(প্রিয়.কম) বিভিন্ন ল্যাপটপ ব্র্যান্ড বা মডেলে ইন্সটল হয়ে থাকা এক সফটওয়্যারে ত্রুটি পেয়েছেন নিরাপত্তা গবেষকরা। গবেষকরা জানিয়েছেন, সিন্যাপ্টিক সফটওয়্যার ত্রুটিতে ল্যাপটপের কিবোর্ড এবং ট্র্যাকপ্যাডে দেওয়া সকল ইনপুটের রেকর্ড রেখে দেয়। বিজনেস ইনসাইডারের প্রতিবেদনে বলা হয়, ৪৬০ এইচপি ল্যাপটপের মডেলের সিন্যাপ্টিক সফটওয়্যার এই ত্রুটি রয়েছে। 

এই ত্রুটি কি-লগার নামে পরিচিত যা ব্যবহারকারীর প্রতিটা কিস্ট্রোক (কিবোর্ডে দেওয়া ইনপুট) ট্র্যাক করে থাকে। আর এই সফটওয়্যার এ কারণে নানা স্পর্শকাতর তথ্য ও পাসওয়ার্ড রেকর্ড করে রেখে ব্যবহারকারীকে ঝুঁকিতে ফেলে দেয়। তবে আশার কথা হচ্ছে এইচপি ল্যাপটপে থাকা এই সফটওয়্যার ডিফল্টভাবে ডিজেবল করা থাকে। এটি এনাবল করতে অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ এক্সেস প্রয়োজন হয়। অর্থাৎ হ্যাকারদের এটি কার্যকর করতে ফিজিক্যাল এক্সেসের দরকার হয়। 

এইচপি’র সহায়তা পেজে বলা হয়েছে, এই ইস্যুতে গ্রাহকের তথ্যে সিন্যাপ্টিক সফটওয়্যার কিংবা এইচপি কারো কোনো এক্সেস নেই। এছাড়াও বলা হয়েছে, সকল এইচপি মডেলে এই ত্রুটি নেই। ত্রুটিযুক্ত ল্যাপটপের তালিকা করা হয়েছে যেগুলোতে হালনাগাদ পাঠালে এই ত্রুটি দূর হয়ে যাবে। 

এইচপি আরও বলছে, এই সমস্যা শুধু তাদের নয়। এটি সিন্যাপ্টিকের টাচপ্যাড ড্রাইভার ব্যবহার করা সকলের উপর প্রভাব ফেলবে। তবে এ বিষয়ে সিন্যাপটিক এখন পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করেনি।  

প্রিয় টেক/আশরাফ