মুস্তাফিজুর রহমান। ছবি: প্রিয়.কম

‘আমার কপালে এমন ছিল, কী করার আছে’

আইপিএলের নবম আসরে মাত্র একটি ম্যাচ খেলায় বিপত্তি না বাঁধলেও এবার ঠিকই ইনজুরি নিয়ে ফিরেছেন তরুণ এই বাঁহাতি পেসার।

শান্ত মাহমুদ
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৩ জুন ২০১৮, ১৮:৩৭ আপডেট: ১৯ আগস্ট ২০১৮, ২১:০০


মুস্তাফিজুর রহমান। ছবি: প্রিয়.কম

(প্রিয়.কম) তিনবারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) খেলার অভিজ্ঞতা তার। এর মধ্যে দুইবারের অভিজ্ঞতা নিশ্চয়ই ভুলে যেতে চাইবেন মুস্তাফিজুর রহমান। প্রথম আইপিএল অভিজ্ঞতাতেই সেরা উদীয়মান ক্রিকেটারের পুরস্কার জিতেছিলেন বাংলাদেশের এই পেসার। কিন্তু সাথে করে নিয়ে এসেছিলেন ইনজুরি, যা তাকে পিছিয়ে দেয় অনেকটা পথ।

আইপিএলের নবম আসরে মাত্র একটি ম্যাচ খেলায় বিপত্তি না বাঁধলেও এবার ঠিকই ইনজুরি নিয়ে ফিরেছেন তরুণ এই বাঁহাতি পেসার। আবারও চলে গেছেন মাঠের বাইরে। যদিও এটাকে ভাগ্য হিসেবে ধরে নিয়ে সবকিছু মেনে নিচ্ছেন মুস্তাফিজ।

আইপিএল মানেই যেন মুস্তাফিজের ইনজুরি আর লম্বা সময়ের জন্য তার মাঠ থেকে ছিটকে যাওয়া। প্রথম আইপিএল শেষে কাঁধের ইনজুরিতে ছয় মাসের মতো মাঠের বাইরে থাকতে হয় তাকে। এবারও লম্বা সময় দর্শক সারিতে থাকতে হচ্ছে তাকে। ইতোমধ্যে মিস করেছেন আফগানিস্তান সিরিজ। উইন্ডিজ সফরেও নিশ্চিত নয় তার খেলা। সব মিলিয়ে আইপিএল যেন বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। যদিও মুস্তাফিজ আইপিএলের দোষ দেখছেন না। কপালকেই দুষছেন তিনি।     

কপালে ছিল বলেই এমন হয়েছে বলে মনে করেন মুস্তাফিজ। তবে আফসোসও হয় তার। কারণ ইনজুরির কারণে টানা খেলে যেতে পারছেন না। অভিষেকেই ক্রিকেট দুনিয়া মাত করে দেওয়া ‍মুস্তাফিজ বলেন, ‘খেলতে গেলে এমন হয়। আমার কপালে এমন ছিল, কী করার আছে। আফসোস থাকারই কথা। সব খেলোয়াড়ই চায় ধারাবাহিক খেলে যেতে।’

অবশ্য এবারের ইনজুরির আগেরবারের মতো গুরুতর নয়। ক্রমেই ফিট হয়ে উঠছেন তিনি। পায়ের পাতার ইনজুরিতে পড়া মুস্তাফিজ পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় ইতোমধ্যে তিন সপ্তাহ পার করে ফেলেছেন। ইনজুরির অবস্থা নিয়ে বাংলাদেশের পেসার বলেন, ‘এখন অনেক ভালো। তিন সপ্তাহ হয়ে গেছে। যে কাজ দেখিয়ে দিয়েছে, ডে বাই ডে করার চেষ্টা করছি। ওভারঅল ভালো। কদিনের গ্যাপ আছে। তবুও কিছু প্রোগ্রাম দিয়েছেন ডাক্তার, ওটা করতে হবে। ঈদ শেষে আসার পর আবার দেখবেন।’

উইন্ডিজ সফরে টেস্ট মিস হলেও ওয়ানডে বা টি-টোয়েন্টি দিয়ে ফেরার সম্ভাবনা আছে মুস্তাফিজের। যদিও এ ব্যাপারে অতটা আত্মবিশ্বাসী দেখাল না তাকে, ‘চোটে পড়েছি, চেষ্টা করছি, কীভাবে সেরে উঠা যায়। ডাক্তার যে কাজ দিয়েছেন, সেটা করে চেষ্টা করছি, যেন তাড়াতাড়ি কামব্যাক করা যায়। ওয়ানডে বা টি-টোয়েন্টিতে ফেরার ব্যাপারটা সব উপরঅলার ইচ্ছা।’

পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে সাতক্ষীরা যাচ্ছেন কাটার মাস্টার। এ নিয়ে আগে থেকেই রোমাঞ্চিত মুস্তাফিজ, ‘বাড়িতে অনেকদিন পর যাচ্ছি। গেলে ভালো লাগবে। বাবা মা, পরিবারের সবাই থাকবে। যদি টেস্ট দলে থাকতাম তাহলে দুদিকেই ভালো লাগত। এখন শুধু পরিবার নিয়েই থাকতে হবে।’

প্রিয় খেলা/শান্ত 

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
এশিয়ান গেমসে বাংলাদেশের ইতিহাস
সামিউল ইসলাম শোভন ১৯ আগস্ট ২০১৮
রাজনীতির মাঠে মোদির দলে গৌতম গম্ভীর!
সামিউল ইসলাম শোভন ১৯ আগস্ট ২০১৮
এখনো পারিশ্রমিক পাননি অলোক কাপালিরা
সামিউল ইসলাম শোভন ১৯ আগস্ট ২০১৮
পরিকল্পনা বাস্তব হওয়ায় খুশি মিঠুন
সামিউল ইসলাম শোভন ১৯ আগস্ট ২০১৮
আগস্টের দুঃখ ঘুচল হ্যারি কেনের
প্রিয় ডেস্ক ১৯ আগস্ট ২০১৮
ট্রেন্ডিং