(প্রিয়.কম) গত কয়েক দিনের অবিরাম বর্ষণ ও উত্তরের পানি ঢলে গাইবান্ধার ব্রহ্মপুত্র ও ঘাঘট নদীসহ বিভিন্ন নদ-নদীর পানি আবারও বাড়তে শুরু করেছে। প্রথম দফার বন্যার কবল থেকে উঠতে না উঠতেই ফের পানি বৃদ্ধিতে চরম বিপাকে পড়েছে নদীর তীরবর্তী অঞ্চলে বসবাসকারী পরিবারগুলো।

আকস্মিক পানি বৃদ্ধির কারণে তলিয়ে গেছে হাজার হাজার একর রোপা আমন ধান। গাইবান্ধা জেলার সাত উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে গত পাঁচ দিনের টানা বর্ষণে ব্যবসা বাণিজ্যসহ জনজীবন স্থবির হয়ে পড়ছে। নিত্যপণ্য ব্যবসায়ীদের দোকানপাট খোলা থাকলে লোকজনে উপস্থিতি ছিল কম।

১৩ আগস্ট রোববার দুপুর পর্যন্ত কোথাও কখনো সূর্যের দেখা মেলেনি। দিনব্যাপী মেঘলা আকাশের অবিরাম বৃষ্টিপাতের কারণে প্রয়োজনীয় কাজ ছাড়া অনেকে ঘর থেকে বের হতে পারছেন না। ফলে পরিবার নিয়ে মানবেতর দিনাতিপাত করছে দিনমজুররা। টানা বর্ষণে গাইবান্ধা শহর ও সাদুল্যাপুর শহরের বিভিন্ন স্থানে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে।

গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান জানান, ‘গত বুধবার থেকে রোববার দুপুর পর্যন্ত জেলায় ২৫১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। জেলার ভিতর দিয়ে প্রবাহিত যমুনা ও ব্রহ্মপুত্র, করতোয়া, ঘাঘট, তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত আছে।’

প্রিয় সংবাদ/কামরুল