(প্রিয়.কম) প্রথম তিন ম্যাচে অপরিবর্তিত ছিল খুলনা টাইটান্সের উদ্বোধনী জুটি। মঙ্গলবার নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে ঢাকা ডায়মাইটসের বিপক্ষে উদ্বোধনী জুটিতে পরিবর্তন আনে খুলনা। চ্যাডউইক ওয়ালটনকে নিয়ে এদিন ইনিংস উদ্বোধন করতে নামেন নাজমুল হোসেন শান্ত। তবে তাদের চিন্তার জায়গা এই জুটি নয়। তিন নম্বর জায়গা নিয়ে শুরু থেকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে আসছে দলটি। আর এই পরীক্ষা চালিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন খুলনার কোচ মাহেলা জয়াবর্ধনে।

পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেও দিশা মিলছে না। তিন নম্বরে কেউই সুবিধা করতে পারছেন না। প্রথম ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে তিন নম্বরে ব্যাট করেছিলেন উইন্ডিজ অলরাউন্ডার কার্লোস ব্রাথওয়েট। পরের দুই ম্যাচে এই জায়গাটা সামলানোর দায়িত্বে ছিলেন মাইকেল ক্লিঞ্জার। ঢাকার বিপক্ষে ফিরতি ম্যাচে তিন নম্বরে আবারও পরিবর্তন। এবার উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ধীমান ঘোষের ওপর ভরসা করেছেন জয়াবর্ধনে। তবুও ভাগ্য বদলায়নি। 

যদিও এ নিয়ে চিন্তিত নন তিনি। কম্বিনেশন নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা জানানোর ব্যাপারে লঙ্কান এই কোচ বললেন, ‘ভিন্ন ভিন্ন কম্বিনেশন নিয়ে আমরা চেষ্টা করে যাব। একটি ম্যাচে ব্রাথওয়েট তিনে ব্যাট করেছে। ক্লিঞ্জার তিনে ছাড়াও ইনিংস উদ্বোধনে অভ্যস্ত। আমরা বিভিন্ন বিষয় নিয়ে পরীক্ষা চালাব। দেখব কাজে আসে কি না। কৌশলের সাথে প্রতিপক্ষ বিবেচনায় আপনাকে ভিন্ন ভিন্ন কম্বিনেশন মাথায় রাখতে হবে। কিছু সময় কাজে আসবে, কিছু সময় আসবে না।’ 

মঙ্গলবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথম ব্যাট করে ১৫৬ রান করেও সাকিব আল হাসানের ঢাকার বিপক্ষে লড়াই করেছে খুলনা। যদিও রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে চার উইকেটে হারতে হয়েছে তাদের। এই ম্যাচে মূলত প্রথম ১০ ওভারে পিছিয়ে পড়ে খুলনা। তিন উইকেট হারিয়ে ১০ ওভারে মাত্র ৪৭ রান তোলে চার ম্যাচের দুটিতে জয় পাওয়া খুলনা। এমন ব্যাটিংয়ের পেছনে প্রতিপক্ষ বোলারদের ভাল বোলিংয়ের কথা উল্লেখ করেছেন জয়াবর্ধনে।

আইপিএলের দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে শিরোপা জেতানো এই কোচ বলছেন, ‘আমার মনেহয় প্রত্যাশা অনুযায়ী ব্যাটিং করতে পারিনি আমরা। তাদের বোলিং আক্রমণ খুবই ভাল। তবে আমরা হয়তো এরচেয়ে আরও ভাল করতে পারতাম। কন্ডিশনের সাথে মানিয়ে নিয়ে ক্রিকেটারদের দলের প্রতি ভূমিকা রাখার ব্যাপারটি এখানে বড় ভূমিকা রাখে। নতুন একটি গ্রুপ আমরা। একটু সময় লাগবে। তবে আমি খুশি। সিলেটের প্রথম ম্যাচ ছাড়া তিন ম্যাচে আমরা ভাল ক্রিকেট খেলেছি।’