স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। ফাইল ছবি

‘বঙ্গবন্ধুর মতো সাহস ছিল বলেই শেষ বলে ছয় মেরে জয়’

গতকাল শ্রীলঙ্কা-বাংলাদেশের খেলা প্রস‌ঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ব‌লেন, ‘বঙ্গবন্ধু এবং শেখ হাসিনার মতো সাহস ছিল বলেই শেষ বলে ছয় মেরে জয় এনে দিয়েছে। এই হলো বাঙালি।’

মুহম্মদ আকবর
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৭ মার্চ ২০১৮, ১৫:৫৭ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২৩:৩২
প্রকাশিত: ১৭ মার্চ ২০১৮, ১৫:৫৭ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২৩:৩২


স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) শ্রীলঙ্কার সঙ্গে বাংলাদেশের জয়কে স্বাগত জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। একই সঙ্গে তিনি শিক্ষার্থীদের মাদকাসক্তি থেকে দূরে থাকারও আহ্বান জানান।

১৭ মার্চ, শ‌নিবার বেলা ১টায় উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড ক‌লে‌জে বঙ্গবন্ধু শেখ মু‌জিবুর রহমা‌নের ৯৮তম জন্ম‌দিবস ও জাতীয় শিশু দিবস ২০১৮ অনুষ্ঠা‌নে বক্তব্য দেন মোহাম্মদ নাসিম।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসিকতার প্রসঙ্গ টেনে বলেন, ‘শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর প্রতিটি ঘরে ঘরে শিক্ষার আলো জ্বলছে। প্র‌তি‌টি সেক্ট‌রে শুধু উন্নয়ন আ‌র উন্নয়ন। বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এটা আমাদের সৌভাগ্য। তার সাহসিকতার কারণেই আজ দেশ এই পর্যা‌য়ে।’

গতকাল শ্রীলঙ্কা-বাংলাদেশের খেলা প্রস‌ঙ্গে মোহাম্মদ নাসিম ব‌লেন, ‘বঙ্গবন্ধু এবং শেখ হাসিনার মতো সাহস ছিল বলেই শেষ বলে ছয় মেরে জয় এনে দিয়েছে। এই হলো বাঙালি।’

স্কুলের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে নাসিম বলেন, ‘কেউ যেন না বলতে পারে এই স্কু‌লে মাদকাসক্ত আছে। কেউ যেন না বলতে পারে এখানে ধূমপান ক‌রে ছে‌লে‌মে‌য়ে। কেউ মাদক স্পর্শ করবে না।’

মোহাম্মদ নাসিম আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর মতো মহামানবের জন্ম হয়েছিল বলেই দেশ স্বাধীন হয়েছিল। আর সেই দেশে বঙ্গবন্ধুর কণ্ঠ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল, তার ছবি নিষিদ্ধ করে দিয়েছিল, এটা বাঙালির ইতিহাসে চরম লজ্জাজনক ঘটনা। এই মহামানব জন্মগ্রহণ না করলে শিক্ষা ক্ষেত্রে বলেন, অর্থনীতিতে বলেন, কোনো ক্ষেত্রেই দেশ আগাতে পারত না, আর সেই বঙ্গবন্ধুই নিষিদ্ধ ছিল বাংলাদেশে।

বঙ্গবন্ধু কোনো দলের নয়, গোষ্ঠীর নয়, তি‌নি সমগ্র বাঙালি জা‌তির। বঙ্গবন্ধুর ছবি বাঙালির হৃদয় থেকে কোনোদিন মুছে যাবে না। যদি কেউ চেষ্টা করেও কোনোদিন মুছতে পারবেন না। হিমালয়ের নিচে বসে যদি কোনো অন্ধ হিমালয়ের পরিমাপ করতে না পারেন সেটা হিমালয়ের দোষ নয়, অন্ধের দোষ। বঙ্গবন্ধুকে যারা ছোট করতে চেয়েছে বঙ্গবন্ধু ছোট হয়নি, তারা নিজেই ছোট হয়ে গেছে।’

উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড ক‌লে‌জের ছাত্রছাত্রী এবং অভিভাবকদের উদ্দেশে তি‌নি ব‌লেন, ‘আপনার সন্তানকে বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস সম্পর্কে জানাবেন, বঙ্গবন্ধুর ছবি দেখাবেন।’

উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড ক‌লে‌জের সভাপ‌তি মুহাম্মদ আরিফুর রহমান টিটুর সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠা‌নে আরও উপস্থিত ছি‌লেন স্বেচ্ছা‌সেবক লীগের সভাপ‌তি মোল্লা মো. আবু কায়সার এবং সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথ

প্রিয় সংবাদ/কে এন দেয়া/আজাদ চৌধুরী