(প্রিয়.কম) যদি আপনাকে প্রশ্ন করা হয়- ক্লাস ফাঁকি দিয়ে কী কী করেছেন তবে কি সেখানে ছবি তোলার কথাটি থাকবে? মুহাম্মাদ মুহিত এর ফটোগ্রাফির শুরু এই ক্লাস ফাঁকি দিয়েই! ২০১৩ সালের শেষের দিকে ক্লাস ফাঁকি দিয়ে তার বন্ধু নিলয়ের ক্যামেরা হাতে নিয়ে ছবি তোলার উদ্দেশ্যে বের হয়ে পড়েছিলেন মুহিত। সেই থেকেই তার অসাধারণ সব ছবি তোলার যাত্রা শুরু!

মুহিত ছবি ১

ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি থেকে মার্কেটিং নিয়ে বিবিএ শেষ করে বর্তমানে পারিবারিক ব্যবসা দেখাশোনার কাজ করছেন মুহিত। তবে তার শত ব্যস্ততা ও কাজের মাঝে ছবি তোলা থামেনি কখনোই। মুহিত জানান, তার ছবি তোলা হয় একেবারেই নিজের শখ থেকে, নিজের ভালোলাগা থেকে।

মুহিত ছবি ২

“যাদের ইচ্ছার সামনে রয়েছে প্রতিকূলতা এবং বাধা, তারাও চেষ্টা করলে অবশ্যই এগিয়ে যেতে পারবেন” কথাটি বলেছেন মুহিত। তিনি অনেকটা নিজে পরিবারের অমতে গিয়ে ছবি তোলা শুরু করেছিলেন এবং এখনও তুলে যাচ্ছেন। তার মতে, যার মাঝে প্রবল আগ্রহ ও জানার আকাঙ্ক্ষা  রয়েছে তিনি অবশ্যই নিজের ইচ্ছাপূরণ করতে সমর্থ হবেন।

মুহিত ছবি ৩

এভাবেই তিনি নিজের শখ, নিজের ভাললাগার কাজকে নিয়ে সামনে এগিয়ে যাচ্ছেন। এতগুলো বছর ধরে ছবি তোলা হলেও কখনোই পেশাদারী ফটোগ্রাফি করা হয়নি মুহিতের। এ কারণে তার ওয়েডিং ফটোগ্রাফি করা হয়েছে খুব কম।

মুহিত ছবি ৪

অনেকের ক্ষেত্রে দেখা যায়, একদম ছোটবেলা থেকেই টুকটাক ছবি তোলার অভ্যাস থাকে। এক্ষেত্রে মুহিত ব্যতিক্রম। ছোটবেলায় তেমন ছবি তোলা হয়নি কখনোই তার। তবে মাধ্যমিক পরীক্ষার পরে অবসর সময়ে মুহিতের মা তাদের দুইভাইকে একসাথে ‘অ্যাডোব ফুল কোর্স’ এ ভর্তি করিয়ে দেন। ছবি নিয়ে কাজ শেখা শুরু হয় সেখান থেকেই।

মুহিত ছবি ৫

এই ক্ষেত্রে কোন প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা মুহিতের না থাকলেও তার কাজিন কাজী আকিফ আহমেদ এবং ফটোগ্রাফার নাফিস আমিন তাকে ছবি তোলার ক্ষেত্রে সবসময় অনেক সাহায্য করেছেন বলে তিনি জানান।

মুহিত ছবি ৬

তার তোলা নয়নাভিরাম সকল ছবি তিনি দেশে এবং বিদেশের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে ঘুরে তুলেছেন। নিজ দেশে সুন্দর এবং ঘুরতে যাবার মত সকল স্থানেই ছবি তুলতে গিয়েছেন তিনি। দেশের বাইরে ভারতের আহমেদাবাদ, আগ্রা, গুজরাট, কলকাতা, দিল্লিতেও গিয়েছেন।

মুহিত ছবি ৭

এছাড়াও থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর এবং চীনে ঘুরেছেন তিনি। বিভিন্ন দেশে শুধুমাত্র কাজের জন্য গিয়েছেন কিংবা ঘুরতে গিয়েছেন এমন নয়, এসব দেশের বিভিন্ন স্থানের দারুণ ছবিও তুলেছেন তিনি।

মুহিত ছবি ৮

এছাড়াও দেশে এবং বিদেশে বিভিন্ন ফটোগ্রাফি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেছেন তিনি। নিজ দেশে তার তোলা ছবি প্রদর্শিত হয়েছে মোট চারবার। এরই সাথে ভারতে ও প্যারিসের বিখ্যাত ল্যুভর মিউজিয়ামেও তার তোলা ছবি প্রদর্শিত হয়েছে।

মুহিত ছবি ৯

ভারতে প্রদর্শিত হয় মুহাম্মাদ মুহিতের এই ছবি।

নিজের আগ্রহ, ভালোলাগা তো বটেই জ্ঞান অর্জনের জন্য, পৃথিবী সম্পর্কে জানার জন্য, পৃথিবীর নানান দেশের বিভিন্ন মানুষ সম্পর্কে জানার জন্যেও ছবি তুলতে ভালোবাসেন মুহিত। তার ছবি তোলার ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট কোন বিষয় নেই। যখন যা ভালো লাগে, তখন সেটার, সেই মুহূর্তের, সেই স্থানের ছবি তুলে ফেলেন তিনি।

মুহিত ছবি ১০

মুহিতের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল তার ছবি তোলার ক্ষেত্রে অনুপ্রেরণা কে অথবা কী? উত্তরে তিনি জানান, তার অনুপ্রেরণা হলো তার আগের ভালো লাগার কাজ! কারণ তিনি মনে মনে ঠিক করে নেন তার তোলা পরবর্তি ছবি যেন বর্তমান ভালো লাগার ছবির চাইতেও অনেক বেশী ভালো হয়, দারুণ হয়। যা তাকে আরো ভালো ছবি তোলার ক্ষেত্রে অনুপ্রেরণা দেয়।

মুহিত ছবি ১১

নিজ দেশে সৌমিন শাহরিদ জাভিন ও রাহুল তালুকদার এর তোলা ছবি তার প্রিয়। বাইরের দেশের ফটোগ্রাফারের মাঝে সাদমান আল মাজীদ এর তোলা ছবি তার পছন্দের। ছবি তোলার ক্ষেত্রে মুহিত বর্তমানে ব্যবহার করছেন নিকন এর ৮১০। তবে ছবি তোলার শুরুর দিকে তিনি নিকন এর ডি-৭১০০ ব্যবহার করতেন।

মুহিত ছবি ১২

ফটোগ্রাফি নিয়ে, ছবি তোলা নিয়ে অনেক বড় কোন পরিকল্পনা তার নেই। ছবি তোলার ব্যাপারটা সম্পুর্ণই তার শখ, ভালোলাগা থেকে। যে কোন বিষয়ের উপরে ছবি তুলতেই ভালোবাসেন বলে সবসময় ছবি তুলে যেতে চান তিনি।

সম্পাদনা: কে এন দেয়া