প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি।

দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

কানাডা থেকে দেশে ফেরার পথে প্রধানমন্ত্রী দুবাইতে পাঁচ ঘণ্টা যাত্রা বিরতি করেন।

আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৩ জুন ২০১৮, ০৯:৪৬ আপডেট: ১৯ আগস্ট ২০১৮, ২২:১৬


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি।

(প্রিয়.কম) জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনের আউটরিচ অধিবেশনে যোগদানসহ কানাডায় চার দিনের সরকারি সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

১২ জুন, মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা ২০ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী ফ্লাইটটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। ফেরার পথে প্রধানমন্ত্রী দুবাইতে পাঁচ ঘণ্টা যাত্রা বিরতি করেন। 

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর আমন্ত্রণে জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনের আউটরিচ সেশনে যোগ দিতে ৭ জুন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঢাকা থেকে দুবাইয়ের উদ্দেশে রওয়ানা দেন প্রধানমন্ত্রী। আরব আমিরাতের স্থানীয় সময় রাত ১০টা ৫ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী দুবাইয়ে পৌঁছান। সেখানে তাকে স্বাগত জানান আমিরাতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ ইমরান

পাঁচ ঘণ্টা যাত্রাবিরতি শেষে ৮ জুন, শুক্রবার আরব আমিরাতের স্থানীয় সময় ভোর সাড়ে ৩টায় কানাডার উদ্দেশে দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটটি।

একই দিন স্থানীয় সময় সকাল ৯টা ২০ মিনেটে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানটি টরেন্টো পিয়ার্সন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। পরে স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় এয়ার কানাডার একটি ফ্লাইটে করে সম্মেলনস্থল কুইবেক সিটির উদ্দেশে যাত্রা করেন প্রধানমন্ত্রী।

কুইবেকের লা মালবের লে মানোর রিশেলো হোটেলে পৌঁছালে শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানান কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো

৯ জুন, শনিবার কানাডার কুইবেক সিটিতে জি-৭ আউটরিচ নেতাদের বৈঠকে অংশ নেন শেখ হাসিনা। বৈঠকে তিনি বলেন, ‘প্যারিস চুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়ন বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। জলবায়ু পরিবর্তন খাপ খাওয়ানোর জন্য আমাদের বৃহত্তর সমর্থন প্রয়োজন।’

১০ জুন, রবিবার কুইবেকে কানাডার প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে (লে পেটিট ফ্রন্টেন্স) জাস্টিন ট্রুডোর সঙ্গে শেখ হাসিনার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এসময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনি নূর চৌধুরীকে দেশে ফেরত পাঠানোর জন্য কানাডার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

রবিবার রাতে টরেন্টোর মেট্রো কনভেনশন সেন্টারে কানাডা আওয়ামী লীগের দেওয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। অনুষ্ঠানে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি ক্ষমতায় ফিরে আসলে বাংলাদেশ ‘রসাতলে’ যাবে বলে মন্তব্য করেন শেখ হাসিনা।

১১ জুন, সোমবার টরেন্টোতে রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে কানাডার বিশেষ দূত বব রাইয়ের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী।

জি-৭ভুক্ত দেশগুলো হলো কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান, যুক্তরাজ্য ও আমেরিকা।

এবারের সম্মেলনে শেখ হাসিনাসহ বিশ্বের ১২ জন নেতাকে জি-৭ সম্মেলনের বিশেষ আউটরিচ সেশনে অংশ নেওয়ার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন জাস্টিন ট্রুডো।

সূত্র : বাসস

প্রিয় সংবাদ/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
রাজধানীতে ৪০৯টি ঈদ জামাত
আবু আজাদ ১৯ আগস্ট ২০১৮
শিক্ষার্থীদের জামিন মিললেও শঙ্কায় অভিভাবকরা
আমিনুল ইসলাম মল্লিক ১৯ আগস্ট ২০১৮
গুজব-মিথ্যাচার শক্ত হাতে দমন করা হবে: ইনু
জানিবুল হক হিরা ১৯ আগস্ট ২০১৮
ট্রেন্ডিং