আধ্যাত্মিক ধর্মগুরু গুরমিত সিংহ রাম রহিম। ফাইল ছবি

ধর্ষণ মামলায় ‘ধর্মগুরু’ রাম রহিমের ২০ বছরের কারাদণ্ড

সোমবার দুপুরে রোহতকের সুনারিয়া জেলে এই রায় ঘোষণা করেন সিবিআই আদালতের বিচারক।

আশরাফ ইসলাম
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২৮ আগস্ট ২০১৭, ১৬:১৮ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ১০:১৬


আধ্যাত্মিক ধর্মগুরু গুরমিত সিংহ রাম রহিম। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) ধর্ষণের দায়ে ভারতের স্বঘোষিত আধ্যাত্মিক ধর্মগুরু গুরমিত সিংহ রাম রহিমের ২০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন অাদালত। ২৮ আগস্ট সোমবার দুপুরে রোহতকের সুনারিয়া জেলে এই রায় ঘোষণা করেন সিবিআই আদালতের বিচারক।

রাম রহিমের বিরুদ্ধে দুটি ধর্ষণ মামলায় প্রতিটিতে ১০ বছর করে মোট ২০ বছরের সাজা ঘোষণা করা হয়। একইসঙ্গে প্রতিটিতে ১৫ লক্ষ রুপি করে মোট ৩০ লক্ষ রুপি জরিমানা করা হয় এই বিতর্কিত ধর্মগুরুকে।

এদিকে শুক্রবার রাম রহিম দোষী সাব্যস্ত হতেই ভক্তরা যেরকম তাণ্ডব চালিয়েছিল, তার পরে আর ঝুঁকি নিতে চায়নি হরিয়ানা প্রশাসন। শাস্তি ঘোষণার জন্য স্বঘোষিত ওই ধর্মগুরুকে আদালতে নেওয়া হয়নি। সুরক্ষার স্বার্থে আদালতকেই উড়িয়ে আনা হয় সুনারিয়ার জেলে। 

 

এর আগে, ২৫ আগস্ট শুক্রবার হরিয়ানার পঞ্চকুলার একটি আদালতে স্বঘোষিত ধর্মগুরু রাম রহিমকে ধর্ষণ মামলার দোষী সাব্যস্ত করার পর থেকে ছড়িয়ে পড়া সংঘর্ষে হরিয়ানা ও পাঞ্জাবজুড়ে এ পর্যন্ত ৩২ জনের প্রাণহানি ও দুই শতাধিক আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে দেশটির সংবাদমাধ্যম টাইমস অফ ইন্ডিয়া। সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ এবং উত্তরাখণ্ডেও।

২৬ আগস্ট শনিবার সকাল থেকে হরিয়ানার পাঁচকুলা ও এর আশপাশের এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। সহিংসতা এড়াতে বিভিন্ন রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় কারফিঊ ও ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। 

প্রিয় সংবাদ/আদিল/শান্ত   

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
ছাত্রদলের ৩টি ইউনিটের আংশিক কমিটি গঠন
মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক ২০ আগস্ট ২০১৮
নৃত্যগুরু বজলুর রহমান বাদল আর নেই
সফিউল আলম রাজা ২০ আগস্ট ২০১৮
রাজধানীতে ৪০৯টি ঈদ জামাত
আবু আজাদ ১৯ আগস্ট ২০১৮
ট্রেন্ডিং