অভিযোগকারী নারীর সাথে কথিত তরুন ও একজন এডমিনের কথোপকথনের স্ক্রিনশট

জাস্টিস ফর উইমেনের এডমিনের বিরুদ্ধে নারী নিগ্রহকারীকে সমর্থন দেওয়ার অভিযোগ

শুক্রবার দেওয়া ওই ফেসবুক পোস্টে তাসফিয়া জানান, এক তরুণ তাকে ফেসবুকের মেসেঞ্জারে আপত্তিকর ভিডিও ও মেসেজ পাঠান। ওই তরুণের ফেসবুকে ঢুকে তিনি জানতে পারেন তিনি জাস্টিস ফর উইমেন পেজের একজন সদস্য।

মিজানুর রহমান
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৩:০৩ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ১৫:০০


অভিযোগকারী নারীর সাথে কথিত তরুন ও একজন এডমিনের কথোপকথনের স্ক্রিনশট

(প্রিয়.কম) নানা ধরণের পারিবারিক, সামাজিক ও যৌন নির্যাতন ও নিগ্রহের শিকার নারীদের নিয়ে কজ করা ফেসবুকভিত্তিক গ্রুপ ‘জাস্টিস ফর উইমেন’ এর এক সদস্যের বিরুদ্ধে নারী নিগ্রহেরর অভিযোগ তুলেছেন তাসফিয়া তাবাসসুম নামের এক নারী। 

এ ব্যাপারে সহায়তা চেয়ে ওই গ্রুপে পোস্ট দিয়ে গ্রুপটির এক এডমিনের কাছ থেকে উল্টো হয়রানির শিকার হয়েছেন বলেও দাবি করেছেন ওই নারী। 

শুক্রবার দেওয়া ওই ফেসবুক পোস্টে তাসফিয়া জানান, এক তরুণ তাকে ফেসবুকের মেসেঞ্জারে  আপত্তিকর ভিডিও ও মেসেজ পাঠান। ওই তরুণের ফেসবুকে ঢুকে তিনি জানতে পারেন তিনি জাস্টিস ফর উইমেন পেজের একজন সদস্য। বিষয়টির প্রতিকার চেয়ে জাস্টিস ফর উইমেন গ্রুপে পোস্ট দেন তিনি। কিন্তু সাথে সাথে তার পোস্টটি ডিলিট করে গ্রুপটির একজন এডমিন তার সাথে যোগাযোগ করে বলেন,  নিগ্রহকারী ওই সদস্যের বিরুদ্ধে তারা নিজেরাই গ্রুপে পোস্ট দিবে। 

তাসফিয়ার পুরো ফেসবুক স্ট্যাটাসটি দেওয়া হলো-

“জাস্টিস ফর উইমেন - JWBD ! যারা দাবি করেন, নারীদের যেকোনো অনলাইন ও অফলাইন সমস্যায় আইনি সহায়তা দিয়ে থাকেন! কিন্তু নিজেদের মেম্বার রিক্রুটমেন্ট করেন বাছ-বিচার ছাড়াই। এই ভাইসাহেব আমাকে পরপর তিনদিন নক দিয়ে পাত্তা না পেয়ে একটা আপত্তিকর ভিডিও পাঠান যার লিংক এখন Expired। পরে আবার লেখেন 'send nudes' । আমি তার Bio তে দেখলাম তিনি justice for women er সক্রিয় এবং গর্বিত সদস্য। তাই এই মহান গ্রুপে তাদেরই মেম্বারের কুকর্ম পোস্ট দিলাম এবং সাথেসাথে ডিলিট করে আমাকে ইনবক্স করলেন এক এডমিন। আশ্বাস দিলেন, তার ব্যাপারে নাকি পোস্ট যাবে। অবশ্য একটু করে ভয় দেখালেন যে, আমার নাম মেনশন করলে একশো মেসেজ আসবে ইনবক্সে। বললাম, ঝামেলা নাই। I was very nice to them! কিন্তু বিপত্তি টা বাধলো তখনি যখন আমার আইডিতে এত রিপোর্ট পড়লো যে আমি কাউকেই কোনো ছবি ইনবক্স করতে পারছিনা আর! এবং আমার আইডি থেকে ওই ছেলের মেসেজ ডিলিটেড!

জাস্টিস ফর উইমেন

অবিশ্বাস্য না?? এত এত নারীর হেল্প করেছেন বলে যারা গলা ফাটান। তারাই নিজেদের কর্মীকে শাস্তি না দিয়ে, আমার আইডির পেছনে লাগসেন।

Update: [এই পোস্ট করার পরে dsd থেকে আমার পোস্ট delete করা হয় এবং JWBD গ্রুপে আমাকে উদ্দেশ্য করে পোস্ট দিয়ে বলা হয় আমি নাকি কার না কার টাকা খেয়ে এ কাজ করেছি।

উনাদের এক ভলান্টিয়ারের ব্যাপারে পোস্ট দিতে গিয়ে একজন Admin এর কাছেই হ্যারাসড হয়ে গেলাম। আমিই আপডেট দিয়েছিলাম তারা নাকি ব্যবস্থা নিবে। অথচ তারা এখনো তাদের ভলান্টিয়ারকে নিয়েই কোনো পোস্ট দেননি। ওই Admin টার ক্ষমা চাওয়া তো দূরের ব্যাপার।”

বিষয়টি নিয়ে ‘ডেসপারেটলি সিকিং-ঢাকা (ডিএসডি)’ নামের ফেসবুকের আরেকটি জনপ্রিয় গ্রুপে পোস্ট দিয়েও হয়রানির শিকার হয়েছেন বলে দাবি করেছেন তাসফিয়া। তাসফিয়ার পোস্টের প্রেক্ষিতে ডিএসডি গ্রুপের ‘দিয়াস ড্যানিয়েল জুয়েল’ নামের একজন এডমিন তাসফিয়াকে ক্ষমা চাওয়ার কথাও বলে। তার পোস্টের স্ক্রিনশটটি নিচে দেওয়া হলো-

ডিএসডি

 

প্রিয় সংবাদ/মিজান

 

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
ডেলিভারি সুবিধাও চালু করবে সহজ
রাকিবুল হাসান ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বাংলালিংকের চ্যাটবট ‘মিতা’
প্রিয় ডেস্ক ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
১ অক্টোবর থেকে চালু হচ্ছে এমএনপি সেবা
রাকিবুল হাসান ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
উইন্ডোজ ও ম্যাকের জন্য আসলো মাইক্রোসফট অফিস ২০১৯
ফারজানা মাহাবুবা ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
ইনস্টাগ্রামের দুই সহপ্রতিষ্ঠাতার পদত্যাগ
ফারজানা মাহাবুবা ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট