সালমান শাহ সম্পর্কে শালীনতাবর্জিত, নোংরা কথা বলতে কি একটুও বাধল না?

নন্দিত সুরকার প্রিন্স মাহমুদ আজ ১০ আগস্ট দুপুর দুইটার দিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিষয়টিকে কেন্দ্র করে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

মিঠু হালদার
নিজস্ব প্রতিবেদক
১০ আগস্ট ২০১৭, সময় - ১৫:০৯

নন্দিত সুরকার প্রিন্স মাহমুদ। ছবিটি তার ফেসবুক থেকে সংগৃহীত।

(প্রিয়.কম) আত্মহত্যা নয়, হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছিলেন সালমান শাহ এবং তা করিয়েছিলেন তারই স্ত্রী সামিরা হকের পরিবার। এই দাবি তুলেছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী রাবেয়া সুলতানা রুবি নামে এক নারী। তিনি সালমান শাহের ব্যক্তিগত বিউটিশিয়ান ছিলেন। এরপর বাংলা চলচ্চিত্রের ক্ষনজন্মা এ চিত্রনায়কের মৃত্যু নিয়ে এমন কথা বলার তিন দিনের মাথায় সুর পাল্টেছেন এই রাবেয়া সুলতানা রুবি। এই নিয়ে সরগরম এখন পুরো বাংলাদেশ।

গতকাল সালমান শাহ'র শ্বশুর শফিকুল হক হীরা একটি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘মায়ের বেপরোয়া আচরণ ও জনপ্রিয়তায় ভাটা পড়তে থাকায় নায়ক সালমান শাহ আত্মহত্যা করেছিলেন’। আর এ খবর প্রকাশিত হওয়ার পর থেকেই সারা দেশের মানুষের প্রশ্নবানে জর্জরিত হচ্ছেন তিনি।

এদিকে নন্দিত সুরকার প্রিন্স মাহমুদ একজন অগ্রজ শিল্পী। নব্বই দশক থেকে এখনো জনপ্রিয়। আজ ১০ আগস্ট দুপুর দুইটার দিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এ শিল্পী বিষয়টিকে কেন্দ্র করে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন।
 
সুরকার প্রিন্স মাহমুদ তার পোস্টে সালমান শাহ'র শ্বশুর শফিকুল হক হীরাকে উদ্দেশ্য করে লিখেছেন, ‘জনাব শফিকুল হক হীরা, সালমন শাহ সম্পর্কে এমন শালীনতাবর্জিত, নোংরা এবং অসম্মানজনক কথা বলতে কি আপনার একটুও বাধল না? জনপ্রিয়তায় ভাটা পড়েছিল, এটা কী ধরনের মন্তব্য? আপনি বোঝেন 'জনপ্রিয়তা' কী?’

ওই পোস্টে প্রিন্স মাহমুদ আরও লিখেছেন, ‘সন্তানহারা পাগল প্রায় মাকে নিয়ে কেমন করে এসব বলতে পারেন? সন্তান হারিয়েছেন? কাঁধে নিয়েছেন সে লাশ? জানেন ২১ বছর ধরে সে বোঝা বইতে কেমন লাগে? আপনি কিন্তু এবার সত্যিই সমস্ত বিষয়টিকে আরো বেশি প্রশ্নবিদ্ধ করে দিলেন।’

বাংলাদেশের জনপ্রিয় গীতিকার, সুরকার ও সংগীত শিল্পী পরিচালক প্রিন্স মাহমুদ। গীতিকার হিসেবে ৯০ দশক থেকে বাংলাদেশে ব্যান্ড শিল্পীদের একক এবং যৌথ অ্যালবামের গান লেখা, সুর করা এবং কম্পোজিশনের কাজ করেছেন তিনি। তার লেখা ও সুর করা বহু গান ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

প্রিয় বিনোদন/শামীমা সীমা

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


স্পন্সরড কনটেন্ট
জনপ্রিয়
আরো পড়ুন