বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ মার্চে: জব্বার

‘আমাদের নতুন প্রজন্মকে কেবলমাত্র ইন্টারনেট দিতে পারি, এর চাইতে বড় খুশি মনে হয় আর কিছুতে তারা হবে না।’

রাকিবুল হাসান
নিজস্ব প্রতিবেদক
১২ জানুয়ারি ২০১৮, সময় - ১৬:৩২

রাজধানীর আইসিটি টাওয়ারে শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার । ছবি : ফেসবুক থেকে নেওয়া

(প্রিয়.কম) মহাকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে জানিয়ে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ২৬  থেকে ৩১ মার্চের মধ্যে যেকোনো সময়ে এটি উৎক্ষেপণ করা হবে।

১২ জানুয়ারি শুক্রবার আইসিটি টাওয়ারে বর্তমান সরকারের ৪ বছরে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (আইসিটি) খাতে সাফল্য নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জব্বার এই তথ্য জানিয়েছেন। 

সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী বলেন, ‘সড়ক (পরিবহন) ও সেতুমন্ত্রী দেশের জন্য সড়ক স্থাপন করবেন। কিন্তু আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশের জন্য যে সড়ক তৈরি করব, এটি ইট-কংক্রিট দিয়ে তৈরি নয়, এটি ইন্টারনেটের মহাসড়ক। এই ইন্টারনেটের মহাসড়ক তৈরি করা আমার মন্ত্রণালয়ের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ।’

‘আমাদের নতুন প্রজন্মকে কেবলমাত্র ইন্টারনেট দিতে পারি, এর চাইতে বড় খুশি মনে হয় আর কিছুতে তারা হবে না।’ 

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘তিনটি বিষয় ইন্টারনেটের জন্য জরুরি। একটি হলো ইন্টারনেটের গতি। আমরা ১ জিবিপিএস না দিতে পারি, কিন্তু ১ এমবিপিএস যে দিতে পারব না, এটি চিন্তা করলে তো হবে না। মানুষের কাছে ইন্টারনেটের গতি পৌঁছাতে হবে।’

ফোর জির বিষয়ে আদালতের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘আমি শুনেছি গতকাল (১১ জানুয়ারি) উচ্চ আদালতে একটি নিষেধাজ্ঞা ছিল (ফোর জির ওপর)। আবার তিন ঘণ্টা পর তা স্থগিত করা হয়েছে। সুতরাং আমাদের ফোর জির কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে এবং অব্যাহত থাকবে।’

ইন্টারনেটের দামের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমানে শুধু মোবাইলের ইন্টারনেট দিয়ে জনগণের ইন্টারনেটের চাহিদা পূরণ করা সম্ভব নয়। আমাদের ব্রডব্র্যান্ডের দিকেও নজর দিতে হবে। আমাকে ধারণা দেওয়া হয়েছিল যে, ইন্টারনেটের দাম সাবমেরিন কোম্পানি ৬২৫ টাকা বা এই রকম একটি দামে দিয়ে থাকে। আমি তাদের সঙ্গে বৈঠক করে জানলাম, তারা চট্টগ্রামে ২০৪ টাকায় এই ব্যান্ডউইথ প্রদান করে থাকে।’ 

মন্ত্রী জানান, ব্যান্ডউইথ সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো অতিরিক্ত টাকা কেটে নিচ্ছে যা তাদের করা উচিত নয়। দেশের সবাইকে সমান দামে ইন্টারনেট দেওয়া উচিত।

ডট বিডি ও ডট বাংলার বিষয়ে মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ‘ডট বিডি ও ডট বাংলার ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন আমরা সহজে করতে পারি না। এ নিয়ে বিটিসিএলের সঙ্গে আমি বসেছিলাম। তাদের বলে দিয়েছি, আমরা পৃথিবীর যেকোনো প্রান্ত থেকে যেভাবে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে পারি, মুহূর্তের মধ্যে পেমেন্ট করতে পারি, সেই ব্যবস্থা বাংলাদেশে চালু করতে হবে।

ডাক বিভাগের বিষয়ে নবনিযুক্ত এই মন্ত্রী বলেন, ‘টেলিকম ডিভিশনের কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান রয়েছে যারা ঐতিহাসিকভাবেই রূগ্ন বা জরাগ্রস্থ। তার মধ্যে বড় চ্যালেঞ্জে রয়েছে ডাক বিভাগে। প্রযুক্তিগত দিক থেকে তারা ডাইনোসরের যুগে পৌঁছেছে। তবে আমাদের পরিকল্পনা রয়েছে এই পোস্ট অফিসগুলোকে আমরা ডিজিটাল হাবে পরিণত করব। এই প্রযুক্তির যুগে এটি যাতে বিলুপ্তির দিকে না যায়, সেই দিকে আমাদের নজর রাখতে হবে।’

একমাত্র রাষ্ট্রীয় মোবাইল অপারেটর টেলিটকের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘এক সময় ছিল টেলিটকের সিম কেনার জন্য মানুষের লাইন লেগে থাকত। তাদের নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশ লাঠিচার্জ করতে বাধ্য হয়েছে। কিন্তু আমি বুঝি না সেই টেলিটক কেন সেই রকম কোনো প্রতিষ্ঠানে দাঁড়াতে পারেনি। তবে আশার খবর গত কয়েক মাসে টেলিটকের গ্রাহক সংখ্যা ৩২ লাখ থেকে ৪৫ লাখে উন্নীত হয়েছে।’

প্রিয় টেক

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
জনপ্রিয়