ১২৫.৫৫ মিলিয়ন, জনতা ব্যাংক ৭৭.৭৭ মিলিয়ন, রূপালী ব্যাংক ১৪.২১ মিলিয়ন, সোনালী ব্যাংক ৯৮.৪৬ মিলিয়ন এবং বেসিক ব্যাংক শূন্য দশমিক ৪০ মিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স গ্রহণ করেছে।

এ ছাড়া প্রবাসী বাংলাদেশীরা বিদেশি বাণিজ্যিক ব্যাংকের মাধ্যমে ১৩.৮২ মিলিয়ন ডলার প্রেরণ করেছে। বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকের মধ্যে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড (আইবিবিএল) সর্বোচ্চ ২৮২.৫৬ মিলিয়ন ডলার গ্রহণ করেছে। ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড (ডিবিবিল) গ্রহণ করেছে ৭৩.৮৪ মিলিয়ন ডলার।

প্রিয় সংবাদ/হিরা/আজাদ চৌধুরী