(প্রিয়.কম) রাজধানীর তেজগাঁওয়ের পশ্চিম নাখালপাড়ার রুবি ভিলায় ‘জঙ্গি আস্তানা’ সন্দেহে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) অভিযানে তিনজন নিহত হয়েছে। এ অভিযানে র‌্যাবের দুই সদস্যও আহত হয়েছে। অভিযান শেষে গণমাধ্যমকে এ খবর জানিয়েছেন র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ। 

১২ জানুয়ারি শুক্রবার সকাল সাতটায় বোমা নিস্ক্রিয়কারী ইউনিট কাজ শুরু করে। এরপর ১০টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ফরেনসিক ইউনিট কাজ শুরু করে।

পরে দুপুরে ঘটনাস্থলে এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাবের গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ বলেন, রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ও পুলিশের ওপর নাশকতামূলক হামলার পরিকল্পনা করতেই এখানে জঙ্গিরা জড়ো হয়েছিল। অভিযানে ঘটনাস্থল থেকে আরও চার জেএমবি সদস্যকে আটক করা হয়েছে। আটক সবাই বিভিন্ন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র।

কী ধরনের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা সে বিষয়ে স্পষ্ট কিছু জানায়নি র‌্যাব। তবে তেজগাঁওয়ের যে রুবি ভিলায় অভিযান চালানো হয়েছে সেখান থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় মাত্র কয়েকশ মিটার দূরে অবস্থিত। 

একটি কক্ষের ভেতরে বোমা তৈরির সরঞ্জামাদি। ছবি: শামীম আহমেদ

তিনি আরও জানান, নিহত তিন জনই জেএমবির সদস্য ছিল। আমরা গোপন সূত্রে খবর পাই, রাজধানীতে একটি সেল গঠন করে বিভিন্ন সরকারি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় হামলার পরিকল্পনা হচ্ছে। সেই সূত্রের তথ্যের ভিত্তিতে এই বাড়িতে অভিযান চালানো হয়।

এই চুলার মাধ্যমে গ্রেনেড বিস্ফোরণের চেষ্টা চালায় বলে দাবি করেছে র‌্যাব। ছবি: শামীম আহমেদ

এর আগে সকাল সাড়ে নয়টায় র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি জানান, ভবনের ভেতরে তিনজনের মরদেহ পড়ে আছে। তিনজনই পুরুষ। তাদের বয়স ২০-৩০ এর মধ্যে। 

rab oparation -1

নাখালপাড়ার ঘটনাস্থলে ক্রামইসিন ইউনিট। ছবি: প্রিয়.কম

ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, অবিস্ফোরিত গ্রেনেড, সুইসাইডাল ভেস্ট (বোমা বাধার যন্ত্র) উদ্ধার করা হয়েছে। তারা পুরো রুমের ভেতর গ্যাস ছড়িয়ে দিয়ে গ্রেনেডটি চুলায় দিয়ে বিস্ফোরণের জন্য চেষ্টা করেছিল কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে গ্রেনেডটি বিস্ফোরিত হয়নি। র‌্যাবের অভিযান সমাপ্ত হয়েছে।

ওই সময় বেনজীর আরও বলেন, ‘ঘটনাস্থলে বোমা নিস্ক্রিয়কারী ইউনিট কাজ শেষ করেছে। এখন ফরেনসিক ইউনিট আসবে। এরপর স্থানীয় থানা পুলিশ মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করবে। আমরা ক্রামইসিনকে ঘটনাস্থলে আসার অনুরোধ করেছি।’

rab oapration

নাখালপাড়ার ঘটনাস্থলে ক্রামইসিন ইউনিটের সদস্যরা। ছবি: প্রিয়.কম

র‌্যাব ডিজি বলেন, চলতি মাসের ৪ তারিখে জাহিদ নামে একজনের পরিচয়পত্র দিয়ে বাসাটি ভাড়া নেওয়া হয়। তখন একই ব্যক্তির দুটি জাতীয় পরিচয় জমা দেওয়া হয়। তখন আসলের মতো দেখতে আইডি কার্ডটিতে জাহিদ এবং জমা দেয়া ফটোকপিতে সজিব নাম লেখা ছিল। আমরা সন্দেহ করছি জাতীয় পরিচয়পত্র দুটিই ফেক হতে পারে। কারণ একই ব্যক্তির ফটো সম্বলিত পরিচয়পত্রে দুটি নাম রয়েছে।  

র‌্যাবের ডিজি জানান, বাড়ির কেয়ারটেকার রুবেল এই রুম ভাড়া দেওয়ার বিষয়ে বাড়ির মালিককে কিছুই জানায়নি। 

nakhailpara-capital

রাজধানীর পশ্চিম নাখালপাড়ার রুবি ভিলায় র‌্যাব অভিযান পরিচালনা করে। ছবি: প্রিয়.কম  

বেনজীর আহমেদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষ করার পরপরই ফরেনসিক ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে কাজ শুরু করে।

এর আগে শুক্রবার সকালে র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের প্রধান মুফতি মাহমুদ জানিয়েছিলেন, নাখালপাড়ার ১৩/১ রুবি ভিলায় র‌্যাবের অভিযানে একাধিক জঙ্গি সদস্য নিহত হয়েছে। বাসার ভেতরে প্রচুর বিস্ফোরক ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। আহত দুই র‌্যাব সদস্যের মধ্যে একজনের গায়ে স্প্রিন্টার লেগেছে আরেকজনের হাতে আঘাত পেয়েছেন। তাদেরকে প্রাথমিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে তেওগাঁওয়ের পশ্চিম নাখালপাড়ার রুবি ভিলায় ‘জঙ্গি আস্তানা’ সন্দেহে বাড়িটির চারদিকে ঘিরে ফেলে র‌্যাব সদস্যরা। ওই বাড়ির গেট ভেঙ্গে প্রবেশ করে পঞ্চম তলায় অভিযান শুরু করে র‌্যাব।

অভিযানের এক পর্যায়ে র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গ্রেনেড ছুড়ে মারে ‘জঙ্গিরা’ তখন র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ায় হতাহতের ঘটনা ঘটে বলে দাবি করেন মুফতি মাহমুদ।

রুবি ভিলার যে ফ্লোরে অভিযানের পর ঢুকেছে র‌্যাব। ছবি: প্রিয়.কম

তবে ভবনের অন্যান্য ফ্লোরের বাসিন্দাদের নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে জানান মুফতি মাহমুদ। এ ঘটনায় বাড়ির মালিক সাব্বির (৫৫) ও দারোয়ানকে জিঞ্জাসাবাদের জন্য র‌্যাব হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

প্রিয় সংবাদ/কেএফ