(প্রিয়.কম) ভারতের কালিয়াচকের সুলতানগঞ্জের হামিদ নামের আট মাসের এক শিশুর শ্বাসনালীতে আটকে গিয়েছিল জীবিত কই মাছ। 

১৫ নভেম্বর বুধবার বিকেলে মাছ আনেন সুলতানগঞ্জের বাসিন্দা রহিম শেখ। পরে তার স্ত্রী আমিনা বিবি তার চার বছরের ছেলে রাহুল আর আট মাসের হামিদের সামনে রেখেছিলেন মাছগুলো।

সে সময় রাহুল খেলতে খেলতে ভাইয়ের মুখে জীবত কই ঢুকিয়ে দিলে সঙ্গে সঙ্গে হামিদকে গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে মালদহ হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক পি কে মণ্ডল হামিদকে দেখে তার নেতৃত্বে চারজনের দল গঠন করেন। এরপরেই মাত্র দশ মিনিটে ল্যারিঙ্গোস্কোপি করে শিশুর শ্বাসনালীতে আটকে থাকা কই বের করেন তারা।

তবে সব থেকে আশ্চর্য জনক বিষয় হলো কই মাছটি তখনও বেঁচে ছিল। 

এদিকে হামিদের মা আমিনা বিবি আক্ষেপ করে বলেন, ‘কেন যে বাচ্চাদের সামনে মাছগুলো রেখেছিলাম’।   

সূত্র: আনন্দবাজার 
প্রিয় সংবাদ/মিজান