ছবি সংগৃহীত

প্রিয় গন্তব্য: রাঙ্গামাটির হাজাছড়া ঝর্ণা

সাজেক থেকে ফিরবার পথে অথবা যাবার পথে এক ঘণ্টার বিরতিতে আপনি ঘুরে আসতে পারেন এই ঝর্ণাটিতে।

খন্দকার ইশতিয়াক মাহমুদ
লেখক
প্রকাশিত: ০২ এপ্রিল ২০১৭, ১৫:১৯ আপডেট: ১৯ আগস্ট ২০১৮, ১২:১৬
প্রকাশিত: ০২ এপ্রিল ২০১৭, ১৫:১৯ আপডেট: ১৯ আগস্ট ২০১৮, ১২:১৬


ছবি সংগৃহীত
ভরা বর্ষায় হাজাছড়া ঝর্ণা। ছবি: সাব্বির সাদ।
 
(প্রিয়.কম): এই ঝর্ণাটির স্থানীয় পাহাড়িদের দেয়া নাম হল চিত জুরানি থাংঝাং ঝর্ণা বা মন প্রশান্তি ঝর্ণা। কেন এই নাম, সেটা আবিষ্কার করতে হলে আপনাকে যেতে হবে ঝর্ণাটির কাছে। হয়ত ঝর্ণা আপনাকে যোগ্য মনে করে আপনার কাছে তার গোপনীয়তা তুলে ধরবে।
 
ঝর্ণাটি রাঙ্গামাটিতে হলেও খাগড়াছড়ি দিয়ে যাওয়া সবচেয়ে সহজ হবে। এর আর এক নাম হল শুকনাছড়া ঝর্ণা। বর্ষায় গেলে অবশ্য এই নামটা বিশ্বাস হতে চাইবে না।
 
খাগড়াছড়ির দীঘিনালা থেকে হাজাছড়া রওনা দিতেই আপনার চোখে পড়বে প্রকৃতির নিজের হাতে তৈরি করা এক চিত্রকল্প। বর্ষায় পাবেন ঝকঝকে সবুজ চারপাশ, গাছপালাগুলো যেন অদ্ভুত এক রঙ এর খেয়ালে মেতে উঠেছে। তবে বর্ষার কারণে মাটি থাকবে কাদাময়। শীতে গেলে পরিবেশ ও আবহাওয়া আরামদায়ক হবে, কিন্তু প্রকৃতির রং হয়ত কমে যাবে খানিকটা।
 
এগিয়ে গেলে দেখতে পারবেন তীর ছুঁয়ে যাওয়া মাইনী নদীর জলের স্রোত। পাহাড়ি ঢলে নদীর দুই তীর জুড়ে উপচে পড়া জলের স্রোত। রাস্তার দুপাশ জুড়ে আদিবাসীদের বসবাস। পথের ধারেই নানান শস্যের জুমের ক্ষেত। সবুজে ঘেরা ঝিরি পথ পেরুলেই স্বাগতম জানাবে হাজাছড়া বিশালকায় ঝর্ণা। পুরো বর্ষায় হাজাছড়ার রূপের তুলনা সে নিজেই।
 
কোথায়: ঝর্ণাটি রাঙ্গামাটি এলাকায় পড়লেও যেতে হবে খাগড়াছড়ির দীঘিনালা দিয়ে।
 
প্রকৃতি যেন নিজের হাতে তৈরি করেছে ভালবাসার চিহ্ন। ছবি: আল নূর।
 
কীভাবে যাবেন: হাজাছড়া ঝর্ণায় যেতে হলে আপনাকে প্রথমে খাগড়াছড়ি যেতে হবে। ঢাকার কমলাপুর, সায়দাবাদ, ফকিরাপুল, কলাবাগান থেকে সরাসরি বাস রয়েছে খাগড়াছড়িতে। উপকূল সেন্টমার্টিনের এসি বাস, এস আলম, সৌদিয়া, শান্তি পরিবহন ও শ্যামলী পরিবহনের যে কোনও একটি বেছে নিতে পারেন। নন-এসিতে খরচ হবে ৫২০-৬০০ টাকা। আর এসিতে খরচ হবে ৭০০-৮০০ টাকা। চট্টগ্রাম থেকে আসতে হলে অক্সিজেন অথবা কদমতলী বিআরটিসি বাস টার্মিনাল যেতে হবে। অক্সিজেন থেকে রয়েছে শান্তি পরিবহন ও লোকাল বাস এবং কদমতলী থেকে বিআরটিসি। চট্টগ্রাম থেকে আসতে ১৮০-২২০ টাকা খরচ হবে। খাগড়াছড়ি নেমে বাস, মটর সাইকেল অথবা চান্দের গাড়িতে প্রথমে যেতে হবে দীঘিনালা। ঢাকা থেকে শান্তি পরিবহনে করে সরাসরি আপনি দীঘিনালা পৌঁছে যেতে পারেন। টিকিট পেলে সেটাই সেরা উপায় হবে।
 
দীঘিনালা বাস-টার্মিনাল থেকে মোটরবাইক বা চাঁদের গাড়ি করে বাঘাইহাটের আগে ১০ নম্বরে নেমে ১৫ থেকে ২০ মিনিটের হাঁটাপথ শেষ করে ঝর্ণায় পৌঁছানো যায়। খাগড়াছড়ি থেকে দীঘিনালার হাজাছড়া অথবা রামগড়ে আসা-যাওয়ায় খরচ মাথাপিছু খরচ হবে ৪০০-৫০০ টাকার মতো।
 
ঝর্ণা এবং চারদিকের প্রকৃতি মুগ্ধ করবে আপনাকে। ছবি: মাসুম হোসেন।
 
চাইলে সহজেই সাজেক হয়ে ঘুরে আসার সময় এই ঝর্ণাটিতে ঘুরে আসা যায়। এর পাশাপাশি একই সাথে তৈদুছড়াও ঘুরে আসতে পারেন। এলাকায় ভাল খাবার ব্যবস্থা নেই। তাই খাবার সাথে রাখা ভাল হবে। থাকার জন্য খাগড়াছড়িতে যাওয়া নিরাপদ হবে। সেখানে বেশ কিছু ভাল হোটেল রয়েছে আপনার থাকার জন্য।
 
সম্পাদনা: ড. জিনিয়া রহমান।
আপনাদের মতামত জানাতে ই-মেইল করতে পারেন [email protected] এই ঠিকানায়।