(প্রিয়.কম) ভবিষ্যতে এগিয়ে থাকার জন্য নতুন প্রযুক্তি গ্রহণ করার আহ্বান জানিয়েছেন মাইক্রোসফট বাংলাদেশ, নেপাল, ভুটান ও লাওসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোনিয়া বশির কবির

শ্রেণিকক্ষে ডিজিটাল প্রযুক্তির গুরুত্ব অনুধাবন করার লক্ষ্যে সম্প্রতি মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে অনুষ্ঠিত বেট (ব্রিটিশ অ্যাডুকেশনাল ট্রেনিং অ্যান্ড টেকনোলজি) এশিয়া সামিটে অংশ নিয়ে তিনি এ আহ্বান জানান।

সোনিয়া বশির কবির বলেন, ‘বাংলাদেশের শিক্ষাখাতে সত্যিকার অর্থেই ডিজিটালকরণের দিকে এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে এ গবেষণায় প্রাপ্ত তথ্যের ওপর আমাদের অগ্রাধিকার দিয়ে প্রতিবন্ধকতাগুলো দূর করা উচিৎ। এখনই সময়, ভবিষ্যতে এগিয়ে থাকার জন্য আমাদের নতুন প্রযুক্তি গ্রহণ করে এর সম্পূর্ণ সুবিধা গ্রহণ করা।’

সামিটে অংশ নিয়ে মাইক্রোসফট এশিয়া প্যাসিফিকের অ্যাডুকেশন বিভাগের ডিরেক্টর ডন কার্লসন বলেন, ‘ডিজিটাল ডিসরাপশনের ফলে কাজের ধরন ও পরিচালনায় অনেক পরিবর্তন এসেছে। শিক্ষার্থীদের সৃষ্টিশীলতা ও বিশ্লেষণী চিন্তার উন্নয়ন ঘটানোর মতো বিষয়গুলো নিয়ে তাদের ভবিষ্যতের দক্ষতার বিষয়ে প্রস্তুত করে তুলতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর রূপান্তর প্রয়োজন। শিক্ষাখাতে ডিজিটাল রূপান্তর নিয়ে মাইক্রোসফটে আমাদের সুস্পষ্ট ও সুনির্দিষ্ট ধরন রয়েছে। আমাদের বিশ্বাস, চারটি মূল বিষয়ের মধ্যে এ রূপান্তর অন্তর্ভুক্ত। বিষয়গুলো হচ্ছে: শিক্ষক ও শিক্ষাসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের ক্ষমতায়ন, শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ততা, প্রতিষ্ঠানের অনুকূলকরণ এবং ডাটা ও ক্লাউড মূল চালিকাশক্তি ধরে শিক্ষার রূপান্তর।’ 

উল্লেখ্য, সামিটে শিক্ষাখাত ডিজিটালে রূপান্তর এবং যুগান্তকারী উদ্ভাবন বিষয়ে আলোচনা করেন অংশগ্রহণকারীরা। আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু ছিল ডিজিটাল ভবিষ্যতের জন্য শিক্ষার্থীদের কতখানি এবং কিভাবে প্রস্তুত করা যায়।

প্রিয় টেক/আরএ