ছবি সংগৃহীত

দেশী রসুন বাজারে আসায় নিম্নমুখী দাম- বণিক বার্তা

বিশ্ববাজারের দাম ওঠানামা ও আমদানির ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে রসুনের বাজার। দেশের উত্তরাঞ্চল থেকে আসা এসব রসুন কাঁচা থাকায় বেশি দিন সংরক্ষণ করা যাবে না।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ০২ মার্চ ২০১৭, ০৬:০৩ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২৩:০০
প্রকাশিত: ০২ মার্চ ২০১৭, ০৬:০৩ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২৩:০০


ছবি সংগৃহীত

ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) ভোগ্যপণ্যের বাজারে দীর্ঘদিন চীনা রসুনের একচেটিয়া ব্যবসা থাকলেও দু-তিন সপ্তাহ ধরে নতুন মৌসুমের দেশী রসুন বাজারে আসায় পণ্যটির দাম নিম্নমুখী হয়েছে। তবে, স্বাদ ও মান ভালো হওয়ার পরও দেশী রসুনের চেয়ে তিন গুণ বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে আমদানিকৃত চীনা রসুন।

২ মার্চ বণিক বার্তায় প্রকাশিত ‘দেশী রসুন বাজারে আসায় নিম্নমুখী দাম’ শীর্ষক এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি অর্থবছরের প্রথম আট মাসে চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে চীনা রসুনের দাম ছিল ১৫০-২০০ টাকার মধ্যে। এ সময় দেশী রসুনের সরবরাহ সংকটে একচেটিয়া মুনাফা করেছেন চীনা রসুন আমদানিকারকরা। এদিকে, ঊর্ধ্বমুখী দামের কারণে দেড়-দুই মাস ধরে ভারত থেকেও রসুন আমদানি হয়েছে।

বিশ্ববাজারের দাম ওঠানামা ও আমদানির ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে রসুনের বাজার। দেশের উত্তরাঞ্চল থেকে আসা এসব রসুন কাঁচা থাকায় বেশি দিন সংরক্ষণ করা যাবে না। তাই বাজারে দেশী রসুনের চাহিদা কম। অন্যদিকে, চীনা রসুন বেশি দিন সংরক্ষণ করা যায় বলে এ রসুনের চাহিদা প্রচুর। 

প্রিয় সংবাদ/শিরিন

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...