(প্রিয়.কম) জাতীয় শোক দিবসে ধানমণ্ডিসহ রাজধানীজুড়ে নিশ্ছিদ্র ও কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া।

১৩ আগস্ট রোববার বেলা ১১টায় রাজধানীর ধানমণ্ডি ৩২-এ জাতীয় শোক দিবসের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের একথা জানান তিনি।  

কমিশনার বলেন, রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, ডেপুটি স্পিকার, মন্ত্রী, সাংসদসহ সামরিক ও বেসামরিক ও কূটনীতিকদের নিরাপত্তায় সার্বক্ষণিক প্রস্তুত থাকবেন নির্ধারিত পোশাকে ও সাদা পোশাকে পুলিশ, র‌্যাবের সদস্যরা। এছাড়া নিরাপত্তার স্বার্থে ডগস্কোয়াড, বোম্ব ডিস্পোজাল ইউনিট, সোয়াটও সার্বক্ষণিক প্রস্তুত থাকবে বলেও জানান তিনি।

ধানমণ্ডি ৩২-এ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানাতে আসা সর্বস্তরের মানুষকে শৃঙ্খলার সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সহযোগিতার অনুরোধ জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার।

তিনি বলেন, শোক দিবসে শ্রদ্ধা জানাতে ধানমণ্ডি ৩২-এ সকাল সাড়ে ৬টায় আসবেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী। এরপর পর্যায়ক্রমে স্পিকার, ডেপুটি স্পিকার, মন্ত্রী, সাংসদসহ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা ও কূটনীতিকরা আসবেন। শৃঙ্খলার স্বার্থে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা ও যান চলাচলে নতুন নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, পুরো ধানমণ্ডি ৩২ এলাকা নিরাপত্তার স্বার্থে সিসি ক্যামেরার আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। চেকপোস্ট ও আর্চওয়ে পেরিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে যেতে হবে সবাইকে।

এছাড়া নিরাপত্তার স্বার্থে ট্রলি ব্যাগ, হাতব্যাগ, ভ্যানিটি ব্যাগ, দিয়াশলাই, আগ্নেয়াস্ত্র, চাকু, ছুরি নিষিদ্ধ থাকবে। কেউ এসব নিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন না। বিষয়টি সম্পর্কে সর্বসাধারণকে সজাগ থাকার অনুরোধ জানান তিনি।

প্রিয় সংবাদ/আশরাফ