প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি

নজরুল ছিলেন অসাম্প্রদায়িকতার মূর্ত প্রতীক: প্রধানমন্ত্রী

কবি নজরুল তার প্রত্যয়ী ও বলিষ্ঠ লেখনীর মাধ্যমে এ দেশের মানুষকে মুক্তিসংগ্রামে অনুপ্রাণিত করেছেন, জাগ্রত করেছেন বাঙালি জাতীয়তাবোধ।

শেখ নোমান
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২৪ মে ২০১৮, ২২:০৪ আপডেট: ১৯ আগস্ট ২০১৮, ০২:৪৮


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি

(ইউএনবি) কাজী নজরুল ইসলাম অসাম্প্রদায়িকতার মূর্ত প্রতীক ছিলেন বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

কবি নজরুলের ১১৯তম জন্মবার্ষিকীর আগের দিন ২৪ মে, বৃহস্পতিবার দেওয়া এক বাণীতে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

‘জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম ছিলেন অসাম্প্রদায়িকতা ও জাতীয়তাবোধের মূর্ত প্রতীক। অত্যাচার, নিপীড়ন ও শোষণের বিরুদ্ধে ছিলেন উচ্চকণ্ঠ। তার শিকল ভাঙার গানে জেগে উঠেছিল ঝিমিয়ে পড়া বাঙালি জাতি। নজরুলের লেখনী বৃটিশবিরোধী আন্দোলনে এ উপমহাদেশের মানুষকে উজ্জীবিত করেছিল। সংগ্রাম করে প্রগতির পথে এগিয়ে চলার সাহস জুগিয়েছিল’, বলেন প্রধানমন্ত্রী।

জাতীয় কবির স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলা সাহিত্যের বিস্ময়কর এক প্রতিভা জাতীয় জাগরণের কবি কাজী নজরুল ইসলাম। মানবতা ও সাম্যের কবি নজরুল আমাদের প্রাণের কবি। বাংলা সাহিত্যে তার রচনার বিদ্রোহী চেতনার যেমন অসামান্য রূপায়ন ঘটেছে, তেমনি প্রেম-প্রকৃতি ও নৈসর্গিক সৌন্দর্যবোধ প্রতিফলিত হয়েছে।

কবি নজরুল তার প্রত্যয়ী ও বলিষ্ঠ লেখনীর মাধ্যমে এ দেশের মানুষকে মুক্তিসংগ্রামে অনুপ্রাণিত করেছেন, জাগ্রত করেছেন বাঙালি জাতীয়তাবোধ। বিদ্রোহী কবির অগ্নিঝরা কবিতা ও গান আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে ছিল অনন্ত প্রেরণার উৎস।’

‘বাংলাদেশের প্রকৃতি, মানুষ ও মানুষের অকৃত্রিম ভালোবাসা নজরুলকে গভীরভাবে আকর্ষণ করেছিল এবং তিনি এ দেশের মানুষের সাথে ঘনিষ্ঠ ও প্রীতিপূর্ণ আত্মিক সম্পর্ক গড়ে তুলেছিলেন’, বলেন শেখ হাসিনা।

নতুন প্রজন্ম নজরুল চর্চার মাধ্যমে নিজেদের সমৃদ্ধ করে দেশপ্রেম ও সততা দিয়ে অসাম্প্রদায়িক, বৈষম্যহীন, শোষণমুক্ত ও শান্তিপূর্ণ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রিয় সংবাদ/আজহার

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
রাজধানীতে ৪০৯টি ঈদ জামাত
আবু আজাদ ১৯ আগস্ট ২০১৮
শিক্ষার্থীদের জামিন মিললেও শঙ্কায় অভিভাবকরা
আমিনুল ইসলাম মল্লিক ১৯ আগস্ট ২০১৮
গুজব-মিথ্যাচার শক্ত হাতে দমন করা হবে: ইনু
জানিবুল হক হিরা ১৯ আগস্ট ২০১৮
ট্রেন্ডিং