মিয়ানমার যুদ্ধ বাঁধাতে চেয়েছিল: বিজিবি মহাপরিচালক

রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের সময় মিয়ানমার উসকানি দিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে যুদ্ধে জড়াতে চেয়েছিল বলে মন্তব্য করেছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন।

মোস্তফা ইমরুল কায়েস
নিজস্ব প্রতিবেদক
১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, সময় - ১৯:৫৬

ইয়াবা নিয়ন্ত্রণ একটি বাহিনীর পক্ষে সম্ভব নয় বলেও জানান বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন। ছবি: শামীম আহমেদ

(প্রিয়.কম) রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের সময় মিয়ানমার উসকানি দিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে যুদ্ধে জড়াতে চেয়েছিল বলে মন্তব্য করেছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আবুল হোসেন

১১ ফেব্রুয়ারি রবিবার দুপুরে রাজধানীর পিলখানায় বিজিবির সদর দফতরে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য বলেন।

তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গা ইস্যু সৃষ্টির পর মিয়ানমার ১৮ বার সীমান্ত অতিক্রম করেছে। তাদের উদ্দেশ্য ছিল যুদ্ধ বাঁধিয়ে অশান্ত পরিবেশ তৈরি করা। ওই সময় আমরা উত্তেজিত হলে যে কোনো সময় যুদ্ধ বেঁধে যেত।’

রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে আবুল হোসেন বলেন, ‘আমরা ১০ লাখ রোহিঙ্গাকে সুন্দরভাবে ম্যানেজ করেছি। সে জন্য আমাদের ফোর্সের মধ্যে কুইক রিয়েকশন ফোর্স চালু করতে চাচ্ছি। আমাদের পর্যায়ক্রমে ৫৩৯ কিলোমিটার বর্ডার অরক্ষিত ছিল। আরও ২০টি ভিওপি করলে পুরো কভার করবে। আমাদের দেশে ২০৪১ সালে সমৃদ্ধশালী হবে। সেভাবেই আমরা ১৫ হাজার ফোর্স দিয়ে তিন বছর চলব। পরে আবারও বাড়াব।’

শুধু বিজিবির পক্ষে ইয়াবা নিয়ন্ত্রণ সম্ভব নয় মন্তব্য করে আবুল হোসেন বলেন, ‘ইয়াবা নিয়ন্ত্রণ একটি বাহিনীর পক্ষে সম্ভব নয়। এটা পরিবারসহ সামাজের সবার দায়িত্ব। ইয়াবা মিয়ানমারে তৈরি হয়। ওখানে সবাই এর সঙ্গে জড়িত। এর সঙ্গে রোহিঙ্গারাও জড়িত থাকে। এ ছাড়াও আমাদের দেশের কিছু ব্যক্তিও জড়িত।’

‘সুনির্দিষ্ট তথ্য থাকলে আমরা তাদের গ্রেফতার করে থাকি। আমরা শুধু সীমান্তে কাজ করে এ পর্যন্ত এক কোটির বেশি ইয়াবা ইতোমধ্যে ধরেছি। আমাদের আরেকটু সময় দেন তাহলে ইয়াবা নিয়ন্ত্রণে আনতে পারব’, যোগ করেন আবুল হোসেন।

বিজিবির মহাপরিচালক বলেন, ‘চার হাজার ৪২৭ কিলোমিটার বর্ডারে আমাদের দুটি প্রতিবেশী দেশ রয়েছে। সবার সঙ্গে ভালো সম্পর্ক বজায় রেখেই আমরা বন্ধুত্বমূলক পলিসি গ্রহণ করেছি।’

সীমান্তে সরকার নারী-শিশু পাচার ও চোরাচালান বন্ধ করতে বিজিবিকে যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সেই দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

প্রিয় সংবাদ/আজাদ/রিমন

 

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


স্পন্সরড কনটেন্ট
জনপ্রিয়
আরো পড়ুন