ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশে চালু হওয়ার তথ্য নেই পেপালের কাছেও!

বাংলাদেশে এ সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে পেপাল কর্তৃপক্ষ বলেছে, বাংলাদেশে তাদের অপারশেন শুরুর কোনো তথ্য তাদের কাছে নেই! এমনকি ভবিষ্যতেও এ সেবা বাংলাদেশে চালু হবে কিনা, তাও বলতে পারছে না পেপাল কর্তৃপক্ষ!

মিজানুর রহমান
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৬ অক্টোবর ২০১৭, ১৭:৫২ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ১৪:৩২
প্রকাশিত: ১৬ অক্টোবর ২০১৭, ১৭:৫২ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ১৪:৩২


ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) অনলাইনভিত্তিক অর্থ স্থানান্তরের জনপ্রিয় মাধ্যম পেপাল বাংলাদেশে চালু হতে যাচ্ছে, এমন সংবাদ তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জানালেও পেপাল কর্তৃপক্ষ বলছে, এ বিষয়ে তাদের কিছু জানা নেই। ভবিষ্যতেও বাংলাদেশে এমন সেবা চালু হবে কিনা, তা সম্পর্কেও কিছু জানাতে পারেনি পেপাল।

গত ৯ অক্টোবর এক অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানান, আগামী ১৯ অক্টোবর পেপাল বাংলাদেশে চালু হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় এটির উদ্বোধন করবেন বলেও জানান তিনি।

এ নিয়ে পেপাল হেড কমিউনিকেশনস (ইন্ডিয়া) পূজা সাভারওয়াল এক ই-মেইলে প্রিয়.কমকে জানিয়েছেন, বাংলাদেশে পেপাল চালু হওয়ার কোনো তথ্য তাদের কাছে নেই। ভবিষ্যতে চালু হবে কিনা, তাও জানাতে পারেননি তিনি। তবে পেপালের একটি সেবা জুম (Xoom) ২০১৫ সালের নভেম্বর থেকে সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে চালু আছে বলেও জানান তিনি।

জুমের মাধ্যমে ইতোমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র থেকে বাংলাদেশে অর্থ লেনদেন করাও হচ্ছে বলে জানান পূজা সাভারওয়াল। 

স্ক্রিনশট

প্রিয়.কমের সঙ্গে মেইল আদান-প্রদান হয় পূজা সাভারওয়ালের।

দীর্ঘ দিন ধরেই পেপালের বাংলাদেশে আসা নিয়ে জল্পনা-কল্পনা চলছিল। পেপালের প্রতিনিধিরা যেমন বাংলাদেশে এসেছিলেন, তেমনি এ বছরের এপ্রিলে প্রতিমন্ত্রী পলকও পেপালের সদর দপ্তরে গিয়ে আলোচনা করেছেন। পরে ৯ অক্টোবর এক অনুষ্ঠানে তিনি জানান, দেশে এ সেবা উন্মুক্ত হতে যাচ্ছে।

প্রাথমকিভাবে সোনালী, রূপালী ব্যাংকসহ নয়টি ব্যাংকের ১২ হাজার শাখায় পেপাল সেবা পাওয়া যাবে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী।

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘ডিজিটাল লেনদেন, ক্যাশলেস সোসাইটির দিকে যাচ্ছি আমরা। ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনের ক্ষেত্রে এ ধরনের সেবা চালু করা গুরুত্বপূর্ণ।’

দেশের ফ্রিল্যান্সাররা দীর্ঘদিন ধরেই এ সেবাটি চালুর অপেক্ষায় রয়েছেন। পেপাল চালু হলে ফ্রিল্যান্সারদের অনেক উপকার হবে বলে মনে করছেন অনেকে।

পেপাল বাংলাদেশে আসা না আসা নিয়ে ধোঁয়াশায় সময় পার করছেন এখানকার ফ্রিল্যান্সাররাও। তারা বলছেন, পেপাল বাংলাদেশে আসছে এমন কোনো তথ্য তাদের কাছেও নেই।

প্রিয় টেক/মিজান

 

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...