জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পাখি মেলা

উপাচার্য ড. ফারজানা ইসলাম বলেন, প্রকৃতি ও প্রাকৃতিক সম্পদকে ভালবাসতে হবে প্রাণ থেকে। প্রকৃতির সৌন্দর্য দেখা সৌভাগ্যের বিষয়।

মো. ইউসুফ জামিল
কন্ট্রিবিউটর, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়
১৯ জানুয়ারি ২০১৮, সময় - ২২:৪৬

বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান মিলনায়তনের সামনে উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম বেলুন উড়িয়ে এবারের পাখি মেলা উদ্ধোবন করেন। ছবি প্রিয়.কম

(প্রিয়.কম) পাখি সংরক্ষণে গণসচেতনা বৃদ্ধির লক্ষ্যে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) পাখিমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৮ জানুয়ারি সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান মিলনায়তনের সামনে উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম বেলুন উড়িয়ে এবারের পাখি মেলার উদ্ধোবন করেন।

১৭তম এ পাখি মেলার আয়োজনের মূল দ্বায়িত্ব পালন করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগ এবং আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করেন বাংলাদেশের অন্যতম বন্যপ্রাণী গবেষক জাবির প্রাণীবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. কামরুল হাসান।

উপাচার্য ড. ফারজানা ইসলাম বলেন, প্রকৃতি ও প্রাকৃতিক সম্পদকে ভালবাসতে হবে প্রাণ থেকে। প্রকৃতির সৌন্দর্য দেখা সৌভাগ্যের বিষয়। সৌভাগ্যের অনুষঙ্গ প্রাণিগুলোর বসবাসযোগ্য পরিবেশ অক্ষুণ্ণ রাখার দায়িত্ব পালনে সবার অংশীদারিত্ব থাকতে হবে। আমরা পাখি মেলার সহযোগী হিসেবে ছিলাম। প্রতি বছরই যাতে এ পাখি মেরা অনুষ্ঠিত হয় তার জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল ধরনের সহযোগিতা আমরা করে যাব।

পরে পাখি বা জীববৈচিত্রের উপর গত এক বছরে প্রিন্ট এবং ইলেকট্রনিক মিডিয়াতে যেসকল রির্পোট হয়েছে তার উপর ভিত্তি করে ‘কনজারভেশন মিডিয়া অ্যাওর্য়াড’ প্রদান করা হয়। বাংলানিউজ২৪ ডটকমের প্রতিনিধি নুর আলম হিমেল, ডেইলি স্টারের আসাদুজ্জামন এবং সময় টিভির তোহা খান তামিম এ অ্যাওর্য়াড পেয়েছেন।

পাখিমেলায় বিগ বার্ড ২০১৮ সম্মাননা প্রদান করা হয়। হাসনাত রনি, রাজিব রাশেদুল কবির এবং মো. তারিক হাসান এ সম্মাননা লাভ করেন।

ঢাকা বিশ্বাবিদ্যালয়ে প্রাণিবিদ্যা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শির্ক্ষাথী ফারিয়া জামান। প্রথমবারেরমতো এবারের পাখিমেলায় এসেছেন নিজ বিভাগের সঙ্গে। অনুভুতি প্রকাশ করতে গিয়ে প্রিয়.কমকে তিনি বলেন, আমার পাখি মেলা এসে খুব ভালো লাগছে। আরও বেশি ভালো লাগছে আমাদের পরিবেশ তথা পাখি নিয়ে সবার মাঝে সচেতনা দেখে। আমি চাই জীব বৈচিত্র সংক্ষণে সবাই সচেতন হোক এবং এগিয়ে আসুক।

পাখিমেলার আহ্বায়ক বাংলাদেশের অন্যতম বন্যপ্রাণী গবেষক জাবির প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. কামরুল হাসান বলেন, ‘পাখি তথা জীববৈচিত্র সংরক্ষণে গণসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্য সামনে রেখেই আমাদের এই পাখি মেলার আয়োজন। পাখি নিয়ে যারা কাজ করছে তাদের উৎসাহ প্রদান করার জন্য ‘কনজারভেশন মিডিয়া অ্যাওর্য়াড’ এবং ‘বিগ বার্ড ২০১৮’ সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে।’

পাখির উপর সায়েন্টিফিক পাবলিকেশন্সকে উৎসাহ প্রদান করার জন্য এবারের মেলায় ‘সায়েন্টিফিক পাবলিকেশন্স’ নামে একটি অ্যাওর্য়াড দেয়ার ঘোষনা দেয়া হয়।

সকাল দশটায় অনুষ্ঠিত পাখিমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক শেখ মনজুরুল হক, পাখিবিশারদ ড. ইনাম আল হক, আইসিইউএন বাংলাদেশ প্রতিনিধি রাকিবুল আমিন, বন সংরক্ষক জাহিদুল কবির, আরন্যক এর প্রধান নির্বাহী ফরিদ উদ্দিন, কথা সাহিত্যিক আখতার হোসেন প্রমুখ।

প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. মনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মডারেটর ছিলেন ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. এটিএম আতিকুর রহমান।

দিনব্যাপী পাখিমেলায় ছোটদের পাখি বিষয়ক চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, কুইজ, আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় পাখি দেখা প্রতিযোগিতা, আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় পাখি চেনা প্রতিযোগিতা (অডিও-ভিডিও এর মাধ্যমে) অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ছাড়াও মেলায় ছিল টেলিস্কোপ দিয়ে শিশু কিশোরদের পাখি পর্যবেক্ষণ, বই-পোস্টার প্রদর্শনী, সংরক্ষিত বিভিন্ন প্রজাতির পাখি এবং পাখি বিষয়ক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রিয় সংবাদ/হিরা

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


স্পন্সরড কনটেন্ট
জনপ্রিয়
আরো পড়ুন