(প্রিয়.কম) মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ জেসিয়া ইসলাম। চীনে সুন্দরীদের মঞ্চে বাংলাদেশের প্রতিনিধি তিনিই। আর তাই বিশ্বের চোখে বাংলাদেশকে তুলে ধরার কাণ্ডারি এখন জেসিয়া। জানা গিয়েছে প্রতিযোগিতার বিভিন্ন ইভেন্টে পাহাড়িদের তৈরি থামি ও পাটের পোশাকে বিশ্ব সুন্দরীদের মঞ্চে উঠবেন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ। আয়োজক ও প্রতিযোগিতায় আসা অতিথিদের জন্য উপহারস্বরূপ পাটের তৈরি জিনিসপত্রের মধ্যে জেসিয়া যেসব জিনিস নিজের ঝুলিতে বয়ে নেবেন সেগুলো হচ্ছে- জুতা, সালোয়ার-কামিজ, ব্যাগ, মানিব্যাগ, মুঠোফোনের ব্যাগ, গয়নার বাক্স, পাটের জামদানি, পাটের ওপর মুদ্রিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি, রয়্যাল বেঙ্গলের ছবিসহ মোট ২২টি পদ।

সঙ্গে করে নিয়ে গিয়েছেন জামদানিও। আজ বাদে কাল ১৯ অক্টোবর চীনের উদ্দেশ্যে উড়বেন জেসিয়া। ১১৭ টি দেশের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত এই মহাযজ্ঞের নিজের ও নিজ দেশের শতভাগ মেলে ধরার উপযুক্ত প্রস্তুতি রয়েছে তার। পাহাড়িদের তৈরি বস্ত্র ছাড়াও পাশ্চাত্যের পোশাক ও গাউনও গায়ে জড়াবেন জেসিয়া। চীনে গিয়ে ডু অ্যান্ড নট টু ডু বিষয়াদি নিয়ে জেসিয়া দীক্ষা নিচ্ছেন ‘মিস ইন্ডিয়া’ প্রতিযোগিতার প্রশিক্ষক নয়নিকা চ্যাটার্জির কাছ থেকে। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নয়নিকার সঙ্গে দেদার যোগাযোগ রাখছেন তিনি। মূল প্রতিযোগিতায় প্রত্যেক দেশের প্রতিনিধিদের উপর দায়িত্ব বর্তেছে নিজ দেশের তথ্যচিত্র প্রদর্শন করার। যারা সেই তথ্যচিত্র তৈরি করে জেসিয়ার হাতে তুলে দেবেন, তারা এখনও কাজটি শেষ করে উঠতে পারেনি। তবে তথ্যচিত্র তৈরির কাজ চলছে। জেসিয়া সেখানে যাওয়ার আগেই তার হাতে তথ্যচিত্র পৌঁছে যাবে, এমন আশাবাদই ব্যক্ত করেছেন কর্তৃপক্ষ।

সানাইয়া শহরে মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত অনুষ্ঠান শুরু হবে ১৮ নভেম্বর চৈনিক স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায়।

প্রিয় বিনোদন/গোরা