অনন্ত জলিল। ছবি: সংগৃহীত

‘মুফতি উসামা আমার সিনেমার সাথে জড়িত নন’

‘আরেকটি বিষয় যেটি পরিষ্কার হওয়া প্রয়োজন মনে করি। সেটি হলো, মুফতি উসামা ইসলাম কোনোভাবেই আমার এই সিনেমার সাথে জড়িত নন।’

শিবলী আহমেদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০৭ মে ২০১৮, ১৬:১৯ আপডেট: ১৭ আগস্ট ২০১৮, ১৪:০০
প্রকাশিত: ০৭ মে ২০১৮, ১৬:১৯ আপডেট: ১৭ আগস্ট ২০১৮, ১৪:০০


অনন্ত জলিল। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ইসলামি তথ্য নির্ভর সিনেমা নির্মাণ করবেন অনন্ত জলিল। ইসলাম ধর্ম যে সন্ত্রাসবাদ জঙ্গিবাদ সমর্থন করে না, সেসব তথ্য থাকবে তার সিনেমায়। এসব তথ্য নতুন নয়। নতুন তথ্য হচ্ছে, তার সিনেমার নাম নিয়ে অনেকেই বিভ্রান্ত হচ্ছেন। আর তাই সেই বিভ্রান্তি দূর করতে ৬ মে রবিবার নিজ ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। সেখানেই তিনি লিখেছেন, ‘মুফতি উসামা ইসলাম কোনোভাবেই আমার এই সিনেমার সাথে জড়িত নন।’

তিনি তার স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘বন্ধুগণ, আসসালামু আলাইকুম। আশা করি আল্লাহর রহমতে আপনারা সবাই ভালোই আছেন। আমিও আল্লাহর রহমতে এবং আপনাদের দোয়ায় ভালো আছি।

আপনার হয়তো ইতোমধ্যেই জেনেছেন যে, আমি একটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করব। আমি বাংলাদেশে প্রথম ডিজিটাল চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছিলাম, আর আশা করি এবারও বাংলাদেশে প্রথম ইসলামিক জীবন-যাত্রা ও তথ্য নির্ভর চলচ্চিত্র নির্মাণ করব।

ইসলামিক তথ্য নির্ভর চলচ্চিত্রটিতে থাকবে ইসলাম নিয়ে অসংখ্য ম্যাসেজ। যেমনটি নির্মাণ করে ইসলামিক দেশগুলোতে। আমরা জানি ইসলাম কখনোই সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গীবাদ সর্মথন করে না। আর এই তথ্যটিই আমি আমার চলচ্চিত্রের মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলতে চাই। অনেকেই চলচ্চিত্রের নাম নিয়ে বিভ্রান্ত হচ্ছেন। কিন্তু আমার চলচ্চিত্রের নামটি হবে, ‘দিন-দ্য ডে’। কেউ কেউ মনে করছেন চলচ্চিত্রটির নাম ‘দ্বীন’, আসলে তা না।’

অনন্ত আরও লিখেছেন, ‘আরেকটি বিষয় যেটি পরিষ্কার হওয়া প্রয়োজন মনে করি। সেটি হলো, মুফতি উসামা ইসলাম কোনোভাবেই আমার এই সিনেমার সাথে জড়িত নন। আমি যে বলেছিলাম সিনেমার গল্প ভাবনা আমার ও মুফতি উসামা ইসলামের। আসলে কথাটি এভাবে বুঝাতে চেয়েছিলাম যে, মুফতি উসামা ইসলামের বিভিন্ন বয়ানে আমি এটা শুনেছি ইসলাম শান্তির ধর্ম, সন্ত্রাসবাদ ইসলাম ছড়ায় না। উনার কথা থেকে আমার মাথায় আসে যে পুরা দুনিয়ার মানুষকে এটা জানানো দরকার ইসলাম শান্তির ধর্ম, ইসলামে সন্ত্রাসের কোনো জায়গা নেই এই কথা বোঝানোর জন্য আমি বলেছিলাম সিনেমার গল্প ভাবনা আমার ও মুফতি ওসামা ইসলামের।’

কবে নাগাদ তিনি চলচ্চিত্রটি নির্মাণ শুরু করবেন, সেই উত্তরও পাওয়া যায় তার স্ট্যাটাসের শেষাংশে। সেখানে অনন্ত লিখেছেন, ‘আমার ব্যবসা ও অন্যান্য কাজের পাশাপাশি চলচ্চিত্রটির কাজ সম্পন্ন করতে একটু সময় লাগবে, তবে সময়মত চলচ্চিত্রের সকল তথ্য আপনাদের কাছে আমি উপস্থাপন করব। আশাকরি আপনারা আমার পাশে থেকে উৎসাহ দেবেন। খোদা হাফেজ।’

মুফতি উসামা ইসলাম ঢাকার একটি মসজিদের ইমাম। তিনি হ্যাপি ও ক্রিকেটার রুবেলের ঘটনার সময় থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিচিত।

প্রিয় বিনোদন/গোরা 

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...