ছবি সংগৃহীত

‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ সমাপ্ত, তিন জঙ্গি নিহত

শনিবার অভিযান শেষে ঘটনাস্থলে আয়োজিত এক প্রেসব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ০১ এপ্রিল ২০১৭, ০৬:৪৫ আপডেট: ১৬ আগস্ট ২০১৮, ১৮:৩২
প্রকাশিত: ০১ এপ্রিল ২০১৭, ০৬:৪৫ আপডেট: ১৬ আগস্ট ২০১৮, ১৮:৩২


ছবি সংগৃহীত

অভিযানের সময় পুলিশের আর্মড কার ঢুকে পড়ে বাড়ির সীমানায়, ছবি: স্টার মেইল

(প্রিয়.কম) মৌলভীবাজার শহরের বড়হাটের জঙ্গি আস্তানায় পরিচালিত ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ সমাপ্ত ঘোষণা করেছে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। ওই অভিযানে তিন জঙ্গি নিহত হয়েছেন।

১ এপ্রিল শনিবার অভিযান শেষে ঘটনাস্থলে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে অভিযান শেষ করার ঘোষণা দেন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম।

তিনি জানান, ওই অভিযানে বাড়িটিতে থাকা নারীসহ তিন জঙ্গি নিহত হয়েছেন।

মনিরুল দাবি করেন, নিহত জঙ্গিদের মধ্যে একজন সিলেটের আতিয়া মহলের পাশে বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে মৌলভীবাজারে চলে আসে।

তিনি বলেন, জঙ্গিদের বারবার তারা আত্মসমর্পণ করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। কিন্তু তারা তাতে সাড়া দেয়নি। যখনই সোয়াত ঘটনাস্থলের কাছে যাওয়ার চেষ্টা করেছে, তখনই বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে।

তিনি বলেন, অভিযান সফলভাবে শেষ হয়েছে।

গত ২৯ মার্চ বুধবার ভোররাত থেকে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে মৌলভীবাজার পৌরসভার বড়হাট এলাকায় একটি বাড়ি ও খলিলপুর ইউনিয়নের সরকার বাজার এলাকার নাসিরপুর গ্রামের একটি বাড়ি ঘিরে রাখে পুলিশ। ওই সময় পুলিশ জানায়, নাসিরপুরের অভিযান শেষে বড়হাটে অভিযান চালানো হবে। বুধবার সন্ধ্যায় নাসিরপুরের জঙ্গি আস্তানায় সোয়াত টিম অভিযান শুরু করে। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া এবং আলোক স্বল্পতার কারণে রাত ১০টার পর এ অভিযান সকাল পর্যন্ত স্থগিত রাখা হয়। পরে ৩০ মার্চ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার পর ‘অপারেশন হিট ব্যাক’ দ্বিতীয় দফায় শুরু হয়ে সন্ধ্যা নাগাদ শেষ হয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে চার শিশু এবং দুই নারীসহ সাতজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নাসিরপুরে অভিযান শেষ হতে সন্ধ্যা হয়ে যাওয়ায় ৩১ মার্চ শুক্রবার সকাল ৯টা ৫২ মিনিটে বড়হাটের জঙ্গি আস্তানায় ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ নামে অভিযান শুরু করে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট ও সোয়াত টিম। অভিযান শুরুর পর থেকে থেকে বিস্ফোরণ ও গুলির শব্দ শোনা যায়। অন্ধকার হয়ে যাওয়ায় শুক্রবার সন্ধ্যায় অভিযান স্থগিত ও শনিবার সকালে অভিযান শুরুর কথা জানান মনিরুল ইসলাম। সেই অনুযায়ী শনিবার সকালে অভিযান শুরু হয়।

প্রিয় সংবাদ/কামরুল/জন

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...